হ্যাকারদের হাতে সত্যিই কি আছে সুপার পাওয়ার?

হ্যাকিং এবং হ্যাকার দের কে নিয়ে আমাদের চিন্তা ভাবনার শেষ নেই? 

তারা আসলেই কি এমন কোন সুপার পাওয়ার লাভ করেছে যার সাহায্যে তারা যখনি যা চায় তাই করতে পারে?

এরকম হিসাব সমীকরণ আমাদের মধ্যে প্রায় ঘুরপাক খায়। এই পোস্টটিতে আমি আলোচনা করব হ্যাকার কারা এবং তাদের প্রকারভেদ এবং তাদের কাছে কোন সুপার পাওয়ার আছে কিনাা সেটা  সম্পর্কে।

যে কোন কিছুর যেমন অনেকগুলো প্রকারভেদ আছে তেমনি হ্যাকারদের অনেক প্রকারভেদ আছে!

তাদের মধ্যে অনেকে আছে অনেকে নিজের স্বার্থসিদ্ধির জন্য খারাপ কাজ করে আর অনেকেই অন্যের সিকিউরিটির জন্য নিজেকে উৎসর্গ করে।

হ্যাকার কারা?

হ্যাকার আসলে তারাই যারা আপনার অনুমতি না ছাড়াই আপনার কম্পিউটারকে নেটওয়ার্কে অবৈধভাবে প্রবেশ করবে!

এর মধ্যে কয়েক ধরনের হ্যাকার আছে আর তারা হলেন!

  • White Hat Hacker:

এই হ্যাকার এরা সাধারণত সাইবার সিকিউরিটি এক্সপার্ট। তাদের কাজই হলো কোন জায়গায় সিকিউরিটির কোন দুর্বলতা আছে সে সকল জিনিস গুলো খুজে বের করা এবং তার সঠিক সমাধান করা।

তারা কখনো তাদের স্বার্থ সিদ্ধির জন্য কারো ক্ষতি করে বসে না তারা সাইলেন্ট মাইন্ড হ্যাকার।তাছাড়া তাদেরকে ইথিক্যাল হ্যাকার ও বলা হয়!

  • Black Hat Hacker:

আপনার যদি প্রশ্ন থাকে যে হ্যাকিং জগতে সবচেয়ে মারাত্মক এবং অবৈধ কাজ গুলো কারা করে? তাহলে আমার উত্তর একটাই তারা হল ব্ল্যাক হ্যাট হ্যাকারস

অর্থাৎ তাদের কাজই হলো যে কোন ওয়েবসাইট কিংবা কম্পিউটারের দুর্বলতা বের করা এবং সেই দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে যে কারো ক্ষতি করা।

আসলে ওয়েবের জগতে ব্ল্যাক হ্যাট হ্যাকাররা খারাপ কাজগুলোর মধ্যে এমন  কোন কাজ নেই যেটা তারা করতে পারবেনা।

তাই তাদেরকে ওয়েবের জগতে ঘৃণিত হ্যাকার বলে আখ্যায়িত করা যায়! কারণ তাদের মূল লক্ষ্যই হলো তাদের স্বার্থ সিদ্ধি।

  • Gray Hat Hacker:

এই হ্যাকাররা আসলে কখনো কোন কাজের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়।অর্থাৎ তারা কখনো খারাপ কাজ কিংবা কোনো ভালো কাজ করেন।

যার কারনে আপনি কখোনোই ভেবে পাবেন না যে তারা কোন সময় কোন ধরনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে।

এবং কোন সময় আপনার উপকার করবে বা কোন সময় তারা আপনার জন্য ভয়ঙ্কর হয়ে উঠবে।

আর এই কারণে তাদেরকে গ্রে হ্যাট হ্যাকারস বলা হয়!

  • Script Kidie:

আপনি যদি এদেরকে একজন সম্পূর্ণ হ্যাকার বলেন তাহলে ভুল হবে, আবার আপনি যদি তাদেরকে হ্যাকার না বলে এড়িয়ে যান তাহলে এটাও ভুল হবে।

মূলকথা হলো তারা একজন সম্পূর্ণ হ্যাকার নয়, তাদের কাজই হলো অন্যের শেয়ারকৃত স্ক্রিপ্ট কিংবা টুলস গুলো কে কাজে লাগিয়ে তাদের কার্য সম্পাদন করা।

এই বলে আপনি যদি তাদেরকে এড়িয়ে যান তাহলে তারা আপনার জন্য ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করতে পারে। কারণ তারা সম্পূর্ণ হ্যাকার নন  ঠিকই, তবে তারা আপনার ক্ষতি সাধনের জন্য যথেষ্ট!

  • Neophyte Or Noob:

একেবারে সাধারণ অর্থে যারা হ্যাকিং এর জগতে নতুন কিংবা যারা নতুন হ্যাকিং শিখতে তাদেরকে সাধারণত নোব বলা হয়।

অর্থাৎ তারা হ্যাকিং এর জগতে একেবারে beginner’s এবং তাদের লক্ষ্য থাকে এই হ্যাকিংকে তাদের  নিজের পেশা হিসেবে স্থাপন করা!

তো এই হল হ্যাকারদের সকল প্রকার! আশা করি আপনাদের সকল দ্বিধাদ্বন্দ্ব কাটিয়ে হ্যাকারদের সম্পর্কে কিছুটা হলে জানাতে পেরেছি।

আসলে এতেই আমি সার্থক!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × 2 =

Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap