ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করুন কোডিং ধারণা ছাড়া

একটি ওয়েবসাইট হতে পারে আপনার আয় করার একমাত্র হাতিয়ার। আপনি চাইলে ইন্টারনেট কে কাজে লাগিয়ে আর করার মাধ্যম হিসেবে ওয়েবসাইট তৈরি করা কে বেশি প্রাধান্য দিতে পারেন।

তাছাড়াও আপনি চাইলে একদম ফ্রিতে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। অনেকে আছে ওয়েবসাইট তৈরি করার ক্ষেত্রে মনে করেন যে সে ক্ষেত্রে তার এইচটিএমএল কোডিং সম্পর্কে বেশি ধারণা থাকা দরকার।

মোটেও না, আপনি যদি এইচটিএমএল কোডিং সম্পর্কে ওদের ধারণা রাখেন তাহলে আপনি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন একদম বিনামূল্যে।

তবে এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই কিছুটা হলেও ইংরেজি সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে। আর ইংরেজি সম্পর্কে আপনি জানলে এইচটিএমএল সম্পর্কে আপনি ওয়েবসাইট তৈরি করার পরেও ধীরে ধীরে শিখে যাবেন।

তবে অনেক ক্ষেত্রেই আপনি যদি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান তাহলে আপনাকে ডোমেইন এবং হোস্টিং কিনতে হয়। যা অত্যন্ত ব্যয়বহুল এবং অনেকের সাধ্যের বাহিরে।

তবে যে আপনাকে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে হলে ডোমেইন হোস্টিং বাধ্যতামূলক কিনতে হবে তা কিন্তু নয়। এমন এক ধরনের প্লাটফর্ম আছে যেখানে আপনি ফ্রিতে ডোমেইন-হোষ্টিং পাবেন।

এবং এখানে আপনি এমন একটি ডোমেইন পাবেন যার মেয়াদ থাকবে যতকাল ওয়েবসাইটটিকে থাকবে ঠিক তত কাল।

 আর হোস্টিং হিসেবে আপনি যা পাবেন তা আপনি কল্পনাও করতে পারবেন না। কারণ এই প্ল্যাটফর্মের হোস্টিং এর সাথে কয়েক লক্ষ ভিজিটর একসাথে ভিজিট করলেও সাইট ডাউন  করতে পারবে না।

আপনি কি বুঝতে পারছেন আমি কোন প্ল্যাটফর্মের কথা বলছি, অনেকেই ধারনা করতে পারছেন যে আমি ব্লগারের কথা বলছি। আসলেই তাই আপনাদের ধারণাটি ঠিক।

আপনি চাইলে blogger.com এ একটি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন, এবং এই প্লাটফর্মে ওয়েবসাইট তৈরি করার ক্ষেত্রে আপনাকে কোন ডোমেইন-হোস্টিং কিনতে হবে না।

আর কিভাবে একদম ফ্রিতে আপনি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন এই টিউটোরিয়াল দেখার জন্য আজকের এই  পোস্টটি ফলো করুন।

ওয়েবসাইট কি?

আপনি হয়তো আপনার যেকোনো ধরনের সমস্যার কথা গুগল সার্চ বারে গিয়ে জানান। আর যখনই আপনি গুগল সার্চ বারে যেকোনো কিওয়ার্ড সার্চ করেন, তখন এই কীওয়ার্ড রিলেটেড কিছু রেজাল্ট আপনি দেখতে পান।

মূলত আপনি যখন আপনার সমস্যা দূরীকরণের জন্য ওই সমস্ত রিজাল্ট যুক্ত টাইটেলে ক্লিক করবেন এবং কোন একটি গন্তব্যস্থলে পৌঁছাবেন সেটাকেই সাধারণত ওয়েবসাইট বলা হয়।

প্রায় ক্ষেত্রেই ওয়েবসাইট হল এটি যা ডোমেইন হোস্টিং এর সহায়তায় আপনাকে ফ্রিতে প্রশিক্ষণ দেয় যে কোন বিষয় শিখতে এবং জানতে।

তবে এটা আপনার কাছে যদি ফ্রি মনে হয় তাহলে এটা ভুল হবে, হয়তো তারা আপনার কাছ থেকে এর মূল্য সংযোজন করছে কিন্তু আপনি তা বুঝতে পারছেন না।

তবে সে যাই হোক ওয়েবসাইট হল এমন একটি প্ল্যাটফরম যেখান থেকে আপনি নতুন কিছু শিখতে পারেন অথবা আপনি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করলে সেখানে আপনার অভিজ্ঞতা ফুটিয়ে তুলতে পারেন।

একটি সফল ওয়েবসাইট থেকে আপনি কি কি পাবেন-

নিজেকে জানাতে পারবেন

আপনি যদি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করেন এবং এখানে মানসম্মত আর্টিকেল লিখে মানুষকে সাহায্য করেন তাহলে আপনাকে চিনতে কেউ ভুল করবে না।

এক্ষেত্রে আপনার নিজের পপুলারিটি বৃদ্ধি পাবে এবং সবাই আপনাকে শ্রদ্ধা করবে এবং জেনে নেবে যে আপনি আসলে কি এবং কেন এসব করছেন।

এছাড়াও আপনি লোক সমাগমের হৃদয়ে নিজের জন্য অনেক বড় একটি জায়গা করে নিতে পারবেন। যা আপনাকে অন্য রকম অনুপ্রেরণা যোগাবে।

আয় করা

আপনি ওয়েবসাইটে মানসম্মত আর্টিকেল লেখার মাধ্যমে আপনি এখান থেকে অনেক ভালো পরিমাণ আয় করতে পারবেন।

যেমন আপনি ওয়েবসাইটে যদি মানসম্মত সাত-আটটি আর্টিকেল লিখে তারপরে ওয়েবসাইট থেকে আয় করার সর্বোত্তম মাধ্যম এর জন্য আবেদন করেন তাহলে অ্যাপ্রভাল পেয়ে যাবেন।

শুধুমাত্র যে আপনি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে আয় করতে পারবেন তা কিন্তু নয়। আরো অনেক উপায় আছে যা আমি নিচে আলোচনা করছি।

ওয়েবসাইট থেকে এডসেন্স এর বিকল্প হিসেবে আপনি চাইলে বিভিন্ন ধরনের কোম্পানি এর প্রোডাক্ট গুলো প্রচারণার মাধ্যমে আয় করতে পারেন।

আপনি কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটে অন্যান্য কোম্পানির কিংবা বিজনেস প্রোডাক্টগুলো প্রচার  করে গুগল এডসেন্স এর চেয়ে কয়েক হাজার গুণ বেশি আয় করতে পারবেন।

তবে কোন ধরনের বিজনেস এজেন্সি কিংবা ওয়েবসাইট আপনার সাইটে তাদের পণ্য প্রচারণা করতে হলে অবশ্যই আপনার সাইটটি তাদের পণ্য প্রচারণার উপযুক্ত হতে হবে।

আপনার সাইটটি এতে উপযুক্ত হওয়ার জন্য অবশ্য যে বিষয়গুলো আপনার সাইটে দরকার সেগুলো হলো-


সার্চ ট্রাফিক
▪ ইউনিক এবং আকর্ষণীয় কনটেন্ট
▪ আপনার ওয়েবসাইটের নজরকাড়া ডিজাইন


উপরোক্ত বিষয়গুলো আপনার সাইটে খুব বেশি পরিমাণ যদি থাকে তাহলে যেকোনো বিজনেস কোম্পানি তাদের পণ্য প্রচারণায় আপনার সাইটটি বেছে নিতে পারে।

আর আপনার পার্ট টাইম জব হবে আপনি চাইলে এটিকে নির্বাচন করতে পারেন। কিংবা এটি কি আপনি আপনার লাইফ করার কারিগর হিসেবে বেছে নিতে পারেন।

যখনই আপনি আপনার সাইটে সৎ ভাবে কাউকে কিছু শিখাবেন তখনই এটি আপনার জন্য অমূল্য একটি সম্পদ হয়ে থেকে যাবে। 

প্রথমত আপনার সাইটের ভিজিটর পাবে এবং আপনার সাইটের ভিজিটর বৃদ্ধি পেলে এর থেকে আপনি বিপুল পরিমাণ টাকা আয় করতে পারবেন।

ফ্রিতে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার ক্ষেত্রে আপনাকে প্রথমে নিচের দেয়া লিঙ্কে ভিজিট করতে হবে। এবং তারপর স্টেপ বাই স্টেপ কাজ চালিয়ে যেতে হবে।

Blogger.com

লিঙ্কটিতে ভিজিট করার পর ক্লিক করুন Create Your Blog নামে যে অপশন রয়েছে তার উপর।

কোন ধরনের কোডিং ধারণা ছাড়া কিভাবে ওয়েবসাইট তৈরি করব?



এবার আপনাকে আপনার জিমেইল অ্যাকাউন্ট ডিটেইলস দিতে হবে। অর্থাৎ আপনি যে গুগোল একাউন্ট এর সহায়তায় ওয়েবসাইট তৈরী করতে চান সেই একাউন্ট দিন।

তবে যেকোনো জিমেইল একাউন্ট দেওয়ার আগে অবশ্যই এর সর্বোচ্চ নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নিশ্চিত করুন।


রিকভারি ব্যবস্থা
▪ টু স্টেপ ভেরিফিকেশন
▪ মাত্রাতিরিক্ত কঠিন পাসওয়ার্ড


উপরে উল্লেখিত সিকিউরিটি সংক্রান্ত বিষয়গুলো সম্পর্কে আপনার জিমেইল অ্যাকাউন্ট যদি সর্বোচ্চ পর্যায়ে থাকে তাহলে এটি সিলেক্ট করুন।

আপনার জিমেইল একাউন্ট দেয়া হয়ে গেলে এবার আপনার ব্লগারের জন্য একটি নাম নির্বাচন করতে হবে। আপনি যেই রিলেটেড ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান সেই  অনুযায়ী একটি নাম চয়েজ করুন।

যেমন আপনি যদি নিউজ পোর্টাল কোন সাইট তৈরি করতে চান তাহলে উদাহরণস্বরূপ এর নাম দিতে পারেন- News24  অথবা আপনার পছন্দ অনুযায়ী।

এছাড়াও আপনি সেখানে আপনার নামটি সিলেক্ট করতে পারেন

একটি ভালো অর্থপূর্ণ আপনার পছন্দের নাম সিলেক্ট করার পর এবার ক্লিক করুন  continue to blogger নামের আইকনটিতে।

কোন ধরনের কোডিং ধারণা ছাড়া কিভাবে ওয়েবসাইট তৈরি করব?

তাহলে তারা আপনাকে আপনার বিনামূল্যে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য ব্লগের ডেশবোর্ডে নিয়ে যাবে।  যেহেতু ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন তাই ক্লিক করুন Create new Blog আইকনটিতে।

কোন ধরনের কোডিং ধারণা ছাড়া কিভাবে ওয়েবসাইট তৈরি করব?



এবার ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার ক্ষেত্রে আপনাকে একদম শেষ পর্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি স্টেপ ফলো করতে হবে। যেমন আপনার ওয়েব সাইটের টাইটেল এবং ডোমেইন নেম।

Title: এখানে অবশ্যই আপনার ওয়েবসাইটের জন্য একটি সুন্দর এসইও ফ্রেন্ডলি টাইটেল দিতে হবে।


এক্ষেত্রে আপনার ওয়েবসাইট নিউজ রিলেটেড হলে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য সুন্দর এসইও ফ্রেন্ডলি টাইটেল হিসেবে উদাহরণস্বরূপ এটা দিতে পারেন-  News 24 : 24 ঘন্টার খবর” 

Address: এখানে আপনার ওয়েবসাইটে টাইটেলের সাথে সামঞ্জস্য রেখে একটি ডোমেইন নেম সিলেক্ট করতে হবে।  ডোমেইন নেম সাধারণত এরকম google.com,  youtube.com”

নামটা সাধারণত এরকম হয় কোন একটি ওয়েবসাইটের নাম এর সাথে .com , .net , ইত্যাদি । এই ডোমেইন নেম গুলোকে সাধারণত টপ লেভেল ডোমেইন বলা হয়।

তবে এই সমস্ত টপ লেভেল ডোমেইন পরবর্তী সময়ে আপনার সামর্থ্য অনুযায়ী ক্রয় করতে পারবেন।  ডোমেইন ক্রয় করা ছাড়াও আপনি ব্লগার এর মাধ্যমে ওয়েবসাইট খুললেন ফ্রিতে লাইফ টাইম এর জন্য একটি ডোমেইন পাবেন।

যে ডোমেইনের নাম সাধারণত .blogspot.com  এই আকারে পাবেন। ডোমেইন নেমটি আপনার সাইটের সাথে সামঞ্জস্য রেখে দিতে পারেন।

যেমন নিউজ পোর্টাল সাইট হিসেবে আপনি ডোমেইন নেমটি এভাবে সাজাতে পারেন newsmania24.blogspot.com “

তবে অনেক ক্ষেত্রেই আপনার ডোমেইন নেমটি এভেলেবেল নাও পেতে পারেন, এক্ষেত্রে ডোমেইন নামে কিছুটা পরিবর্তন করলেই তা সেভ করতে পারবেন।

Theme: এখান থেকে আপনার ওয়েবসাইটের ডিজাইন স্বরূপ আপনি যেকোনো একটি টিম সিলেক্ট করতে পারেন।

উপরে দেয়া ইনফরমেশন অনুযায়ী সবকিছু দেয়া হয়ে গেলে এবার এগুলোকে সেভ করে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য ক্লিক করুন Create blog নামের আইকনটিতে।

কোন ধরনের কোডিং ধারণা ছাড়া কিভাবে ওয়েবসাইট তৈরি করব?

তাহলেই আপনি ওই ওয়েবসাইটে  হোমপেইজে যেতে পারবেন এবং এই ওয়েবসাইটটি একান্তই আপনার। যা সহজ মানে আপনি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পেরেছেন।

আপনি যদি blogger.com এর ওয়েবসাইট তৈরি করা ছাড়াও আরো অনেক উপায় একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান তাহলে আপনি চাইলে ওয়েবসাইট বিল্ডার ব্যবহার করতে পারেন।

নিচে আমি কয়েকটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট বিল্ডারের লিংক দিয়ে দিয়েছে যেখান থেকে আপনি কোন রকমে কোডিং ছাড়াই ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেনWordPress

ওয়ার্ডপ্রেস সাইট তৈরি করার জন্য আপনাকে ডোমেইন এবং হোস্টিং ক্রয় করতে হবে। তবে আপনি যদি কিছু টাকা খরচ করে ডোমেইন এবং হোস্টিং কিনে ওয়ার্ডপ্রেস সাইট তৈরী করেন তাহলে আপনি এখানে নানাবিধ সুবিধা পাবেন।

এই সুবিধা গুলোর মধ্যে অন্যতম হলো-


ফ্রি এবং পেইড প্লাগিন
▪ সহজে এসইও  ব্যবস্থা
▪ এক্সট্রা প্রটেকশন


ওয়ার্ডপ্রেস সাইট তৈরি করলে আপনি উপরে উল্লেখিত সমস্ত বিষয় গুলো খুব সহজেই করতে পারবেন। তাই কিছু টাকা খরচ করে হলেও চেষ্টা করবেন ওয়ার্ডপ্রেস এ আপনার সাইট বিল্ডিং করার।

webnode


এটাও একটি ফ্রী ওয়েবসাইট builder টুলস। যা আপনাকে কোন রকমে কোডিং ছাড়াই ওয়েবসাইট তৈরি করতে সাহায্য করবে।


এছাড়াও এর লিস্টে আরো কয়েকটি ওয়েবসাইট বিল্ডার রয়েছে, এগুলো  আপনি নিচের দেয়া লিঙ্ক থেকে ট্রাই করতে পারেন।



আটটায় একটি বিনামূল্যে ওয়েবসাইট তৈরি করার ক্ষেত্রে উপরের লিঙ্কে ভিজিট করুন আপনার পছন্দের সাইট তৈরি করুন।

তবে ওয়েবসাইট তৈরি করার ক্ষেত্রে সবচেয়ে ফ্রি এবং সারা জীবন ব্যবহার করার উপযোগী তাছাড়াও আয় করার উপযোগী হিসেবে আপনি blogger.com এ ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন।

আর আপনার যদি ডোমেইন এবং হোস্টিং কেনার সামর্থ্য থাকে তাহলে আপনি wordpress-এ ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। এটা সম্পূর্ণ নির্ভর করে আপনার সামর্থ্যের উপর।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nine − four =

Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap