ডিসেবল করুন সন্ত্রাসবাদি ফটো ভিডিও, কিংবা প্রোফাইল

ফেসবুকে আসলে সকল অন্যায় এবং অনিয়মের বিরুদ্ধে।

আর সেখানে যদি হয় সন্ত্রাসবাদি তাহলে তাদের আছে আরো কড়া নিয়ম।

ফেসবুকে আসলে কখনোই চায় না যে তাদের প্লাটফর্মকে কেউ তাদের সন্ত্রাসবাদীর প্রধান হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করুন।

এখন আপনি বলতে পারেন তাহলে এখানে তো অনেক সন্ত্রাসবাদীর প্রকোপ দেখা যায়?

অর্থাৎ এরকম অনেক পেইজ কিংবা গ্রুপ অথবা প্রোফাইল আছে যারা প্রকাশ্য সন্ত্রাসবাদি না করলেও তার ইঙ্গিত বহন করে!

তাহলে কেন ফেসবুক এগুলা কে বন্ধ করে না?এখানে একটি কারণ হলো- ফেসবুক কখনোই প্রোফাইলটি বন্ধ করবে নাহ যতক্ষণ পর্যন্ত  এটা আপনার ক্ষতির কারন হয়ে না দাড়ায়।

বিষয়টা আরেকটু স্পষ্ট করা যাক! এই সমস্ত জিনিস যখনই আপনার ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে কিংবা আপনি যখনই ভাববেন যে এগুলা ফেসবুকে আপনার জন্য কিংবা অন্যান্য দের জন্য মানানসই নয়!

তখনই আপনার গুরুত্বপূর্ণ  রিপোর্টের কারণে ফেইসবুক এটা কে রিমুভ করে দিবে, কিংবা ওই ইউজারের আইডিটাকে ডিজেবল করে দেবে!

আমরা আসলে এরকম অনেক জিনিসই দেখতে পাই আমাদের টাইমলাইনে- বিশেষ করে সন্ত্রাসবাদি ফটো কিংবা অন্য কিছু!

আর এই পোস্টে আমি আলোচনা করেছি  কিভাবে সন্ত্রাসবাদীর একাউন্ট রিমুভ করা যায়।

এর জন্য প্রথমে আপনি নিচের দেওয়া লিংকে ক্লিক করুন:

Link:Go to link

এবং তারপর আমি যেভাবে স্ক্রিনশটে বর্ণনা করেছি ঠিক সেইভাবে এটা ফিলাপ করে সাবমিট দিন!

ডিজেবল করে দিন ফেসবুকের যে কোন সন্ত্রাসবাদি ফটো ভিডিও কিংবা প্রোফাইল!

এবার কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন তাহলেই ফেসবুক আপনাকে ইমেইলের মাধ্যমে জানিয়ে দিবে যে প্রোফাইলটি ডিজেবল হয়েছে কিনা।

এটা সম্পূর্ণ নির্ভর করবে তাদের পলিসির উপর! অর্থাৎ আপনার রিপোর্ট যদি ঐ সমস্ত পোষ্টের সাথে না মিলে তাহলে এটা কখনোই ডিজেবল হবে না।

তাই রিপোর্টকে কাজ করানোর জন্য প্রথমে এটা শনাক্ত করে নিন যে আপনি যে বিষয়ের উপর রিপোর্ট করছেন সেটা কি আসলেই অবৈধ?

এভাবেই আপনি সন্ত্রাসবাদি এবং অবৈধ যা ফেসবুকের কিংবা সকলের জন্য ক্ষতিকারক এগুলা কে রিমুভ করতে পারবেন!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − fourteen =

Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap