ফেসবুক একশন ব্লক কেনো হয়? ৯ টি কারন |

বাছাইকৃত সেরা ৯ টি কারন আপনার ফেইসবুক আইডিটি একশন ব্লক/ডিজেবল হওয়ার জন্য।( জানুন এবং বাচুন)



ফেসবুকে আপনি লক্ষ্য করলে দেখতে পারবেন অনেক এর আইডি একশন ব্লক হয়ে যায়। যার মূল কারন অনেকগুলো হতে পারে।


আজকের এই পোস্টে আমি আপনাদের দেখাবো কেন একটি ফেসবুক আইডি একশন ব্লকে হয়? এবং তা থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায় সম্বন্ধে।

ফেসবুকের কিছু নিয়ম আছে, আপনাকে এগুলো অবশ্যই মানতে হবে আর আপনি যদি না মানেন তাহলে আপনি একশন ব্লক হতে পারে।

তাহলে প্রথমে জেনে নিন কি কি কারণে আপনার আইডিটি একশন ব্লক হতে পারে?

  •  অতিরিক্ত কোন ফাংশন ব্যবহার করাঃ

আপনি যদি আপনার ফেসবুক আইডি থেকে সবার পাবলিশ করা স্টাটাসে শুধু লাইক দেন তাহলে আপনার ফেসবুক আইডি লাইক ব্লক হয়ে যাবে।      


আবার আপনি যদি সবার পোস্টে হাহা রিয়েক্ট দেন তাহলে আপনার ফেসবুক আইডি   হা হা রিয়াক্ট ব্লক হয়ে যেতে পারে।


অর্থাৎ আপনি যে রিয়েক্ট ব্যবহার করে না কেন, একটি রিয়াক্ট অনেক সময় ব্যবহার করবেন না তা না হলে আপনি একশন ব্লকে যেতে পারে।

  • অশ্লীল, পর্ণ ও বুট লিংক।

আপনি যদি আপনার টাইমলাইনে কিংবা কারো ইনবক্সে কোন ধরনের অশ্লীল পর্নো  অথবা বুট এর লিংক দেন।


তাহলে আপনাকে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ সরাসরি একশন ব্লক করে দিতে পারেন।


হোক সেটা আপনার মেসেজ ব্লক কিংবা পোস্ট ব্লক কারণ, কারন ফেসবুকে অশ্লীল কিংবা পর্ন এসব লিংক প্রচার করা পুরোটাই  তাদের দেওয়া অ্যালগরিদম এর বিপরীত।


তাই সব সময় চেষ্টা করবেন এর সকল বিষয় বস্তু থেকে দূরে থাকার, এতেই আপনার ভালো হবে।

  • একই পোস্ট বারবার করাঃ


আপনি যদি আপনার টাইমলাইনে একই পোস্ট বারবার করেন তাহলে এটা ফেসবুক মনে করবে এটা স্প্যাম।


আর তারা এর কারণে আপনাকে ব্লক করে দিতে আর পারে, তাই আপনি যদি একশন  ব্লক থেকে নিজেকে বাঁচাতে চান তাহলে অবশ্যই এ কাজটি থেকে বিরত থাকুন।

  • অতিরিক্ত মানুষকে ট্যাগ করাঃ



আমরা অনেক সময় দেখলে দেখতে পারি যে অনেকে পোস্ট করলে তারা অনেক জনকে ট্যাগ করে.।।যার কারণ হতে পারে লাইক বৃদ্ধি করা কিংবা কমেন্ট।


কিন্তু আপনি যদি অনেকজনকে ট্যাগ করেন তাহলে ফেসবুকে এটাকে স্পাম বলে গণ্য করবে।


এবং এর ফলশ্রুতিতে তারা আপনাকে স্বল্প কিছুদিনের জন্য কিংবা বেশ কিছুদিনের জন্য একশন ব্লক করে দিতে পারে। 

  • অতিরিক্ত ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠানোঃ

নতুন ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যে অনেক ধরনের লোক আছে, যাদের মধ্যে একদল হলো যারা ফ্রেন্ড বাড়ানো নিয়ে প্রতিযোগিতা শুরু করে দেয়।


এটা আসলে খুবই খারাপ একটি অভ্যাস। আপনি যদি প্রতিদিন খুব বেশি পরিমাণে ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট পাঠাতে থাকেন তাহলে ফেসবুকের  নীতিমালার বিপরীতে চলে যাবেন।


যার কারনে তারা আপনার ফেসবুক আইডিতে অ্যাকশন ব্লক করে দিতে পারে, কিংবা বেশি জটিল কিছু হলে আপনার ফেসবুক আইডি ডিসেবল করে দিতে পারে।


তাই ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠালে একটি লিমিটের মধ্যে পাঠান। তাহলে আপনি একশন ব্লকের ঝামেলা থেকে বাচতে পারবেন।

  • বিভিন্ন সাইটে বা অ্যাপস এ আপনার একাউন্টে লগইন করলেঃ

আমরা কোন অটো লাইক কমেন্ট কিংবা ফলোয়ার পাওয়ার জন্য অনেকগুলা সাইট কিংবা অ্যাপস ব্যবহার করে থাকি।


এর মধ্যে অনেকগুলো সাইট কিংবা অ্যাপস থাকে ট্রাস্ট আবার অনেকগুলো তাকে স্পাম।


যার কারনে ফেসবুক এগুলো পছন্দ করে না। আর আপনি যদি একটা কিংবা দুইটা ব্যবহার এপস কিংবা সাইট ব্যবহার করেন তাহলে আপনার আইডি কোন সমস্যা হবে নাহ।


আবার আপনি যদি অনেকগুলা সাইট কিংবা অ্যাপস আপনার অ্যাকাউন্টটি লগইন করেন, তাহলে তার আপনাকে একশন ব্লক দিয়ে দিতে পারে। 

  • একই কমেন্ট অনেক স্যাটাসে দিলেঃ

এটাও রীতিমত একটা খারাপ অভ্যাস। অনেক সময় দেখতে অনেকেই কমেন্ট বারবার করে থাকি। 


অর্থাৎ “Nice” “Wonderful” ইত্যাদি এরকম কিছু। কারণ এগুলা খুবই সময়সাপেক্ষ এবং করতেও দিন সময় লাগে।


তাই সবাই এরকম কমেন্ট গুলা সকল পোস্টে করে থাকে। যার কারণে অনেক সময় দেখা যায় তাদের কমেন্ট ব্লক হয়ে যায়।


তাই সব সময় চেষ্টা করবেন ভিন্ন ভিন্ন রকমের কমেন্ট পাবলিশ করার।এতে করে আপনার অ্যাকাউন্টের একশন ব্লকের ঝুঁকি কমে যাবে।

  • মেসেজ বক্সে অতিরিক্ত ছবি বা স্টিকার পাঠালেঃ



এটাও অ্যাকশন ব্লক হওয়ার  সম্ভাব্য একটি কারণ।অনেক সময় আমরা সবাই মেসেজ বক্সে অতিরিক্ত ছবি কিংবা স্টিকার সেন্ড করি। 


আর এগুলা মূলত ফেসবুকের অ্যালগোরিদমের বিপরীত। তারা বলেছে আপনি আপনার মেসেজ বক্সে অতিরিক্ত ছবি কিংবা স্টিকার পাঠাতে পারবেন না।


আপনি যদি এই নিয়মটা ভঙ্গ করেন তাহলে একশন ব্লকের ঝুঁকিটা নিতেই হবে।

  • অতিরিক্ত ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট একসেপ্টঃ 

সাধারণত দেখা যায় মেয়েরা ছেলেদের চেয়ে বেশি ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট পায়।🤣


অনেকে দেখা যায় তাই ইগনোর করে, আবার অনেকে খুশির ঠ্যালায় একসঙ্গে সবগুলো একসেপ্ট করে নেয়। হোক সেটা 200-400 তারা একদিনে তা একসেপ্ট করে নেন। 


আর ফেসবুক এটা কে রোবট টিক সিস্টেম মনে করে, এর ফলে আপনি অনেক ঝুঁকির মুখে পড়তে পারেন।


আপনার আইডিটিকে ফেসবুক একশন ব্লক থেকে শুরু করে ফেসবুক ডিজেবল করে দিতে পারে। 


তাই খুশির জন্য এই কাজগুলো করা থেকে বিরত থাকবে এতে লাভ আপনারই হবে।


উপরোক্ত সকল বিষয়গুলো আমার মনের কথা নয় 😒


এ বিষয়গুলো ফেসবুকে অ্যালগোরিদমে স্পষ্ট করে লেখা আছে।হয়তো আমার তুলে ধরার স্টাইলটা টা ভিন্ন হতে পারে। 

 আপনার আইডি একশন ব্লক হওয়ার অনেকগুলো কারণের মধ্যে এগুলা এমন কয়েকটি কারণ, যেগুলা সবচেয়ে বেশি আপনার ফেসবুক আইডিতে প্রভাব ফেলে।  


আপনার আইডি ব্লক হওয়ার পিছনে আপনি যদি এই বিষয়গুলো কে যথাযথ মূল্যায়ন করেন, তাহলে আমি গ্যারান্টি দিচ্ছি আপনার আইডি কখনো একশন ব্লক হবেনা। 


আর মনে রাখবেন অতিরিক্ত নীতিমালা ভঙ্গের ফলে আপনার আইডি ডিজেবল হয়ে যেতে পারে। 


তাই উপরে উল্লেখিত বিষয়গুলো মেনে চলুন এবং হ্যাপি ফেইসবুকিং😍


ধন্যবাদ সাথে থাকার জন্য।

Leave a Comment

four × five =