ফেসবুক ফিশিং লিংক আতঙ্ক থেকে মুক্তি পান|

ফিশিং লিংক নিয়ে আমাদের যত ভুল ধারণা!(জেনে নিন কাজে আসবে)



ফিশিং সাইট বা ফিশিং লিংক আসলে কি?



এই লিংক গুলা এমন একটি লিংক যার সাহায্যে যেকোনো ব্যবহারকারী কে ধোকা দিয়ে তাদের সমস্ত তথ্যগুলোকে হাতিয়ে নেওয়া হয়।



কিন্তু কিভাবে এগুলো সম্ভব হয়?



এই লিঙ্কগুলো যদি কেউ আপনাকে সেন্ড করেন এবং আপনি ওটাতে ক্লিক করার পর আ
পনার ফেসবুক আইডি হোক কিংবা যে কোন কিছু হোক ওইগুলা দিয়ে লগইন করেন। 


ঠিক তখনই আপনি যে যে জিনিস গুলো দিয়ে লগইন করেছেন যে জিনিস গুলো তার কাছে গিয়ে সেইভ হয়!


অনেক সময় দেখা যায় আমাদের ফ্রেন্ড কিংবা অন্য কেউ যদি আমাদেরকে একটি সাধারণ লিংক পাঠায় তাহলে আমরা ফিশিং লিংক বলে চালিয়ে দেই।



আমরা আর ওই লিংকে ক্লিক করি নাহ।লিঙ্কে
 গিয়ে ইনফরমেশন দেওয়া তো দূরের কথা।


একটা কথা আমি বুঝে উঠতে পারিনা যে কেন লোকেরা এ সমস্ত লিংকে ক্লিক করতে দ্বিধাবোধ করে?



আসলে আমরা এটা ভাবি যে লিংকে ক্লিক করলেই হয়ত আমাদের ফেসবুক আইডিটি হ্যাক হয়ে যাবে! 
কিংবা আমাদের সকল ডকুমেন্টগুলো হ্যাক হয়ে যাবে!


আসলে এটা ভুল ধারণা? এইগুলা লিংক, God না! এসমস্ত লিংকগুলা তখনই আপনার ডকুমেন্ট পাবে যখন আপনি ওই লিংকে ঢুকে কোনো ডকুমেন্ট সেভ করবেন।



কিংবা লিংকে ঢুকে কোনো ডকুমেন্ট দিয়ে আপনার কাঙ্খিত কাজটি করতে চাইবেন।



আপনি যদি লিঙ্ক দেখে গুটিসুটি হয়ে বসে থাকেন, কিংবা ও লিংকগুলোতে ক্লিক না করেন তাহলে আমি বলব এগুলা আসলেই বোকামি।


 শুনেন লিংকগুলোতে আপনি ঢুকবেন এবং নিজের ইচ্ছা মত যে কোন কিছু লিখে নিয়ে আসবেন।



হোক সেটা লিংক যে লিঙ্ক সেন্ড করেছে তাকে গালাগালি কিংবা অন্য কিছু!🙄



এখন প্রশ্ন হল কিভাবে বুঝবেন যে এই লিংক গুলা আসলেই কি সত্যি কারের লিংক নাকি ফিশিং লিংক?



আসলে এটা খুবই জটিল একটি প্রশ্ন?



আপনার উচিত হবে ওই লিঙ্কটাতে ক্লিক করে লিংকগুলো সত্যতা যাচাই করা! কিন্তু কিভাবে এই লিঙ্কগুলো সত্যতা যাচাই করবেন এটাই সবচেয়ে বড় প্রশ্ন!



একটা বিষয় লক্ষ্য করুন:



আপনি যদি ফেসবুকে লগইন করেন কোন অ্যাপস দিয়ে কিংবা কোন সাইট দিয়ে তখন আপনি যদি ভুল মেইল আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করেন।



তাহলে ফেইসবুক কিভাবে বুঝে যে আপনার এ ডকুমেন্ট গুলা আসলেই ভুল।



আপনাকে নিশ্চয়ই ভাবাচ্ছে এই বিষয়গুলো!



কারণ আপনি যখন একটি আইডি খুলেন তখনই ফেইসবুক আপনার সকল ডকুমেন্ট গুলো সেভ করে রাখে।



এবং যখনই আপনি লগইন করতে চান তখনই এগুলার দরকার পড়ে এবং ইনফোরমেশনগুলো 

 ভুল হলে ভুল পাসওয়ার্ড দেখাবে এটাই স্বাভাবিক।

কিন্তু আপনি যদি কোন ফিশিং সাইট এ আপনার ফেসবুক আইডি কিংবা অন্য কিছু দিয়ে লগইন করেন তখন প্রথমত আপনি ভুল ইনফরমেশন গুলো দিবেন।



অর্থাৎ আপনার যা ইচ্ছা তাই দিবে এরপর যদি দেখা যায় ওই গুলো দেওয়ার পর কোন ফরগেট পাসওয়ার্ড কিংবা ভুল পাসওয়ার্ড না দেখায় তাহলে বুঝবেন এগুলো আসলে ফিশিং লিংক।



কারণ এগুলোতে কোন সময় আপনার ডকুমেন্টগুলো সংরক্ষণ করে রাখা থাকে না! এগুলা ক্ষণিকের লিংক কিছুক্ষণের জন্য কাজ করে মাত্র!



আপনি যখন ফেসবুক ওয়েবসাইটে ঢুকবেন
তখন খেয়াল করবেন https সহ ফেসবুক
ওয়েবসাইট লিংক ঠিক মতো দেখাচ্ছে
কিনা। 


এভাবে সতর্কতা অবলম্বন করে ফিশিং লিঙ্ক থেকে সুরক্ষিত থাকতে পারবেন।


তাই এই লিংকগুলোতে ক্লিক করুন এভাবে উপরে উল্লেখিত উপায়ে এর সত্যতা যাচাই করুন! 


আমার একটাই কথা এই সকল লিংকে কখনো ভয় পাবেন না! বরং লিংক সেন্ড করা লোককে এর উজ্জ্বল জবাব দিবেন।

Leave a Comment

two × 3 =