Google Adsense কি? ( জানুন শূন্য থেকে শিখরে)

আপনি ওয়েবসাইট তৈরি করার পরে যখন সুন্দর সুন্দর আর্টিকেলগুলো লিখে ভালোভাবে সারিবদ্ধ করে সাজিয়ে রাখবেন এবং তারপরে এতে ভিজিটরের সমাগম ঘটে। 

তখন আপনার কাছে অবশ্যই একটা জিনিস আপনার ওয়েবসাইটে নেই বলে মনে হবে?

জিনিসটা আসলে কি? আপনি হয়তো সর্বপ্রথম ওয়েবসাইট তৈরি করার পরিকল্পনা করেছিলেন এটা ভেবে যে এই ওয়েবসাইট থেকে কিছু ডলার আয় করতে পারবেন? 

কিন্তু একি আপনার ওয়েবসাইট থেকে তো কোন টাকা আয় হচ্ছেই না আর যদি হয় তাহলে সেটা কিভাবে হচ্ছে?

আপনি হয়তো ততক্ষণে গুগল এডসেন্স এর নাম একবারও শুনেননি, আর যদি শুনে থাকেন গুগল এডসেন্স এর নাম তাহলে আপনি জানেন না আসলে Google Adsense কি? 

আপনি আপনার ওয়েবসাইটে এড দেখে আয় করার ক্ষেত্রে যে সমস্ত প্ল্যাটফর্ম গুলোকে সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দিবেন, সেগুলোর মধ্যে সবচেয়ে উপরের স্থানে সেই অ্যাডভার্টাইজমেন্ট প্ল্যাটফর্ম দখল করে নিবে সেটি হল গুগল এডসেন্স।

পোস্টের ভিতরে যা থাকছে

Google Adsense কি?

Google Adsense কি এই সম্পর্কে অনেকেই জানেন। গুগল এডসেন্স থেকে আয় করার একটি অবিশ্বাস্য প্ল্যাটফর্ম। 

যে প্ল্যাটফর্ম আপনার ওয়েবসাইটে পাবলিশ করা আর্টিকেলগুলো যথাযথ মর্যাদা দেয়। 

এবং যখন আপনি আপনার আইডিয়াগুলোকে গুলোকে ভালোভাবে ইউনিক করে সাজিয়ে তুলতে পারবেন তখনই আপনি তাদের কাছে আপনার ওয়েবসাইটটি সাবমিট করতে পারেন।

তারপরে সবকিছু ঠিক থাকলেই তারা আপনার ওয়েবসাইটে অ্যাপ্রভাল দিয়ে দিবে এবং আপনি এখান থেকে আয় করতে পারবেন।

গুগল অ্যাডসেন্স একটি ফ্রী প্ল্যাটফর্ম, যেখানে আপনার গ্রহণযোগ্যতা পেতে হলে কোন টাকা খরচ করতে হবে না তারা শুধুমাত্র আপনার ওয়েবসাইটে আর্টিকেলগুলো ইউনিক কিনা সেটা দেখে।

তারপরে যখন ওয়েবসাইটে আর্টিকেলগুলো ইউনিক হয়, এছাড়াও আরও নানা ধরনের সীমাবদ্ধ শর্তাবলির মধ্যে আপনার ওয়েবসাইটটি পড়ে তখনই আপনি এখান থেকে আয় করতে পারেন।

বাংলা ভাষায় গুগল এডসেন্স সাধারণত সোনার হরিণ বলে আখ্যা দেওয়া হয়, এটি সোনার হরিণ ও বটে।

Google Adsense এর আয় করার সমীকরণঃ

গুগল অ্যাডসেন্স থেকে আপনি কত ডলার আয় করতে পারবেন সেটা মূলত নির্ভর করে আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটর এর উপর। 

আপনার ভিজিটর এরা কোন দেশ থেকে ভ্রমণ করছে, এছাড়াও আপনার আর্টিকেল এর ভ্যালু কতটুকু সেগুলোর উপর।

আপনার ওয়েবসাইটে যদি প্রতিমাসের ভিজিটর প্রায় 1 মিলিয়ন হয় এবং প্রতিমাসে যদি আপনার অ্যাডসেন্সে প্রায় 2000 থেকে 3000 ক্লিক হয় তাহলে আপনি এডসেন্স থেকে খুব ভালো পরিমাণ আয় করতে পারবেন তা কিন্তু নয়।

এক্ষেত্রে গুগল এ্যাডসেন্সের কয়েকটি সীমাবদ্ধ নিয়ম রয়েছে আয় করার, সেগুলোর মধ্যে একটি হলো CPC।

CPC এর পূর্ণরূপ হল: Cost Per Click অর্থাৎ আপনার ওয়েবসাইটে দেখানো  একটি অ্যাডভার্টাইজমেন্ট যদি কোন ভিজিটর ক্লিক করে তাহলে আপনি প্রতি ক্লিকের জন্য কত ডলার করে পাবেন।

এটা কম-বেশি সাধারণত হয় আপনার ওয়েবসাইটের টার্গেটেড ভিজিটর এর উপর এবং আপনার ওয়েবসাইটের কনটেন্ট কতটা ভ্যারিয়েবল সেটার উপর।

এজন্য আপনাকে ভালোভাবে কী-ওয়ার্ড রিসার্চ করার পরে যে কিওয়ার্ডগুলোর সিপিসি রেট বেশি সেগুলো নিয়ে কাজ করতে হয়। 

এবং তারপরে আপনি যখন ওই কিওয়ার্ড নিয়ে গুগলের প্রথম পজিশনে রেংক করেন, তারপরে ওই আর্টিকেল দ্বারা যদি কোন ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে এবং আপনার ওয়েবসাইটে করা অ্যাডগুলোতে ক্লিক করে তখন আপনি ভালো পরিমাণে ডলার আয় করতে পারবেন।

এখানে একটি মজার ব্যাপার হল আপনি যদি ভাল কিওয়ার্ড রিসার্চ করে এই কীবোর্ড দ্বারা গুগলের প্রথম পজিশনে রেংক করেন তাহলে আপনি প্রতি ক্লিকের জন্য 100-200$ পর্যন্ত পেতে পারেন। 

তবে দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য আপনি যদি কোন ধরনের কিওয়ার্ড রিসার্চ করা ছাড়াই যেকোনো ধরনের কিওয়ার্ড দিয়ে আর্টিকেল লিখেন তাহলে আপনি দেখতে পাবেন প্রতি ক্লিকের জন্য আপনার জন্য বরাদ্দকৃত ডলার 0.01$-0.02$ এরকম হয়। 

আপনাকে এক ডলার আয় করতে হলে আপনার ওয়েবসাইটে দেখানো অ্যাডভার্টাইজমেন্ট 100 টিরও অধিক ক্লিক এর দরকার হয়।

যা মোটেও কাম্য নয়, তবে আপনি যদি বেশি সিপিসি যুক্ত কান্ট্রি যেমনঃ ইউনাইটেড স্টেটস, যুক্তরাজ্য, কানাডা সহ আরো বিভিন্ন উন্নত রাষ্ট্রে টার্গেটেড ভিজিটর নিয়ে আসতে পারেন তাহলে আপনি প্রতি ক্লিকের জন্য খুব বেশি পরিমাণ ডলার আয় করতে পারবেন।

কারণ একেক দেশের সিপিসি রেট একেক রকম হয়, বাংলাদেশের গুগল এডসেন্সের জন্য সিপিসি বরাদ্দকৃত পরিমাণ খুবই স্বল্প। 

অনেক সময় দেখা যায় আপনি সাত-আটটি ক্লিকের জন্য 0.00$ ডলার বরাদ্দ পান, যা আমাদের কাজ করার ক্ষমতাকে কমিয়ে দেয়। 

তবে এক্ষেত্রে মোটেও হতাশ হওয়ার কিছু নেই আপনাকে মনোযোগ সহকারে কাজ করে যেতে হবে, এবং তারপরে ভাল সিপিসি যুক্ত কিওয়ার্ড নিয়ে আপনার ওয়েবসাইটে আর্টিকেল লিখতে হবে তাহলে আপনি খুব বেশি পরিমাণ আয় করতে পারবেন।

আর মূলত এটাই হলো Google Adsense কি এর সঠিক সমীকরণ, আশা করি আপনার উপকারে এসেছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

7 − 1 =

Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap