ইউটিউব ভিডিও তৈরি করুন মিনিটেই

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা সবেমাত্র নতুন ইউটিউব চ্যানেল খুলতে চান অথবা এরকম অনেকেই আছেন ইউটিউব চ্যানেল খোলার পরে কিভাবে ইউটিউব ভিডিও তৈরি করে সেই সম্পর্কে মোটামুটি ধারণা নেই।

ইউটিউব ভিডিও তৈরি করার ক্ষেত্রে যে সমস্ত জিনিসের প্রয়োজন সে সম্পর্কে বেশামাল।

এছাড়াও অনেকে এটা দেখে উদ্ভূত হয়েছেন যে অনেক বড় বড় ইউটিউব চ্যানেল খুব সুন্দর ভিডিও তৈরি করে?

আর আপনার মনের মধ্যে  এই চিন্তাচেতনা আসে ইশ  যদি এরকম ভিডিও আমিও তৈরি করতে পারতাম,  বা তারা কিভাবে তৈরি করে কিভাবে ভিডিও তৈরি করার আইডিয়া খুঁজে বের করে সেভাবে যদি আমিও পারতাম।

এসমস্ত সকল প্রশ্নের জবাব আপনি এই পোষ্টের মাধ্যমে পেয়ে যাবেন।

ইউটিউব ভিডিও তৈরি

আপনি যদি একটি মানসম্মত ইউটিউব ভিডিও তৈরি করতে চান, তাহলে আপনাকে যে সমস্ত জিনিস গুলো মাথায় রাখতে হবে সেগুলো হলো।

  • মানসম্মত ভিডিও
  • ট্রেন্ডিং টপিক
  • যা সবাই ইউটিউবে সার্চ করে

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন উপরের উল্লেখিত বিষয়গুলো ফলো না করে একটি ভিডিও তৈরি করেন বা যেকোনো ধরনের একটি টপিক এর উপর ভিডিও তৈরি করে নেন, যা মোটেও কাম্য নয়।

আপনি যদি একটি ভিডিও তৈরি করেন এবং এই ভিডিও এর মাধ্যমে যদি অর্গানিক ট্রাফিক অর্থাৎ সার্চ ট্রাফিক না আসে তাহলে আপনার চ্যানেল টি কিভাবে গ্রো আপ করবেন?

এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই এরকম একটি ট্রেন্ডিং টপিক নির্বাচন করতে হবে যার দ্বারা আপনি বুঝতে পারবেন যে ইউটিউবে আসলে কি ধরনের কিইওয়ার্ড সার্চ হয়।

এবং এই সম্পর্কিত কী-ওয়ার্ড নিয়ে আপনি খুব সহজে একটি ভিডিও তৈরি করতে পারবেন, এবং এই কিইওয়ার্ড দ্বারা আপনার চ্যানেলের ভিডিও রেঙ্ক করলেই আপনি আপনার চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার বাড়াতে পারবেন।

ইউটিউব ভিডিও তৈরি করার আগে আইডিয়া

ইউটিউব ভিডিও তৈরি করার আগে অনেকেই ভালো আইডিয়া খুঁজে পান না যে কি সম্পর্কিত একটি ইউটিউব ভিডিও তৈরি করা যায়।

আর আপনি যদি তাদের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত হন কিভাবে একটি ইউটিউব ভিডিও তৈরি করবেন? তার আইডি খুজে না পায়, তাহলে আপনি চাইলে বিভিন্ন ধরনের কিওয়ার্ড রিসার্চ টুলস এর সহযোগিতা নিতে পারেন।

এক্ষেত্রে আপনি যখন ফ্রী কীওয়ার্ড রিসার্চ টুলস সহযোগিতা নিবেন তখন আপনি চাইলে ওই সমস্ত কিওয়ার্ড রিসার্চ টুলস এর সাহায্যে ইউটিউবে একটি কী-ওয়ার্ড কতবার সার্চ হয় তারা সঠিক তথ্য পেয়ে যেতে পারবেন।

এবং এটি দিয়ে আপনি যদি আপনার ইউটিউব চ্যানেলের রেঙ্ক করতে চান, তাহলে আপনাকে কতটুকু খাটনি করতে হবে তার একটি সীমাবদ্ধতা পেয়ে যাবেন।

আর এই সমস্ত ফ্রী কীওয়ার্ড রিসার্চ টুলস এর মধ্যে সবচেয়ে অন্যতম যপ টুলস রয়েছে তার লিংক নিচে দেয়া হল।

KeywordTool.io

উপরে দেয়া ওয়েবসাইটের লিংকে যখন আপনি প্রবেশ করবেন তখন আপনি চাইলে আপনার দেশের লোকেশন এবং ভাষা সিলেক্ট করার মাধ্যমে কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে পারবেন।


ইউটিউব ভিডিও তৈরি | ইউটিউব ভিডিও তৈরি করার সাতকাহন |আর এভাবেই আপনি খুব সহজেই ইউটিউব

ভিডিও তৈরি করার জন্য লাভজনক আইডিয়া খুঁজে পাবেন, তাও আবার একদম ফ্রিতেই। কত মজা তাইনা!

ইউটিউব ভিডিও তৈরি করার ক্লিপ

আমরা অনেক সময় নানা ধরনের ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওতে নানা ধরনের ক্লিপ সংযোগ করতে দেখি।

যে ক্লিপগুলো সাধারণত ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওর মান সম্মত অর্থাৎ গুনাগুন বাড়িয়ে তুলে।

এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের ভিডিও ক্লিপ দেখে থাকি যেগুলো আমাদের ভিডিওতে যুক্ত করার ইচ্ছা আমাদের প্রায় জাগে।

আমাদের মনে এটা হয় যে তারা কিভাবে ভিডিও ক্লিপগুলো তাদের ভিডিওতে সংযুক্ত করে, বা আমরা কেন পারি না এইসমস্ত ক্লিপ সম্পৃক্ত করতে?

আর আপনিও যদি ইউটিউব ভিডিও তৈরি করার ক্ষেত্রে এ সমস্ত ক্লিপগুলো কে আপনার  ইউটিউব ভিডিও তে সংযুক্ত করতে চান,  তাহলে আপনাকে কয়েকটি ওয়েবসাইটের সহযোগিতা নিতে হবে।

যেগুলো থেকে আপনি চাইলে হাজার হাজার কিংবা লক্ষাধিক ফ্রি ভিডিও ক্লিপ পেতে পারেন।

তবে এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই যে সমস্ত ক্লিপগুলো কে ফ্রিতে তারা আপনাকে দিবে, সেই সমস্ত ক্লিপগুলো ডাউনলোড করে আপনার ভিডিওতে সংযুক্ত করতে হবে।

অন্যথায় আপনি যদি পেইড ক্লিপগুলো কোন রকমের লাইসেন্স ছাড়া ক্রাক করে ফ্রিতে আপনার ভিডিওতে সংযুক্ত করে নেন, তাহলে আপনার ভিডিও কপিরাইট এর আওতাধীন হতে পারে।

এই সমস্ত কয়েকটি ফ্রি ভিডিও ক্লিপ সংগ্রহ করার জন্য কয়েকটি ওয়েবসাইটের লিঙ্ক আমি নিচে দিয়ে দিচ্ছি।

আর উপরে উল্লেখিত ওয়েবসাইটগুলোর সহযোগিতায় আপনি খুব সহজেই যেকোনো ধরনের ভিডিও ক্লিপ সংগ্রহ করে আপনার ভিডিওতে সংযুক্ত করা মাধ্যমে এর কোয়ালিটি আরো বেশি বাড়িয়ে তুলতে পারবেন।

তবে ভিডিও ক্লিপগুলো সংগ্রহ করার আগে আপনাকে অবশ্যই কপিরাইট মেইনটেন্স করতে হবে।

এখানে দেওয়া ভিডিও গুলোর মধ্যে ফ্রি ভিডিও যেগুলো রয়েছে,  সে গুলোকে আপনার ভিডিওতে সংযুক্ত করতে হবে।

ইউটিউব ভিডিওতে যে সমস্ত ভুল করা কখনই যাবে না

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন ইউটিউব ভিডিও তৈরি করার সময় নানামুখী ভুল করে থাকেন। যেগুলোর কারণে তাদের চ্যানেল বড় পরিসরে বৃদ্ধি হয় না।

এবং এই ইউটিউব চ্যানেল দ্বারা এডসেন্স এর মনিটাইজেশন পাওয়ার পরেও এখান থেকে খুব বেশি পরিমাণে আয় করা সম্ভব হয়না।

আর তারা ইউটিউব ভিডিও তৈরি করার সময় যে ভুলগুলো করে থাকে সেগুলোর মধ্যে অন্যতম কয়েকটি হলোঃ

  • অন্যের আইডিয়া কন্টেন্ট কপি করা
  • ভিডিওর কোয়ালিটি যাচাই না করা
  • যেকোনো টপিকের উপর ভিডিও তৈরি
  • ভিডিও তৈরিতে ভুয়া ইনফর্মেশন ব্যবহার করা
  • যে সমস্ত ভিডিও শেষ করার সময় প্রুফ দেয়া দরকার সেগুলো স্কিপ করে এড়িয়ে চলা

আর আপনার ইউটিউব চ্যানেল যদি উপরোক্ত বিষয়গুলোর সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হয়, তাহলে আপনার ইউটিউব চ্যানেল থেকে আপনি খুব বেশি পরিমাণে সফলতা অর্জন করতে পারবেন না।

এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই যে বিষয়গুলোকে সবচেয়ে বেশি নজর দিতে হবে, সেগুলো হলো উপরুক্ত বিষয়গুলোকে এড়িয়ে চলে সব সময় মানসম্মত ভিডিও তৈরি করা যাতে করে আপনাদের স্বতঃস্ফূর্ত অনুভব করে।

আর, ইউটিউব ভিডিও তৈরি করার জন্য যে সমস্ত বিষয়গুলো আপনাকে অবশ্যই মাথায় রাখতে হয় সেগুলো আমি উপরে বর্ণনা করেছি।

আশা করি, এই আর্টিকেলটি আপনর উপকারে আসবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top
Share via
Copy link