মোবাইল নাম্বার দিয়ে পরিচয় বের করা (৩টি উপায়)

আপনার কোন এক নিত্যদিনের প্রয়োজনে হয়তো মোবাইল নাম্বার দিয়ে পরিচয় বের করা প্রয়োজন হতে পারে।

এক্ষেত্রে, আপনার কাছে যদি একটি মোবাইল নাম্বার থেকে থাকে, তাহলে এই মোবাইল নাম্বার টি ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনি চাইলে পরিচয় বের করার কাজটি করে নিতে পারেন।

মোবাইল নাম্বার দিয়ে পরিচয় বের করা এর ক্ষেত্রে আপনি কী কী পদক্ষেপ অনুসরণ করবেন? এবং কি কি উপায়ে আপনি চাইলে এটি সম্ভব করে তুলতে পারবেন? সেই সম্পর্কে এই আর্টিকেলে আলোচনা করা হবে।

মোবাইল নাম্বার দিয়ে পরিচয় বের করা কি সম্ভব?

আপনি যদি সঠিক পদক্ষেপ অনুসরণ করতে পারেন, তাহলে মোবাইল নাম্বার ব্যাবহার করার মাধ্যমে সহজেই যে কারো পরিচয় খুঁজে বের করতে পারেন।

এবং আপনি চাইলে এই কাজটি ভিন্ন তিনটি উপায়ে সম্পন্ন করতে পারবেন। এই উপায়গুলোর মধ্য থেকে দুটি আপনি নিজে করতে পারবেন এবং অন্যটি অন্যের সহায়তায়।

এবং এই তিনটি উপায় গুলো হলঃ

  • ট্রু কলার অ্যাপস এর মাধ্যমে।
  • সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে।
  • পুলিশি কিংবা আইনী সহায়তার মাধ্যমে।

উপরে উল্লেখিত তিনটি উপায় এর মধ্য থেকে যে কোন একটি উপায়ে আপনি চাইলে মোবাইল নাম্বার ব্যবহার করা মাধ্যমে পরিচয় খুঁজে বের করতে পারবেন।

এবার তাহলে জেনে নেয়া যাক এই তিনটি উপায়ে কিভাবে খুব সহজেই কাজটি সম্পন্ন করতে পারবেন।

ট্রু কলার অ্যাপস এর মাধ্যমে পরিচয় বের করা

ইন্টারনেটের জগতে এরকম অনেক সফটওয়্যার রয়েছে, যেসমস্ত সফটওয়ারের মাধ্যমে আপনি চাইলে যে কারো পরিচয় খুঁজে বের করতে পারবেন।

এ সমস্ত সফটওয়্যার গুলোর মধ্যে থেকে সবচেয়ে কার্যকরী একটি সফটওয়্যার হলো ট্রু কলার অ্যাপস। এই অ্যাপসটি ব্যবহার করার মাধ্যমে যে কেউ চাইলে যে কারো পরিচয় খুঁজে বের করতে পারে।

যেহেতু এই অ্যাপসটি একদম ফ্রি এপ সেজন্য কোন রকম টাকা পয়সা খরচ করতে হয়না। আপনি চাইলে ফ্রিতে কাজটি সম্পন্ন করতে পারেন।

এই অ্যাপসটির মাধ্যমে আপনি যদি আপনার কার্যক্রম সম্পন্ন করে নিতে চান, তা হলে প্রথমত নিম্নলিখিত লিংক থেকে সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিন।

Download
Download for IOS

উপরে উল্লেখিত লিংক থেকে আপনার নির্দিষ্ট ডিভাইসের জন্য অর্থাৎ আইফোন কিংবা অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের জন্য সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

যখনই সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করার কাজ সম্পন্ন করে নিবেন, তখন আপনি এই সফটওয়্যারটির মধ্যে প্রবেশ করেন এবং তারপর এই সফটওয়্যারটি যে সমস্ত এক্সেস আপনার কাছ থেকে চায়, সেগুলো দিয়ে দিন।

সফটওয়্যার যে সমস্ত এক্সেস আপনার কাছ থেকে নিতে চায়, সে সমস্ত এক্সেস গুলো দেওয়ার পরে, আপনি এই সফটওয়্যারটি ব্যবহারের পুরোপুরি প্রস্তুত যাবেন।

যখনই আপনি সফটওয়্যারটিকে পুরোপুরি এক্সেস দিয়ে দিবেন, তখন আপনি চাইলে এই সফটওয়্যারটির মধ্যে প্রবেশ করতে পারেন এবং আপনার যে সমস্ত ফোন নম্বর রয়েছে, সে সমস্ত ফোন নাম্বার এর লিস্ট গুলো দেখতে পারেন।

তবে ফোন নাম্বার এর লিস্ট দেখে নেয়ার জন্য আপনাকে প্রথমত আপনার মোবাইল নাম্বারটি এখানে ভেরিফিকেশন করে নিতে হবে।

এক্ষেত্রে আপনার যে লোকেশন রয়েছে, সেই লোকেশন এবং ফোন নাম্বারটি বসিয়ে দিলেই আপনাকে কল করার মাধ্যমে একাউন্টি ভেরিফাই করে নেবে।

মোবাইল নাম্বার দিয়ে পরিচয় বের করা (৩টি উপায়)

এবার আপনার সন্দেহতীত যে সমস্ত ফোন নাম্বার রয়েছে, সে সমস্ত ফোন নাম্বার গুলো এই অ্যাপটির মাধ্যমে ওপেন করুন।

তাহলে নাম্বারগুলো রিলেটেড যে সমস্ত ইনফরমেশন রয়েছে, সেগুলো দেখতে পারবেন।

মোবাইল নাম্বার দিয়ে পরিচয় বের করা (৩টি উপায়)

উপরে উল্লেখিত সফটওয়্যারটি মাধ্যমে খুব সহজেই ফোন নাম্বার দিয়ে পরিচয় বের করা যায়।

এই সফটওয়্যার এর বিকল্প কিছু সফটওয়্যার

এছাড়া উপরে যে সফটওয়্যার এর কথা মেনশন করা হয়েছে, সেই সফটওয়্যার এর বিকল্প হিসেবে আরো যে সমস্ত সফটওয়্যার আপনি চাইলে ব্যবহার করতে পারেন, এগুলো নিচে তুলে ধরা হল।

উপরে যে সমস্ত সফটওয়্যার এর কথা মেনশন করা হয়েছে, সে সমস্ত সফটওয়্যার আপনার এই কাজটি আরো বেশি সহজ করে তুলবে।

সোসিয়াল গণমাধ্যমের মাধ্যমে পরিচয় বের করা

মোবাইল নাম্বার দিয়ে পরিচয় বের করার একটি অন্যতম পদ্ধতি হলো সোসিয়াল গণমাধ্যম।

অর্থাৎ আপনার কাছে যে ফোন নাম্বারটি রয়েছে, সেই ফোন নম্বার আসলে কার? এবং এই ফোন নাম্বারটি আসলে কোন ব্যক্তি ব্যবহার করছে? তার সম্পূর্ণ পরিচয় বের করার অন্যতম একটি মাধ্যম হলো সোসিয়াল গণমাধ্যম।

এক্ষেত্রে আপনি চাইলে জনপ্রিয় সোশ্যাল গণমাধ্যমগুলো ব্যবহার করতে পারেন, যার মত থেকে উল্লেখযোগ্য হলোঃ

  • ফেইসবুক।
  • হোয়াটসঅ্যাপ।
  • ইমো।
  • ভাইবার।
  • টুইটার, প্রমুখ।

এসমস্ত সোসিয়াল কোন মাধ্যম ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনার ব্যবহৃত ফোন নাম্বার দিয়ে লোকেশন বা পরিচয় খুঁজে বের করে নিতে পারেন।

এক্ষেত্রে, যে সমস্ত সোসিয়াল গণমাধ্যমে সরাসরি ফোন নাম্বার দেয়ার মাধ্যমে অ্যাকাউন্ট তৈরি করা যায়, সে সমস্ত গণমাধ্যমগুলো সবচেয়ে বেশি কার্যকরী।

এর লিস্টে রয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ, ইমু এবং ভাইবার

যেহেতু এসমস্ত গণমাধ্যমে আপনার ফোন নম্বার দেয়ার মাধ্যমে আপনি অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারেন এবং আপনার কন্টাক্ট লিস্টে যে সমস্ত নাম্বার রয়েছে সেগুলো রিলেটেড একাউন্ট খুঁজে বের করতে পারেন, সেজন্য এই মাধ্যমটি সবচেয়ে কার্যকরী।

কারণ, আপনি যখন আপনার ব্যবহৃত ফোন নাম্বার দিয়ে একটি হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট খোলেন, তখন আপনার মোবাইল ফোনের সমস্ত কন্টাক্ট লিস্ট রয়েছে, সে সমস্ত কন্টাক্ট লিস্ট রিলেটেড একাউন্ট পেয়ে যান।

মোবাইল নাম্বার দিয়ে পরিচয় বের করা (৩টি উপায়)

অর্থাৎ আপনার পরিচিত প্রয়োজনের সমস্ত অ্যাকাউন্ট অ্যাক্সেস আপনি নিতে পারেন এবং তাদের সাথে কমিউনিকেশন করতে পারেন কিংবা তাদের একাউন্টের নাম জেনে তাদের সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পারেন।

এছাড়াও ফেইক আইডি তৈরি করার মাধ্যমে আপনি আপনার কাজটি সম্পন্ন করে নিতে পারেন।

এই কাজটি করার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি কাজে দেয় মেয়েদের আইডি। কিভাবে এই বিষয়টি কাজে দেয় সেটা আমার চেয়ে আপনি হয়তো ভালো জানবেন।

তবে আপনার জানার কাজটি আরও বেশি শক্তিশালী হবে যখন আপনার অপনেন্ট ব্যক্তিটি ছেলে হবে। কারণ একজন ছেলে হিসেবে, মেয়েদের কদর আমি নিজেই বুঝতে পারি।

সে যাই হোক, আপনি যদি কমিউনিকেশন করতে চান তাহলে ফেক অ্যাকাউন্ট তৈরি করার মাধ্যমে কমিউনিকেশন করতে পারেন। এতে করে ব্যক্তিকে খুঁজে বের করার কাজ সহজ হয়ে যাবে।

তবে আপনি যদি শুধুমাত্র ঐ ব্যক্তির পরিচয় খুঁজে বের করতে চান তাহলে, যেকোনো অ্যাকাউন্ট থেকেই ওই ব্যক্তির নাম এবং পরিচয় খুঁজে বের করা সম্ভব ।

এছাড়াও এই কাজটি আরও বেশি সহজে এবং পরিচয় গুলো আরো বেশি করে পাওয়ার জন্য আপনি চাইলে ফেসবুক ব্যবহার করতে পারেন।

কারন, ফেসবুকে যে সমস্ত ব্যক্তিবর্গ অ্যাকাউন্ট খুলেছে সমস্ত ব্যক্তিবর্গ তাদের নাম এবং আরো যে সমস্ত লোকেশন রয়েছে সমস্ত কিছু দিয়ে দেয়।

এতে করে আপনাকে খুব বেশি ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হয় না। আপনি চাইলে নাম্বার দিয়ে সার্চ করার মাধ্যমে অ্যাকাউন্ট খুঁজে বের করে সহজেই ওই ব্যক্তিকে ঘায়েল করতে পারবেন।

সে যাই হোক, সোসিয়াল গণমাধ্যমগুলোর মধ্য থেকে যে কোন একটি সোসিয়াল গণমাধ্যমে বার করার মাধ্যমে আপনার কাজটি সহজে সম্পন্ন করে নিতে পারবেন।

তবে আপনি যদি কোন সোশ্যাল গণমাধ্যমে এই নাম্বার টি ব্যবহার করার মাধ্যমে কোনো ব্যক্তিবর্গ কে খুজে না পান, তাহলে আপনার কপাল খারাপ। এবং আপনার অপনেন্ট ব্যক্তি আসলেই চালাক।

সোশ্যাল গণমাধ্যম ব্যবহার করার মাধ্যমে ফোন নাম্বার দিয়ে পরিচয় বের করার কাজে সফলতা রয়েছে প্রায় ৯০ শতাংশের উপরে।

এখন আপনি যদি পরাজিত ১০ শতাংশের মধ্যে পড়ে যান, তাহলে আসলেই আপনার কপাল খারাপ।

তবে আশা করা যায় আপনার কপাল এতটাও খারাপ হওয়ার কথা নয়। আপনি চেষ্টা করে দেখতে পারেন, কাজে আসলেও আসতে পারে।

আইনি সহায়তায় ফোন নাম্বার দিয়ে পরিচয় বের করা

উপরে যে দুইটি উপায়ের কথা মেনশন করা হয়েছে, সেই দুইটি উপায়ের মধ্যে থেকে সবচেয়ে কার্যকরী এবং শতভাগ কার্যকরী উপায় হল আইনি সহায়তায় পরিচয় বের করা।

এটা যেহেতু শতভাগ কার্যকরী, সেজন্য আপনাকে এই উপায়ে পরিচয় বের করে নিতে হলে সেইরকম পরিশ্রম এবং ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হবে।

তবে আপনার কাজটি যদি খুব বেশি গুরুতর হয়ে থাকে, তাহলে আপনি আইনে সহায়তায় তেমন একটি ভোগান্তির মধ্যে পড়বেন না।

অনাকাঙ্ক্ষিত হলেও সত্য যে, এ সমস্ত কাজ যেসমস্ত ব্যক্তিবর্গ করতে চান, তারা অনেকেই রং নাম্বারে কল আসা কিংবা গার্লফ্রেন্ড-বয়ফ্রেন্ড প্রথার ক্ষেত্রে এই কাজটি করতে চান।

আপনি যদি তাদের মধ্যে একজন হয়ে থাকেন তাহলে পুলিশি সহায়তা পাওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। এক্কেবারে নাই বললেও চলে।

তবে আপনি যদি আপনার কোনো গুরুত্বপূর্ণ কাজ সম্পন্ন করার জন্য যেমন চোর ধরতে চান কিংবা অন্য যে কোন রকমের গুরুত্বপূর্ণ কাজ, তাহলে আপনি চাইলে পুলিশের সহায়তা নিতে পারেন।

কাজটি সহজে করার কারণ হলো, তাদের কাছে সমস্ত ইনফরমেশন থাকে এবং তাদের যে ডাটাবেজ রয়েছে সেটি ভীষণ বড়।

যার কারনে তারা আপনার চোখকে ফাঁকি দিয়ে আপনার পরিচয় খুঁজে বের করতে পারে। বলাবাহুল্য, তারা চাইলে শুধুমাত্র পরিচয় নয়, আপনার লোকেশন অবধী খুঁজে বের করে নিতে সক্ষম।

শেষকথাঃ আপনি যদি খুবই কঠিন কোনো সিচুয়েশন এর মধ্যে পারেন, যেমন আপনার কোন একটি ইনফর্মেশন চুরি হয়ে গেছে এবং আপনি চোর ধরতে চান তাহলে লোকেশন খুজে বের করার জন্য পুলিশি সহায়তা নিতে পারেন।

এক্ষেত্রে পুলিশ হয়তো আপনাকে ওই ব্যক্তির লোকেশন সম্পর্কে অবগত নাও করতে পারে, তবে আপনার কাজটি হয়ে যাবে।

কিন্তু আপনি যদি রং নাম্বার থেকে কল আসা মেয়েটির লোকেশন চিনে নিতে চান কিংবা গালফ্রেন্ড/বয়ফ্রেন্ড প্রথার জন্য নাম্বার দিয়ে লোকেশন বের করে নিতে চান, তাহলে প্রথম দুইটি উপায়ে চেষ্টা করে দেখতে পারেন।

প্রথমে যে দুইটি উপায় মেনশন করা হয়েছে সেই দুইটি উপায় যে শতভাগ কার্যকরী সেই রিলেটেড গ্যারান্টি দেয়া কারো পক্ষে সম্ভব নয়। তবে আপনি চেষ্টা করে দেখতে পারেন।

আশা করি, মোবাইল নাম্বার দিয়ে পরিচয় বের করার গাইড ছিল, সেই গাইডলাইন সম্পর্কে জেনে নিতে পেরেছেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

close
Scroll to Top
Share via
Copy link