আলিবাবা থেকে পণ্য ক্রয় করার নিয়ম

আলিবাবা নিঃসন্দেহে একটি জনপ্রিয় ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম এবং আপনি যদি আলিবাবা থেকে কোন পণ্য ক্রয় করতে চান, তাহলে আলিবাবা থেকে পণ্য ক্রয় করার নিয়ম সম্পর্কে জেনে নিতে হবে।

আপনি যদি ইউরোপের কোন দেশে থেকে থাকেন, তাহলে সেখান থেকে আলিবাবার পণ্য ক্রয় করা সেরকম কোনো কষ্টসাধ্য বিষয় নয়।

তবে বাংলাদেশ থেকে আপনি যদি আলিবাবা প্ল্যাটফর্মের কোন প্রোডাক্ট ক্রয় করতে চান, তাহলে আপনাকে বিভিন্ন রকমের নিয়মকানুন মেনে প্রোডাক্ট ক্রয় করতে হবে।

অর্থাৎ প্রোডাক্ট ক্রয় করার পূর্বে আপনাকে এখান থেকে প্রোডাক্ট ক্রয় করার সম্পর্কে জেনে নিতে হবে এবং কিভাবে সেটি আপনার কাছে নিয়ে আসতে পারবেন, সেই সম্পর্কে জেনে নেয়ার প্রয়োজন রয়েছে।

আলিবাবা থেকে পণ্য ক্রয় করার নিয়ম

আর্টিকেল এর শুরুতেই আমি বলেছি যে এখান থেকে আপনি যদি পণ্য ক্রয় করতে চান, তাহলে আপনাকে অবশ্যই কিছু নিয়মকানুন মেনে পণ্য ক্রয় করতে হবে।

তাহলে আর দেরি না করে এখনি এই রিলেটেড বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।

এখান থেকে যেকোন রকমের প্রোডাক্ট কয় করার জন্য প্রাথমিক ধাপ হিসেবে আপনাকে অবশ্যই এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে এবং একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে।

অ্যাকাউন্ট তৈরি করার জন্য আপনাকে প্রথমত নিম্নলিখিত লিংকে ভিজিট করতে হবে এবং তারপরে প্রয়োজনীয় ইনফর্মেশন দেয়ার মাধ্যমে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে।

Create Account

উপরে উল্লেখিত লিংকে যখন আপনি ক্লিক করবেন, তখন নিম্নলিখিত স্ক্রীনশটএর মত একটি পেইজ দেখতে পারবেন।

এই পেইজটিতে আপনার ইনফরমেশন দিয়ে অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিন।

আলিবাবা থেকে পণ্য ক্রয় করার নিয়ম

একাউন্ট তৈরি করার ক্ষেত্রে, আপনি কি রকম কার্য সম্পাদনের জন্য অ্যাকাউন্ট তৈরি করেছেন অর্থাৎ আপনি কি সেলার নাকি বায়ার? এই বিষয়টি সিলেক্ট করে নিবেন।

অ্যাকাউন্ট তৈরি করার ক্ষেত্রে অবশ্যই একটি বিষয়ে লক্ষ্য রাখবেন, আর সেটি হল, অ্যাকাউন্ট তৈরি করার ক্ষেত্রে অবশ্যই সঠিক ইনফরমেশন দিয়ে একাউন্ট তৈরি করবেন।

অর্থাৎ একাউন্টে যে নাম এবং এই রিলেটেড আরো যে সমস্ত ইনফরমেশন দেবেন, সে সমস্ত ইনফরমেশন গুলো যথাযথভাবে পূরণ করে দিবেন।

এতে কোনো রকমের ভুয়া ইনফরমেশন দিয়ে একাউন্ট তৈরি করা থেকে বিরত থাকবেন। অন্যথায়, আপনার একাউন্ট সাসপেন্ড হয়ে যেতে পারে।

অ্যাকাউন্ট তৈরি করার কাজ সম্পন্ন হয়ে যাওয়ার পরে আপনাকে আপনার অ্যাকাউন্টের ইমেইল এড্রেস ভেরিফাই করে নিতে হবে এবং অ্যাকাউন্ট রিলেটেড আরো যে সমস্ত বিষয়াদি রয়েছে সমস্ত কিছু ভেরিফাই করে নিতে হবে।

যখনই আপনার অ্যাকাউন্ট তৈরি করার কাজ সফলভাবে সম্পন্ন হয়ে যাবে, তখন পণ্য ক্রয় করার দিকে মনোনিবেশ করতে হবে।

প্রয়োজনীয় পণ্য খুঁজে বের করা

অ্যাকাউন্ট তৈরি করার কাজ সম্পন্ন হয়ে যাওয়ার পরে, এবার আপনাকে এই প্লাটফর্মে সার্চ করে আপনার পছন্দের পণ্য খুঁজে বের করতে হবে।

এই প্ল্যাটফর্মের একেবারে উপরের দিকে একটি বিশাল আকারের সার্চ বার হয়েছে, সেই সার্চ করে আপনি আপনার পছন্দের যে কোন পণ্য খুঁজে বের করে নিতে পারেন।

আলিবাবা থেকে পণ্য ক্রয় করার নিয়ম

সার্চ করে যখনই আপনার প্রয়োজনীয় পণ্য খুঁজে বের করে নিতে পারবেন, এবার এই পণ্যটি ক্রয় করার দিকে মনোনিবেশ করতে হবে।

আপনি চাইলে পণ্যটি বিভিন্নভাবে ক্রয় করতে পারেন। তবে সবচেয়ে কার্যকরী হবে আপনি শুধু এটা ক্রয় করতে চান, তাহলে নিম্নলিখিত ইনফর্মেশন গুলোর দিকে লক্ষ্য করুন।

ক্রয় করা

প্রয়োজনীয় পণ্য খুঁজে বের করা হয়ে গেলে এবার প্রোডাক্ট ক্রয় করার দিকে মনোনিবেশ করতে হবে।

অর্থাৎ আপনাকে এরকম সেলার খুঁজে বের করতে হবে , যে সমস্ত সেলার খুবই বিশ্বস্ততার সাথে অনেকদিন ধরে কাজ করে আসছে এবং তাদের কাছ থেকে পণ্য পাওয়ার প্রবাবিলিটি শতভাগ।

প্রডাক্ট খুঁজে বের করা হয়ে গেলে, এবার আপনাকে সেলার নির্বাচন করতে হবে।

সেলার নির্বাচন করার ক্ষেত্রে দুইটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে।

যেকোনো প্রোডাক্টের পাশে অনেকগুলো সেলার এর এড্রেস দেখতে পারবেন।

সেখান থেকে আপনাকে নিম্নলিখিত দুইটি ইনফর্মেশন সহিত যে সেলার রয়েছে, তাকে সিলেক্ট করে নিতে হবে।

আর এই দুইটি ইনফর্মেশন হলোঃ

গোল্ড সেলার এবং ট্রেড অ্যাসিয়ুরেন্স সেলার।

যে কোন সেলারের পাশে আপনি যদি গোল্ড সেলার এবং ট্রেড অ্যাসিয়ুরেন্স হিসেবে করা দেখে থাকেন, তাহলে ওই ব্যক্তির কাছ থেকে পণ্য ক্রয় করার চেষ্টা করবেন।

বিষয়টি ভালোভাবে অনুধাবন করার জন্য নিম্নলিখিত স্ক্রিনশটটি দিকে লক্ষ্য করতে পারেন।

আলিবাবা থেকে পণ্য ক্রয় করার নিয়ম

উল্লেখিত স্ক্রিনশটটি দিকে লক্ষ্য করলে আপনি বিস্তারিত তথ্য বুঝে যেতে পারবেন।

যখনই আপনি একজন সেলার নির্বাচন করে নেবেন, তখন আপনার কাজ হবে ওই সেলারের সাথে যোগাযোগ করা।

যোগাযোগ করার সমস্ত উপায় ঐ সেলারের এর উপরে ক্লিক করার পরে আপনি পেয়ে যাবেন।

এ সম্পর্কে আরও বেশি ক্লিয়ার হওয়ার জন্য নিম্নলিখিত স্ক্রিনশটটি দেখতে পারেন এবং যে লোকেশনে যোগাযোগ করা অপশন রয়েছে, সে সম্পর্কে অবগত হতে পারেন।

যখনই আপনি তাদের সাথে কানেক্টেড হয়ে যাবেন, তখন আপনি চাইলে এই রিলেটেড ইনফরমেশনগুলো তাদেরকে জানিয়ে দিতে পারেন এবং কিভাবে আপনি এই পণ্যটি নিবেন? কত কোয়ান্টিটির মধ্যে পণ্য নিবেন? সেই সম্পর্কে তাদের কে জানিয়ে দিতে পারেন।

পন্যের দাম কিভাবে পরিশোধ করবেন?

আপনার পছন্দের প্রোডাক্ট এবং সেলার সিলেক্ট করা নেয়া হয়ে গেলে, এবার এটি ক্রয় করে নেয়ার জন্য অগ্রিম পেমেন্ট করতে হবে।

আপনি চাইলে বিভিন্নভাবে পেমেন্ট করার কাজ সম্পন্ন করতে পারেন।

এখানে যে সমস্ত পেমেন্ট মেথড রয়েছে, সেগুলোর মধ্যে থেকে কয়েকটি নিচে মেনশন করা হলো।

  • Bank Transfer
  • Escrow
  • Alibaba Payment Links
  • Pay Later
  • Paypal
  • Western Union
  • Alibaba Online Transfer

উল্লেখিত পেমেন্ট মেথড এর সহায়তায় আপনি অগ্রিম পেমেন্ট করতে পারবেন এবং আপনার পণ্যের অর্ডার নিশ্চিত করতে পারবেন।

আপনি যদি এখান থেকে প্রোডাক্ট ক্রয় করেন, তাহলে বিভিন্ন রকমের প্রোডাক্ট এর বিভিন্ন রকমের ক্রয় করার শর্ত নির্ধারণ করা হয়েছে।

আলিবাবা থেকে পণ্য ক্রয় করার জন্য যে সমস্ত দামের শর্ত রয়েছে, সেগুলো সম্পর্কে নিচে থেকে জেনে নিন।

পণ্য ক্রয় করার দামের শর্ত

আপনি যদি এখান থেকে প্রোডাক্ট কয় করে থাকেন, তাহলে প্রোডাক্ট ক্রয় করার জন্য আপনাকে সর্বনিম্ন কত টি প্রোডাক্ট করতে হবে?

একটি প্রডাক্টের জন্য ট্রান্সফার ফি কত? সে সম্পর্কে একটি ধারণা রাখা প্রয়োজন রয়েছে।

এসমস্ত বিষয়াদির মূলত বিভিন্ন ভাবে নিয়ন্ত্রণ হয়ে থাকে এবং বিভিন্ন রকমের শব্দের দ্বারা এটিকে বোঝানো হয়ে থাকে।

আপনি যদি এখান থেকে কোন একটি পণ্য ক্রয় করেন, তাহলে যেকোনো একটি পণ্য ক্রয় করার ক্ষেত্রে দেখতে পারবেন, পণ্যটির পাশে অনেকগুলো শর্ত জুড়ে দেয়া হয়েছে।

এটা বোঝার জন্য FOB, CFR, EXW, MOQ এরকম কয়েকটি ওয়ার্ড এর মধ্যে পণ্যটির বিভিন্ন দিকনির্দেশনা নিয়ন্ত্রিত হয়ে থাকে।

তাহলে আর দেরি না করে এখুনি জেনে নেয়া যাক উপরে উল্লেখিত শব্দগুলো দ্বারা, আসলে কি বোঝানো হয়ে থাকে?

FOB – FOB এর পূর্ণরূপ হল Free On Board। অর্থাৎ, সেলার তার দেশের পোর্ট পর্যন্ত পৌঁছে দিবে।

এবং পৌঁছে দেওয়ার পরে বাকি যে সমস্ত খরচ অবশিষ্ট থাকবে সমস্ত খরচ আপনাকে বহন করতে হবে।

CFR – CFR এর পূর্ণরূপ হল Cost and Freigh. অর্থাৎ, সেলার আপনার দেশের পোর্ট পর্যন্ত পণ্য পৌঁছে দেয়ার সকল খরচ বহন করবে।

EXW – EXW এর পূর্ণরূপ হল Ex Works।

এরকম কোন কিছু যদি লেখা থাকে তাহলে এটা বুঝতে হবে যে , ট্রান্সপোর্টের যে সমস্ত খরচ রয়েছে, এই সমস্ত খরচ আপনাকে বহন করতে হবে।

এক্ষেত্রে সেলার কোন রকমের খরচ বহন করবে না।

MOQ – MOQ এর পূর্ণরূপ হল Minimum Order Quantity.

এটার মানে হল আপনি ৫০০, ১০০ এর কম পণ্য অর্ডার করতে পারবেন না। ক্ষেত্র বিশেষে এটা কমবেশি হয়। তবে, MOQ থাকলে দেখে নিবেন তাদের সর্বনিম্ন অর্ডারের পরিমান।

এক্ষেত্রে আপনি এই বিষয়টি তাদের কাছ থেকে আরও বেশি ক্লিয়ার হয়ে যেতে পারবেন।

উল্লেখিত যে কয়েকটি সিম্পল এর কথা মেনশন করা হয়েছে, সেগুলো দিয়ে মূলত একটি প্রডাক্টের দামের এবং অন্যান্য বিষয়াদি গুলো মেনশন করা হয়ে থাকে।

প্রডাক্ট ক্রয় করার ক্ষেত্রে অবশ্যই এই বিষয়গুলোর দিকে নজর দিবেন এবং তারপরে প্রোডাক্ট ক্রয় করবেন।

আলি বাবা থেকে পণ্য কেনার পুর্বে

আপনি যদি এখান থেকে কোন পণ্য ক্রয় করেন, তাহলে পণ্য ক্রয় করার পূর্বে আপনাকে কিছু বিষয়ের দিকে নজর রাখতে হবে।

যাতে করে, আপনি পণ্য ক্রয় করে কোন রকমের লোকসানের মধ্যে না পড়েন।

প্রডাক্ট ক্রয় করার পূর্বে অবশ্যই যেকোনো একটি প্রোডাক্ট এর রেটিং সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে নিবেন।

এই একই প্রোডাক্ট যদি পূর্বে অন্য কেউ কিনে থাকে, তাহলে সেই প্রোডাক্ট সম্পর্কে পূর্বের কৃত ব্যক্তির কিরকম অভিমত রয়েছে, সেগুলো সম্পর্কে জেনে নেয়ার প্রয়োজন রয়েছে।

পূর্বের ক্রয়কৃত ব্যক্তির অভিমত সম্পর্কে জেনে নিলে আপনার সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে যাবেন, আপনি যেই প্রোডাক্ট ক্রয় করতে চাচ্ছেন সেটা আসলেই কার্যকর কিনা?

এক্ষেত্রে পূর্বে যে ব্যক্তি এই প্রোডাক্ট ক্রয় করেছে, সেই ব্যক্তি যদি ভালো ফিডব্যাক দিয়ে থাকে এবং এই প্রোডাক্টটা যদি ভাল হয়ে থাকে তাহলে নিশ্চিতভাবে প্রোডাক্ট ক্রয় করা যেতে পারে।

Also Read: মোবাইল ট্র্যাকিং কি? মোবাইল ট্র্যাকিং থেকে বাঁচার উপায়

যদি এর বিপরীত হয়ে থাকে অর্থাৎ প্রোডাক্টের খুব বেশি ভালো রেটিং না থাকে এবং লোকজনের ভিতর এই প্রোডাক্ট নিয়ে শঙ্কা থাকে, তাহলে এ প্রডাক্ট ক্রয় করা থেকে বিরত থাকবেন।

কারন, এটি একবার ক্রয় করে নেয়ার পরে আপনি যদি প্রোডাক্ট রিফান্ড করতে চান, তাহলে আপনাকে অনেক ভোগান্তি মধ্যে পড়তে হবে।

সেজন্য প্রোডাক্ট ক্রয় করার পূর্বে অবশ্যই যে সমস্ত ব্যক্তিবর্গ এই প্রোডাক্ট ক্রয় করেছে, তাদের রেটিং এবং অন্যান্য বিষয়গুলো বিবেচনা করে তারপরে প্রোডাক্ট ক্রয় করার দিকে মনোনিবেশ করবেন।

প্রোডাক্ট কিভাবে আপনার কাছে আসবে?

আলিবাবা থেকে আপনি যদি একটি প্রোডাক্ট ক্রয় করেন, তাহলে সেই প্রোডাক্ট আপনার কাছে আসার জন্য বিভিন্ন রকমের মাধ্যম রয়েছে।

অর্থাৎ যে সেলার এর কাছ থেকে আপনি এই প্রোডাক্ট ক্রয় করবেন, সেই সেলার চাইলে বিভিন্ন উপায়ে আপনার কাছে প্রোডাক্টটি পাঠিয়ে দিতে পারে।

কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে যদি প্রোডাক্ট আপনার কাছে পাঠিয়ে দেয়, তাহলে আপনি এই সম্পর্কে পূর্বে থেকে অবগত হতে পারবেন এবং কোথা থেকে এই প্রোডাক্ট নিতে পারবেন, সেটি আপনি নির্বাচন করবেন।

মূলত সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে, প্রোডাক্ট কিভাবে আপনার কাছে এসে পৌঁছবে সে সম্পর্কে কোনো রকমের দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হতে হবে না।

আশা করি, আলিবাবা থেকে পণ্য ক্রয় করার নিয়ম সম্পর্কে জেনে নিতে পারেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top
Share via
Copy link