টিকা কার্ড ডাউনলোড | করোনা ভ্যাকসিন কার্ড ডাউনলোড

আমাদের মধ্যে এরকম অনেকেই রয়েছেন যারা কিনা করোনার টিকা দিতে চান। আর যারা করোনার টিকার জন্য রেজিস্ট্রেশন করেছেন তারা টিকা কার্ড ডাউনলোড করে নিতে চান।

অর্থাৎ আপনি যদি কোন রকম ভাবে করোণা ভ্যাকসিনের জন্য রেজিস্ট্রেশন করে থাকেন, তাহলে আপনাকে অবশ্যই টিকা কার্ড দেখিয়ে ভ্যাকসিন দিতে হবে।

কিভাবে খুব সহজে আপনি চাইলে টিকা কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন, সেই সম্পর্কে বিস্তারিত এই আর্টিকেলে আলোচনা করা হবে।

টিকা কার্ড ডাউনলোড

আপনি যদি করোনা ভ্যাকসিন এর জন্য রেজিস্ট্রেশন করে থাকেন, তাহলে আপনি চাইলে নিম্নলিখিত পদক্ষেপ অনুসরণ করলে আপনার ভ্যাকসিনের কার্ড ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

কার্ড ডাউনলোড করে নেয়ার জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত এবং কম সময়ের মধ্যে কার্যকরী একটি উপায় হল, সুরক্ষা নামক অ্যাপসটি ডাউনলোড করে নেয়া।

তাহলে আর দেরি না করে এখুনি নিম্নলিখিত লিংক থেকে সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিন এবং তারপরে আমার দেখানো পদক্ষেপ অনুযায়ী কাজ চালিয়ে যান।

Download for Android

উপরে উল্লেখিত লিংক থেকে যখনই আপনি সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিবেন, তখন এই সফটওয়্যারটি ওপেন করুন।

সফটওয়্যার টি ওপেন করে নেয়ার পরে নিম্নলিখিত স্ক্রীনশটএর মত একটি পেইজ দেখতে পারবেন। আপনাকে এই পেইজটির মধ্যে থাকা Home বাটনের উপরে ক্লিক করতে হবে।

হোম বাটন এর উপরে ক্লিক করার পরে এবার আপনাকে এই সফটওয়্যারটির একদম ইনিশিয়াল পয়েন্ট নিয়ে যাওয়া হবে। যেখান থেকে আপনি আপনার কার্যক্রম সম্পন্ন করতে পারবেন।

এবার আপনি যেহেতু কার্ড ডাউনলোড করে নিতে চান, সে জন্য হোম পেইজ থেকে আপনাকে “কার্ড ডাউনলোড” নামের অপশনটির উপরে ক্লিক করতে হবে।।

করোনা ভ্যাকসিন কার্ড ডাউনলোড

যখনি আপনি কার্ড ডাউনলোড নামের অপশনটির উপরে ক্লিক করে দিবেন, তখন আপনাকে আপনার কার্ড রিলেটেড ইনফর্মেশন দিতে হবে।

আপনি যখন নিজের আইডি কার্ডের মাধ্যমে করোনার ভ্যাকসিন রেজিস্ট্রেশন করেছিলেন, সেই আইডি কার্ডের নাম্বার এবং আপনার জন্ম তারিখ এবং আপনার যে ফোন নাম্বার দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করেছিলেন সেই ফোন নাম্বার এর প্রয়োজন হবে।

ডাউনলোড নামক অপশনটির উপরে ক্লিক করে নেওয়ার পরে আপনাকে অন্য আরেকটি পেইজ এ নিয়ে যাওয়া হবে।

এবার সেখান থেকে আপনি যদি জন্ম নিবন্ধনের মাধ্যমে ভ্যাকসিন রেজিস্ট্রেশন করেন, তাহলে জন্ম নিবন্ধন সিলেক্ট করে নিন।

এবং আপনি যদি আইডি কার্ডের মাধ্যমে ভ্যাকসিন রেজিস্ট্রেশন করেন, তাহলে আইডি কার্ড নামের যে অপশন রয়েছে সেই আইডি কার্ড নামের অপশন এর উপরে ক্লিক করে দিন।

এখান থেকে যে কোন একটি অপশন এর উপরে ক্লিক করার পরে, আপনাকে ওই রিলেটেড ইনফরমেশনগুলো ফিলাপ করে নিতে হবে।

আমি যেহেতু আইডি কার্ডের অপশন এর উপরে ক্লিক করেছি, সেজন্য আইডি কার্ডের নাম্বার এবং আমার যে জন্ম তারিখ হয়েছে সেই জন্ম তারিখ লিখে তারপরে “ভেরিফাই” বাটনে ক্লিক করলাম।

টিকা কার্ড ডাউনলোড | করোনা ভ্যাকসিন কার্ড ডাউনলোড

আপনি যখন ভেরিফাই নামক অপশনটির উপরে ক্লিক করে দিবেন, তখন আপনার যে ফোন নম্বর দিয়ে আপনি একাউন্ট ভেরিফিকেশন করেছিলেন, সেই ফোন নাম্বারে একটি এসএমএস চলে যাবে।

এবার, আপনাকে ওই ভেরিফিকেশনের এসএমএসটি বসিয়ে দিতে হবে এবং তারপরে ভেরিফাই নামক অপশনটির উপরে ক্লিক করতে হবে।

টিকা কার্ড ডাউনলোড | করোনা ভ্যাকসিন কার্ড ডাউনলোড

এবার, আপনাকে এসএমএস করে জানিয়ে দেয়া যে ভেরিফিকেশন কোড রয়েছে, সেই ভেরিফিকেশন কোড যখন আপনি সঠিকভাবে বসিয়ে দিবেন, তারপরে ভেরিফাই বাটনে ক্লিক করবেন তখন আপনি আপনার টীকা কার্ড দেখতে পারবেন।

আপনি যেহেতু টিকা কার্ড ডাউনলোড করে নিতে চান, সে জন্য ডাউনলোড নামক অপশনের উপরে ক্লিক করে দিন।

টিকা কার্ড ডাউনলোড | করোনা ভ্যাকসিন কার্ড ডাউনলোড

ডাউনলোড নামের অপশন টি উপরে ক্লিক করে দেয়ার পরে, টিকা কার্ড ডাউনলোড প্রসেস শুরু হয়ে যাবে। ডাউনলোড নামের উপরে ক্লিক করার পরে আপনাকে অন্য আরেকটি পেইজে রি-ডাইরেক্ট করে নেয়া হবে।

এবং তার পরে আপনাকে অন্য কোন কাজ করতে হবেনা, অটোমেটিকলি সেটি আপনার ডিভাইস স্টোরেজে ডাউনলোড হয়ে যাবে।

আপনি লক্ষ্য করলে দেখতে পারবেন, এই ফাইলটি পিডিএফ ফরমেটে আপনার ডিভাইসে ডাউনলোড হবে। এবং তারপরে আপনি চাইলে এই পিডিএফ ফাইল প্রিন্ট করে নিতে পারেন।

এবং যখন আপনি ভ্যাকসিন দিতে যাবেন, তখন আপনি চাইলে এই পিডিএফ ফরমেট ফাইলটি দেখিয়ে ভ্যাকসিন দেয়ার কাজ সম্পন্ন করে নিতে পারবেন।

টিকা কার্ড ডাউনলোড কি খুবই গুরুত্বপূর্ণ?

আপনি যদি ভ্যাকসিন দিতে চান, তাহলে আপনাকে অবশ্যই আপনার যে ভেরিফাইড কার্ড রয়েছে সেই কার্ড দেখাতে হবে।

কার্ড দেখানোর মাধ্যমে আপনি তাদেরকে এটা নিশ্চিত করতে হবে যে আপনি আসলেই টিকার জন্য রেজিস্ট্রেশন করেছেন এবং আপনার রেজিস্ট্রেশন সফল হয়েছে।

সেজন্য আপাতত এটা বলা যায় যে টিকা কার্ড খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং এটি আপনাকে অবশ্যই সংগ্রহ করতে হবে।

অন্য কোন উপায় কি কার্ড ডাউনলোড করা যাবে?

আপনি চাইলে সুরক্ষা ডট কম ওয়েব সাইট ব্যবহার করার মাধ্যমে কার্ড ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

তবে আমার সর্বাধিক রিকমেন্ড হবে, আপনি চাইলে তাদের যে সফটওয়্যার রয়েছে, সেই সফটওয়্যার ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনার প্রয়োজনীয় কার্ড ডাউনলোড করে নিন।

সফটওয়্যার ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনি যদি কার্ড টি ডাউনলোড করে নেন, তাহলে কোন রকমের ভোগান্তি ছাড়া  কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে আপনার কার্ড ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

তার পরেও যদি আপনি সুরক্ষা ডট কম ওয়েব সাইট ব্যবহার করার মাধ্যমে টিকা কার্ড ডাউনলোড করে নিতে চান, তাহলে নিম্নলিখিত লিংকে ভিজিট করতে পারেন।

Download Card

উপরে উল্লেখিত লিংকে ভিজিট করার পরে আপনাকে পূর্বের ন্যায় স্টেপ ফলো করতে হবে এবং তারপরে আপনার প্রয়োজনীয় কার্ড ডাউনলোড করে নিতে হবে।

এখানেও আপনি চাইলে একই রকমের স্টেপ করার মাধ্যমে কার্ড ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনি যদি কার্ড ডাউনলোড করেন, তাহলে একটি গুরুত্বপূর্ণ স্টেপ হিসেবে আপনাকে রি ক্যাপচা সলভ করতে হবে। এটি ওয়েবসাইট ভেরিফিকেশন এর ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়।

করোনার ভ্যাকসিন কার্ড ডাউনলোড করে নেয়ার যে প্রসেস রয়েছিল সেই সম্পর্কে উপরে আলোচনা করা হলো।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

close
Scroll to Top
Share via
Copy link