গুগল ক্লাসরুম অ্যাপস ডাউনলোড এবং সেটাপ করার নিয়ম

আপনি হয়তো গুগল ক্লাসরুমের নাম শুনেছেন এবং এই সম্পর্কে জেনেছেন যে গুগল ক্লাসরুম দিয়ে আপনি চাইলে বিভিন্ন রকমের কার্যক্রম সম্পন্ন করতে পারেন।

আপনি চাইলে গুগল ক্লাসরুম ব্যবহার করার মাধ্যমে বিদ্যালয়ের বিভিন্ন রকমের কার্যক্রম সম্পন্ন করতে পারবেন এবং শিক্ষক হিসেবে আপনি চাইলে ক্লাস নিয়ে ছাত্র ছাত্রীর সাথে সম্পৃক্ত হতে পারবেন।

এছাড়াও একজন ছাত্র হিসেবে আপনি চাইলে খুব সহজেই আপনার বিদ্যালয় হওয়া যেকোনো গুগোল ক্লাসরুম এর ক্লাসে জয়েন হয়ে ক্লাস করতে পারবেন।

এই আর্টিকেলে মূলত আলোচনা করা হবে কিভাবে আপনি চাইলে খুব সহজেই গুগল ক্লাসরুম ব্যবহার করার মাধ্যমে বিভিন্ন রকমের কার্যক্রম সম্পন্ন করতে পারবেন।

এছাড়াও আলোচনা করা হবে গুগোল ক্লাসরুম সেটআপ সম্পর্কে, অর্থাৎ আপনি কিভাবে চাইলে খুব সহজে গুগোল ক্লাসরুম সেটআপ করতে পারবেন এবং অ্যাপসটি ডাউনলোড করতে পারবেন সেই সম্পর্কেও এই আর্টিকেলের জানতে পারবেন।

আপনি যদি গুগোল ক্লাসরুম অ্যাপ ডাউনলোড করা এবং এটি সেটআপ করার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে নিতে চান তাহলে এই আর্টিকেলটি দেখে নিন।

গুগল ক্লাসরুম আসলে কি?

গুগোল ক্লাসরুম হলো গুগলের তৈরি একটি সফটওয়্যার যার মাধ্যমে আপনি চাইলে খুব সহজেই আপনার স্কুল কিংবা বিদ্যালয় রিলেটেড বিভিন্ন রকমের শিক্ষামুলক কার্যক্রম সম্পন্ন করতে পারবেন।

এই অ্যাপটি ব্যবহার করার মাধ্যমে যে কোনো শিক্ষার্থী চাইলে লাইভ সেশন এ জয়েন হতে পারবে এবং বিভিন্ন রকমের কার্যক্রম সম্পন্ন করতে পারবে।

অর্থাৎ শিক্ষার্থী চাইলে সরাসরি শিক্ষকের সাথে লাইভে কথা বলতে পারবে এবং শিক্ষকের করা ক্লাসগুলো সহজেই এই অ্যাপ ব্যবহার করার সহায়তায় সম্পন্ন করতে পারবে।

আজকের এই আর্টিকেলের আলোচ্য বিষয় যেহেতু, এই অ্যাপ সম্পর্কে এবং এপ সেটাপ সম্পর্কে, তাই আপনি এই আর্টিকেলের মাধ্যমে এই রিলেটেড বিস্তারিত তথ্য জেনে নিতে পারবেন।

গুগল ক্লাসরুম অ্যাপ ডাউনলোড

এবার আপনি যদি গুগোল ক্লাসরুম এর অফিসিয়াল অ্যান্ড্রয়েড এবং আইফোনের জন্য তৈরিকৃত অ্যাপ ডাউনলোড করে নিতে চান, তাহলে নিম্নলিখিত লিংকের মাধ্যমে অ্যাপসটি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

অ্যাপটি ডাউনলোড করে নেয়ার জন্য নিম্নলিখিত লিংক এর উপরে ক্লিক করুন এবং আপনি আপনার নির্দিষ্ট ডিভাইসের জন্য সফটওয়্যারটি আপনার ডিভাইসে ডাউনলোড করে নিন।

যখনই আপনি আপনার নির্দিষ্ট ডিভাইসের জন্য উপরে উল্লেখিত লিংক থেকে সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিবেন, তখন আপনি চাইলে এই সফটওয়্যারটি আপনার ফোন থেকে এক্সেস নিতে পারবেন।

সফটওয়্যার এর সাহায্যে সমস্ত কার্যক্রম সম্পাদন করার জন্য আপনাকে প্রথমত অ্যাপসটি ডাউনলোড করে নিতে হবে এবং তারপরে এই অ্যাপস টি ওপেন করে নিতে হবে।

অ্যাপস টি ওপেন করে নেয়ার পরে এই অ্যাপ রিলেটেড যে সমস্ত সেটআপ আপনি করতে পারবেন, সেই রিলেটেড বিস্তারিত তথ্য নিচে উল্লেখ করা হলো।

গুগল ক্লাসরুম অ্যাপস সেটআপ

অ্যাপ সেটআপ করার জন্য আপনাকে প্রথমত অ্যাপ টি ওপেন করে নিতে হবে এবং তারপরে আমার দেখানো নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ চালিয়ে যেতে হবে, তাহলেই আপনি এই অ্যাপটি সেটআপ করে নিতে পারবেন।

যখনই আপনি অ্যাপটির মধ্যে প্রবেশ করবেন তখন আপনি এখানে “Get started” নামের একটি অপশন পাবেন, সেই গেট স্টার্ট নামের অক্ষরের উপরে ক্লিক করুন।

গেট স্টার্ট নামের অপশনটির উপরে ক্লিক করার পরে, আপনার ডিভাইসে লগ ইন কৃত সমস্ত জিমেইল একাউন্ট অপেন হবে। এবার ইমেইল একাউন্ট থেকে আপনার পছন্দের একটি জিমেইল একাউন্ট সিলেক্ট করে নিন।

অর্থাৎ আপনি যে ইমেইল একাউন্ট ব্যবহার করার মাধ্যমে গুগোল ক্লাসরুম অ্যাপস সেটআপ করতে চান সেই ইমেইল একাউন্ট এর উপরে ক্লিক করুন।

গুগল ক্লাসরুম অ্যাপস ডাউনলোড এবং সেটাপ করার নিয়ম

ইমেইল একাউন্ট এর উপরে ক্লিক করার পরে , নিচের দিকে “Ok” নামক একটি বাটন পাবেন, সেই বাটন এর উপরে ক্লিক করুন।

অনি আপনি ওকে নামক বাটনটির উপরে ক্লিক করে দিবেন, তখন আপনি এই অ্যাপটির পুরোপুরি অ্যাক্সেস নিতে পারবেন এবং এই অ্যাপসটি ব্যবহার করার মাধ্যমে বিভিন্ন রকমের কার্যক্রম সম্পন্ন করতে পারবেন।

এবার আপনি যদি কোনো মিটিং এ সম্পৃক্ত হতে চান অর্থাৎ তাহলে অ্যাপ প্রবেশ করার পরে নিচে দিকে একটি +(প্লাস) আইকন দেখতে পারবেন, এই আইকনটির উপরে ক্লিক করুন।

গুগল ক্লাসরুম অ্যাপস ডাউনলোড এবং সেটাপ করার নিয়ম

যখনই আপনি প্লাস আইকনটির উপরে ক্লিক করবেন তখন আপনি এখানে আরও দুইটি অপশন দেখতে পারবেন এর মধ্যে থেকে একটি হলো মিটিংয়ের জয়েন করা এবং অন্যটি হলো নতুন মিটিং তৈরী করা।

অর্থাৎ পূর্বে থেকে যদি কোন মিটিং থেকে থাকে তাহলে আপনি এখানে থাকা “join class” নামক অপশনটির উপরে ক্লিক করতে পারেন এবং আপনি যদি শিক্ষক হয়ে থাকেন এবং নতুন মিটিং তৈরি করতে চান, তাহলে “New Class” উপরে ক্লিক করুন।

গুগল ক্লাসরুম অ্যাপস ডাউনলোড এবং সেটাপ করার নিয়ম

আপনি যদি এ তৈরিকৃত কোন ক্লাসে জয়েন হতে চান তাহলে “Join Class” নামক অপশনটি উপরে ক্লিক করুন। জয়েন ক্লাস নামক অপশনটির উপরে ক্লিক করার পরে আপনার ক্লাসের যে সিকিউরিটি কোড রয়েছে সেই কোড বসিয়ে দিন।

অর্থাৎ যে সমস্ত শিক্ষক কিংবা শিক্ষার্থীরা ক্লাস নিচ্ছেন তাদের কাছ থেকে আপনি চাইলে ক্লাস কোড কালেক্ট করে নিতে পারবেন।

এবং ক্লাস কোড কালেক্ট করে নেয়ার পরে এই ক্লাস কোড ব্যবহার করার মাধ্যমে ক্লাসে জয়েন হতে পারবেন।

আর এভাবেই আপনি চাইলে পূর্বে থেকে হওয়া কোন একটি ক্লাসে জয়েন হতে পারবেন।

নতুন গুগোল ক্লাসরুম সেটাপ

এছাড়াও আপনি যদি গুগল ক্লাসরুমে নতুন একটি ক্লাসে সেটাপ করতে চান তাহলে যে উপায়ে ক্লাসরুম সেটআপ করতে পারবেন, সেই সম্পর্কে নিচে আলোচনা করা হলো।

নতুন ক্লাসরুম সেটআপ করার জন্য করে যেভাবে আলোচনা করা হয়েছে সেইভাবে স্টেপ ফলো করার পরে আপনি “Create Class” এর উপরে ক্লিক করবেন তখন আপনি নতুন ক্লাস তৈরি করতে পারবেন।

গুগল ক্লাসরুম অ্যাপস ডাউনলোড এবং সেটাপ করার নিয়ম

ক্রিয়েট ক্লাস অপশনটির উপরে ক্লিক করার পরে আপনার সামনে অনেকগুলো অপশন ওপেন হবে৷ নতুন ক্লাস করার জন্য আপনাকে বাধ্যতামূলক এই সমস্ত অপশন ফিলাপ করতে হবে এবং তারপরে সাবমিট বাটনে ক্লিক করতে।

অপশনগুলো যথাযথভাবে ফিলাপ করার পরে যখন আপনি উপরে উল্লেখ থাকা ক্রিয়েট ক্লাস নামক অপশনটির উপরে ক্লিক করবেন, তখন কিছু সময়ের মধ্যে আপনার ক্লাস টি তৈরি হয়ে যাবে।


যখনই ক্লাস সফলভাবে তৈরি করা হয়ে যাবে তখন এই এপের হোমপেজে আপনি আপনার ক্লাসের রিলেটেড ডিটেলস গুলো দেখতে পারবেন।

অর্থাৎ এই অ্যাপটি ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনি চাইলে আপনার শিক্ষার্থীদের কাছে ক্লাস এর যে লিংক রয়েছে সেই লিংকটা প্রেরান করতে পারবেন।

শিক্ষার্থীদের কাছে ক্লাস এর লিংক প্রেরণ করার জন্য invite class নামক একটি অপশন পাবেন, সেই অপশনটির উপরে ক্লিক করুন।

যখনই আপনি ইনভাইট ক্লাস অপশনটির উপরে ক্লিক করে দিবেন, তখন আপনি এই ক্লাসের একটি লিঙ্ক পাবেন এবং আপনি চাইলে এই লিংকটি শিক্ষার্থীদের কাছে প্রেরণ করতে পারবেন।

যখনই শিক্ষার্থীরা ক্লাস এর একটি লিঙ্ক পেয়ে যাবে তখন তারা চাইলে এই লিংকে ব্যবহার করার মাধ্যমে সহজেই যে কোন ক্লাসে জয়েন করতে পারবে।

যখনই আপনি ক্লাসের জয়েন হয়ে যাবেন তখন আপনি চাইলে এই অ্যাপটি ব্যবহার করার মাধ্যমে বিভিন্ন রকমের সুযোগ সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন।

অর্থাৎ অনলাইনে ক্লাস করার যে সমস্ত সুযোগ সুবিধা রয়েছে সেই সমস্ত সুযোগ সুবিধা এই অ্যাপটি ব্যবহার করার মাধ্যমে শিক্ষক এবং ছাত্র দুজনে উপভোগ করতে পারবেন।

এছাড়াও নেটওয়ার্ক কানেকশন খুব বেশি না থাকলেও আপনি চাইলে এই অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারবেন এবং ক্লিয়ারলি ক্লাস করতে পারবেন।

সবকিছু মিলিয়ে এটি একটি অসাধারণ অ্যাপ যার মাধ্যমে শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীরা অনলাইনের মাধ্যমে ক্লাস নিয়ে উপকৃত হতে পারেন।

আর এটি হল মূলত গুগোল ক্লাসরুম রিলেটেড যে তথ্য রয়েছে, সেই তথ্য সম্পর্কে সর্বশেষ আলোচনা।

আশা করি, এই সম্পর্কে আপনি জেনে নিতে পেরেছেন।

Also Read: ফেসবুক থেকে আয় করার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen + 11 =

close
Scroll to Top
Share via
Copy link