মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন | Online mobile Phone Registration BD

 

আপনি হয়তো এই সম্পর্কে অবগত আছেন যে, বাংলাদেশের সমস্ত ইলিগ্যাল ফোন গুলো বন্ধ করে দেয়া হবে। সেজন্য মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম জেনে মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

অর্থাৎ আপনার সদ্য কিনা কিংবা পূর্বে থেকে যে সমস্ত মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করার কাজ সম্পন্ন হয়নি, সে সমস্ত মোবাইল ফোন নির্দিষ্ট ডকুমেন্ট দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করে নিতে হবে।

আর আপনি যদি মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করতে ব্যর্থ হন, তাহলে খুব শীঘ্রই আপনার ফোনটি বন্ধ হয়ে যাবে এবং এই ফোনটি আপনি আর পরবর্তী সময়ে ব্যবহার করতে পারবেন না।

আজকের এই আর্টিকেলের আলোচনা করা হবে কিভাবে আপনি খুব সহজেই মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে পারবেন।

মোবাইল রেজিস্ট্রেশন কেন করবেন?

আপনি হয়তো এই সম্পর্কে বিস্তারিত অবগত আছেন যে বাংলাদেশে খুব শীঘ্রই সমস্ত রেজিষ্ট্রেশন না ফোন গুলো বন্ধ করে দেয়া হবে।

বাংলাদেশের যে টেলিকমিউনিকেশন সেন্টার রয়েছে, যেটি কি আমরা বিটিআরসি বলে জানি, এই বিটিআরসি জুলাই এর শেষের দিকে ফোন গুলো বন্ধ করে দেয়ার কার্যক্রম সম্পন্ন করবে।

এছাড়াও আপনি যদি বিদেশ থেকে কোন একটি ফোন ক্রয় করে থাকেন, তাহলে এই ফোনটি আসলেই রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে কিনা সে সম্পর্কে আপনাকে জেনে নিতে হয়।

সেজন্য আপনি যদি বর্তমান যুগের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশ আপনার ব্যবহৃত হ্যান্ডসেট ব্যবহার করতে চান, তাহলে এই হ্যান্ডসেট রেজিস্ট্রেশন করে নিতে হবে অন্যথায় আপনার হ্যান্ড সেটটি বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

মোবাইল রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম

অনলাইনের মাধ্যমে খুব সহজেই মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করার জন্য প্রথমত আপনাকে নিম্নলিখিত লিংকে ভিজিট করতে হবে এবং তারপরে আমার দেয়ার নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ চালিয়ে যেতে হবে।

যখনই আপনি উপরে উল্লেখিত লিংকে ভিজিট করবেন তখন আপনাকে প্রথমত এই ওয়েবসাইটে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে অর্থাৎ ব্যক্তিগত ইনফরমেশন দিয়ে এখানে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে।

এই কাজটি করার জন্য উপরে উল্লেখিত লিংকে ভিজিট করার পরে “নিবন্ধন করুন” নামের যে অপশন পাবেন সেই অপশনটি উপরে ক্লিক করুন এবং তারপর আপনার নাম, ফোন নাম্বার এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন এর কাজ সম্পন্ন করে নিন।

মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন | Online mobile Phone Registration BD

এর পরবর্তী পেইজে আপনি যে ফোন নাম্বার দিয়েছিলেন সে নাম্বারটিতে একটি ওটিপি কোড আসবে, সেই ওটিপি কোড বসিয়ে দেয়ার মাধ্যমে আপনার অ্যাকাউন্ট তৈরি করার কাজ সম্পাদন করে দিন।

মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন | Online mobile Phone Registration BD

যখনই আপনি এখানে একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করার কাজ সম্পন্ন করে নিতে পারবেন তখন এই ওয়েবসাইট ব্যবহার করার মাধ্যমে মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করার যে পোর্টাল রয়েছে, সেই পোর্টালের এক্সেস নিতে পারবেন।

যখনই আপনার অ্যাকাউন্ট তৈরি করার কাজ সম্পন্ন হয়ে যাবে, তখন আপনি অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় যে ফোন নাম্বার এবং পাসওয়ার্ড দিয়েছিলেন সেই ফোন নাম্বার এবং পাসওয়ার্ড দেয়ার মাধ্যমে অ্যাকাউন্টে লগইন করার কাজ সম্পন্ন করুন।

মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন | Online mobile Phone Registration BD

যখনই এখানে লগইন করা কাজ সম্পন্ন করে নিবেন, তখন আপনি এই ওয়েবসাইটের পুরোপুরি এক্সেস নিতে পারবেন এবং এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করার কাজ সম্পন্ন করতে পারবেন।

মূলত এই ওয়েবসাইটে ভিজিট করার পরে আপনি দুইটি অপশন পাবেন এর মধ্যে থেকে একটি হলো আইএমইআই চেক করা এবং অন্যটি হল বিশেষ রেজিস্ট্রেশন।

এখানে আইএমইআই চেক করা মানে হল আপনি যে ফোন কিনেছেন, সেই ফোনের আইএমইআই নাম্বার রয়েছে সেই আইএমইআই নাম্বার দেয়ার মাধ্যমে এখানে চেক করে নেয়া।

যাতে করে, আপনি বুঝতে পারেন যে আপনার ফোনটি আসলে বিটিআরসি কর্তৃক রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে।

এবং এখানে যে আরও দ্বিতীয় আরেকটি আরেকটি অপশন রয়েছে অর্থাৎ বিশেষ নিবন্ধন এই অপশনটি আপনি বিদেশ থেকে ক্রয় করা মোবাইল ফোনের ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারবেন।

আর এই বিশেষ রেজিস্টেশন অপশনের মাধ্যমে আপনার মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করে নিতে পারবেন।

এবার আপনি যদি আপনার হাতের ফোন রেজিস্ট্রেশন চেক করে নিতে চান, তাহলে আপনার ফোনের যে আইএমইআই নাম্বার রয়েছে সে নাম্বার দিয়ে চেক করে নিতে পারবেন।

এবং দেখে দিতে পারবেন এটি আসলে বিটিআরসি কর্তৃক রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে কিনা?

আপনার ফোনের আইএমইআই নাম্বার চেক করে নেয়ার জন্য প্রথমে আপনার ফোনের ডায়াল প্যাডে চলে যান, এবং তারপর এখান থেকে ডায়াল করুন *#০৬#, তাহলে আপনি আপনার ফোনে ব্যবহৃত আইএমইআই নাম্বার পেয়ে যাবেন।

মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন | Online mobile Phone Registration BD

যখনই আপনি আপনার ফোনে ব্যবহৃত আইএমইআই নাম্বার পেয়ে যাবেন, তখন আপনি এই নাম্বার টি সংগ্রহ করুন এবং পুনরায় ওই ওয়েবসাইটে চলে আসুন যেখানে আপনি এই নাম্বারটি চেক করে নিতে চান।

ওয়েবসাইটে চলে আসার পরে এখানে একদম উপরের বক্সে আপনি আই এম এ নাম্বারটি বসিয়ে দিন এবং তারপরে Check নামের বাটনে ক্লিক করুন।

তাহলে আপনি দেখতে পারবেন আপনার Imei বিটিআরসি কর্তৃক রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে কিনা।

যদি রেজিস্ট্রেশন করা না থাকে, তাহলে আপনি এটি আবার রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন অথবা বিদেশ থেকে যে সমস্ত ফোন গুলো ক্রয় করা হয়েছে সে সমস্ত ফোন গুলো রেজিস্ট্রেশন করার জন্য আপনি এপ্লাই করতে পারবেন।

বিদেশ থেকে কেনা ফোন রেজিস্ট্রেশন

বিদেশ থেকে যে সমস্ত ফোন গুলো আনা হয়েছে, সে সমস্ত ফোন গুলো রেজিস্ট্রেশন করার জন্য প্রথমত “বিশেষ রেজিস্ট্রেশন” নামে যে বাটন রয়েছে, সেই বাটনটি ক্লিক করুন।

যখনই আপনি বিশেষ রেজিস্ট্রেশন নামের অপশনটির উপরে ক্লিক করে দিবেন তখন আপনি এখানে থাকা সমস্ত অপশন গুলো দেখতে পারবেন।

এবার আপনার ডকুমেন্টস দিয়ে একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করা সম্পন্ন করতে পারবেন।

এক্ষেত্রে এখানে থাকা প্রথম বক্সে তার আইএমইআই অপশনটিতে আপনার ফোনের যে আইএমইআই নাম্বার রয়েছে, সে আই এম এ নাম্বারটি লিখে দিন।

এর পরবর্তী বক্সে আপনি যে ডকুমেন্ট প্রদান করতে চান, অর্থাৎ আপনার এনআইডি কার্ড এর ডকুমেন্টস, আপনার পাসপোর্ট ইত্যাদি এর মধ্যে যেকোন একটি ডকুমেন্টস তাদের কাছে দিয়ে দিন।

এবং একদম শেষ বক্সটি অর্থাৎ এখানে আপনার যে ইনফর্মেশন আপনি পূর্বে থেকে সিলেক্ট করে রেখেছিলেন, পূর্বের অপশনটিতে সেই ইনফরমেশনটা বসিয়ে দিন।

অর্থাৎ আইডি কার্ড হলে আইডি কার্ডের কপি এখানে বসিয়ে দিন।

যখনই আপনি এখানে থাকা সমস্ত অপশন ফিলাপ করে নিবেন, তখন একদম সর্বশেষে যে অপশনটি রয়েছে অর্থাৎ Add নামের অপশনটি উপরে ক্লিক করুন।

এবার আপনি যদি এই সমস্ত ডকুমেন্টগুলো বিটিআরসির কাছে পৌঁছে দিতে চান এবং আপনার ফোন রেজিস্ট্রেশন করা কাজ সম্পন্ন করতে চান, তাহলে একদম সর্বশেষ পর্যায়ে, “জমা দিন” নামের অপশনের উপরে ক্লিক করুন।

জমা দিন নামের অপশনের উপরে ক্লিক করার পরে এবার আপনার ইনফরমেশন গুলো জমা দেয়ার কাজ কনফার্ম করে নিতে হবে।

কনফার্ম করে নেয়ার জন্য “কনফার্ম” বাটনে ক্লিক করে দিলেই এগুলো বিটিআরসির কাছে সেন্ড হয়ে যাবে।

এবং এটি বিটিআরসির কাছে সেন্ড হয়ে যাওয়ার পরেও আপনার ফোন রেজিস্ট্রেশন করার কাজ শুরু হয়ে যাবে, এবং রেজিস্ট্রেশন করা হয়ে গেলে আপনার ফোন নাম্বারে এসএমএস করার মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে।

আর এটি হলো বিদেশ থেকে ক্রয় কৃত মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করা যে প্রসেস রয়েছে, সেই প্রসেস।

রেজিস্ট্রেশন কিভাবে চেক করবেন?

আপনি যে মোবাইল ফোনটি ক্রয় করেছেন কিংবা আপনি যে মোবাইল ফোনটি রেজিস্ট্রেশন করতে ইচ্ছুক, সেটি রেজিস্ট্রেশন হয়েছে কিনা, সেটি আপনি চাইলে একটি এসএমএস করার মাধ্যমে চেক করে নিতে পারবেন।

এসএমএস করার মাধ্যমে আপনি যদি মোবাইল ফোনে রেজিস্ট্রেশন স্ট্যাটাস চেক করে নিতে চান, তাহলে প্রথমত নিম্নলিখিত নিয়ম অনুযায়ী এসএমএস করে দিন।

প্রথমে *#06# ডায়াল করে আপনার মোবাইলের ১৫ ডিজিটের IMEI নম্বর বের করুন। এরপর মোবাইলের ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে টাইপ করুন KYD IMEI no. আর সেন্ড করুন ১৬০০২ নম্বরে।

যখনই আপনি উপরে উল্লেখিত নিয়ম অনুযায়ী এসএমএস করার কাজ সম্পন্ন করে নিবেন, তখন ফিরতি এসএমএসের মাধ্যমে আপনাকে জানিয়ে দেয়া হবে যে আপনার মোবাইল ফোনটি রেজিস্ট্রেশন করার কাজ সম্পন্ন হয়েছে কিনা।

আর, উপরে উল্লেখিত উপায়ে আপনি চাইলে অনলাইনের মাধ্যমে মোবাইল ফোন রেজিস্ট্রেশন করার কাজ সম্পন্ন করে নিতে পারবেন এবং রেজিস্ট্রেশন না করা থাকলে এটি পুনরায় করে নিতে পারবেন।

Also Read:

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five + 6 =

close
Scroll to Top
Share via
Copy link