ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারের নিয়ম | ইনস্টাগ্রাম থেকে আয় |

ইনস্টাগ্রাম হল একটি সোসিয়াল শেয়ারিং প্লাটফর্ম। যেখানে আপনি চাইলে বিশ্বব্যাপী যে কোনো বন্ধুবান্ধবের সাথে কানেক্টেড হতে পারেন।

এখানে মূলত বিভিন্ন সেলিব্রিটি লোকের আনাগোনা ঘটে যারা তাদের সিক্রেট পিকচার গুলো আপলোড দিয়ে থাকেন। তবে তারা এই সমস্ত কার্যকলাপ সম্পাদন করে টাকা আয় করেন ও বটে।

ইনস্টাগ্রাম ইন্টারনেট launch করে 6 অক্টোবর 2010 সালে। এবং তারপর ক্রমান্বয়ে এর জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পেতে থাকে; এটি বর্তমানে প্রায় 33 টি ভিন্ন ভিন্ন ভাষায় সাপোর্ট করে।

পুরো পৃথিবীতে বর্তমানে ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারীর সংখ্যা হল প্রায় 1 বিলিয়ন যা আপনি যদি সংখ্যায় প্রকাশ করেন তাহলে হবে- প্রায় 100 কোটি। বুঝতেই পারছেন নিশ্চয়ই ইনস্টাগ্রাম এর জনপ্রিয়তা সম্পর্কে।

আজকের এই পোস্টটিতে আমি ইনস্টাগ্রাম সম্পর্কে সম্পূর্ণ আলোচনা করব; যা অবশ্যই আপনার প্রয়োজনে আসবে এবং আপনাকে ইন্সটাগ্রাম এর বস বানাতে সহায়তা করবে।

 

ইনস্টাগ্রাম খোলার নিয়ম

 

আপনি যদি সম্পূর্ণ একটি নতুন ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট খুলতে চান; তাহলে আপনাকে কয়েকটি সিম্পল প্রসেস ফলো করতে হবে; একাউন্ট খোলার জন্য প্রথমে নিচের লিংকে ভিজিট করুন।

ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট খুলুন 

উপরে উল্লেখিত লিংকে যখন আপনি ক্লিক করবেন তখন আপনার সামনে একাউন্ট খোলার মত একটি ইন্টারফেস ওপেন হবে।

ইনস্টাগ্রাম খোলার নিয়ম
ইনস্টাগ্রাম খোলার নিয়ম

আপনি চাইলে ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট খোলার জন্য আপনার ফোন নাম্বার ব্যবহার করতে পারেন অথবা আপনার ইমেইল এড্রেস ব্যবহার করতে পারেন।

ইমেইল এড্রেস দেয়ার পরে এর নিচে যে সমস্ত বক্স গুলো রয়েছে সেগুলো যথাযথভাবে ফিলাপ করতে হবে। মনে রাখবেন- ইনফরমেশন গুলো যেন অবশ্যই আপনার রিয়্যাল ইনফর্মেশন হয়।

Full Name: এখানে আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর যে নাম আপনি দিতে চান; সেই নামটি লিখে ফেলুন।

Username: ইন্সটাগ্রাম এর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় হলো এই একাউন্টের ইউজার নেম; এই ইউজার নেইম মূলত আপনার অডিয়েন্সের সামনে পরিবেশিত হবে।

এক্ষেত্রে আপনাকে একটি ভালো এবং কম শব্দের মধ্যে ইউজারনেম দিতে হবে; আপনি চাইলে ইউজারনেম এর সঙ্গে বিভিন্ন স্পেশল চারাক্টার্স যুক্ত করতে পারেন।

Password: এবার আপনার অ্যাকাউন্টের প্রধান সিকিউরিটি অর্থাৎ আপনার পাসওয়ার্ড নির্বাচন করতে হবে; আপনি এখানে একটি স্ট্রং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন।

আপনি যদি ইমেইল অ্যাড্রেস বা ফোন নাম্বার দিয়ে ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট খুলতে দ্বিধাবোধ করেন, তাহলে আপনি চাইলেই আপনার ফেইসবুক একাউন্ট কানেক্ট করতে পারেন। ফেসবুক একাউন্ট কানেক্ট করলেই আপনার সমস্ত কাজ সম্পাদন হয়ে যাবে।

উপরে উল্লেখিত উপায়ে আপনি চাইলে খুব সহজেই একটি ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট খুলতে পারবেন। ইনস্টাগ্রাম খোলার নিয়ম আশা করি আপনি জেনে নিতে পেরেছেন।

 

ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারের নিয়ম

 

যখনই আপনি একটি ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট খুলে ফেলবেন; তখন আপনার প্রধান কাজ হবে ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারের নিয়ম সম্পর্কে সর্বশেষ অবহিত হওয়া।

ইনস্টাগ্রাম যেহেতু শুধুমাত্র ফটো শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম তাই এই প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করার আহামরি কোনো প্রসেস কিংবা নিয়ম নেই; আপনি সহজেই এই প্লাটফর্ম ব্যবহার করতে পারেন।

আপনি চাইলে তাদের যে ব্রাউজারের ওয়েবপেইজ ভিউ রয়েছে তার মাধ্যমে ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করতে পারেন অথবা তাদের অফিসিয়াল অ্যাপসগুলোর সহযোগিতা ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করতে পারেন।

ইনস্টাগ্রাম আপনি চাইলে অ্যান্ড্রয়েডের প্লে স্টোর এবং আইফোনের অ্যাপেল স্টোর থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন। ডাউনলোড করা হয়ে গেলে আপনার ইনফরমেশন দিয়ে লগইন করুন।

যখনই আপনি ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট লগইন করে নিবেন তখন এখানে অনেকগুলো অপশন দেখতে পারবেন। এখান থেকে আপনাকে (+)আইকনে ক্লিক করতে হবে নতুন কোন পোস্ট করার জন্য।

ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারের নিয়ম
ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারের নিয়ম

এই আইকনে ক্লিক করার পরে ইনস্টাগ্রাম সরাসরি আপনাকে আপনার গ্যালারিতে নিয়ে যাবে। এখানে আপনি চাইলে আপনার যেকোন ছবি-ভিডিও যুক্ত করতে পারেন ; যা আপনি একটা ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করতে পারেন।

যখনই আপনি আপনার ফটো আপলোড করে দিবেন, তখন আপনি চাইলে ফটো রিলেটেড একটি টাইটেল যুক্ত করতে পারেন। যে টাইটেল আকর্ষণীয় হলে যে কেউ আপনার ফটোতে কিংবা ভিডিও দেখার জন্য আপনার পোস্ট টিতে ক্লিক করবে।

এছাড়াও আপনি চাইলে এখানে লোকেশন যুক্ত করতে পারেন এবং আপনার বিভিন্ন বন্ধুবান্ধবকে আপনি tag করতে পারেন। এই সমস্ত কিছু সংযুক্ত করা হয়ে গেলে Share বাটনে ক্লিক করে পোস্টটি শেয়ার করতে পারেন।

ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারের নিয়ম
ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারের নিয়ম

আর ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারের যে ছোট নিয়ম রয়েছে তা আমি ওপরে আলোচনা করেছছি। আপনি চাইলে ঠিক একই নাম ব্যাবহার করার মাধ্যমে ইনস্টাগ্রামে ভিডিও পোস্ট করতে পারবেন।

 

ইনস্টাগ্রাম বায়ো

 

আর যদি আপনার ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল কে খুব বেশি আকর্ষণীয় করতে চান তাহলে আপনি চাইলে ইন্সটাগ্রাম এর যে বায়ো সেকশন রয়েছে; সেখানে ইনস্টাগ্রাম বায়ো যুক্ত করতে পারেন।

আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্টে বায়ো যুক্ত করতে হলে আপনি আপনার প্রোফাইল সেকশন এর উপরে ক্লিক করুন এবং তার পরে Edit Profile অপশনে ক্লিক করার পরে আপনার বায়ো যুক্ত করতে পারবেন।

ইনস্টাগ্রাম বায়ো
ইনস্টাগ্রাম বায়ো

আপনি চাইলে আপনার ইনস্টাগ্রাম বায়ো নিজের মনের মত করে দিতে পারেন। অথবা আপনি যদি অন্যান্য ইন্টারেস্টিং ইনস্টাগ্রাম বায়ো পেতে চান তাহলে নিচের আর্টিকেল ফলো করুন।

Instagram Bio 

উপরে উল্লেখিত আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনি চাইলে খুব সহজে আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর জন্য একটি বায়ো নির্বাচন করে নিতে পারেন।

 

ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ার

 

ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর মুল বিষয় বস্তু কিংবা কার্যকরী বিষয়টি হলো আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর ফলোয়ার। ইনস্টাগ্রামে পপুলারিটি বাড়াতে হলে আপনাকে অবশ্যই ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ার বৃদ্ধি করতে হবে।

ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর ফলোয়ার বাড়াতে হলে আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর সাথে একটিভিটি বৃদ্ধি করতে হবে। এবং সর্বদা আর্টিকেল পাবলিশ করতে হবে।

আপনি যখন খুব বেশি পরিমাণে ইউনিক আর্টিকেল এবং কনভারসেশন বৃদ্ধি করতে পারবেন, তখন আপনার ফলোয়ার আপনাআপনি বৃদ্ধি পাবে।

এছাড়াও আপনি চাইলে বিভিন্ন সেলিব্রেটি’দের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করতে পারেন কিংবা তাদের সাথে কনভারসেশন করতে পারেন। যাতে করে যে কেউ আপনার প্রোফাইল ভিজিট করবে এবং আপনাকে ফলো করবে।

এছাড়াও ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার বৃদ্ধি করার যে পরিপূর্ণ গাইড রয়েছে সেটি আপনি চাইলে এই পোস্টটির মাধ্যমে দেখে আসতে পারেন। যা আপনার একাউন্টে ফলোয়ার বৃদ্ধি করতে সহায়তা করবে।

 

ইনস্টাগ্রাম থেকে আয়

 

আপনি কি জানেন ইনস্টাগ্রাম থেকে সবচেয়ে বেশি ফলোয়ার যুক্ত ব্যক্তি কত টাকা আয় করে? বর্তমান সময়ে ইনস্টাগ্রাম থেকে প্রতি পোস্ট পাবলিশ করার জন্য Kylie Jenner আয় করেন বাংলাদেশি টাকায় 101,582,028.00 টাকা।

একটা পোষ্ট পাবলিশ করতে তার কতটা সময় ব্যয় হতে পারে? এক মিনিট, 5 মিনিট নাকি 10 মিনিট? সে যাই হোক এই মাত্র একটি পোস্টের জন্য সে প্রায় 101 কোটি টাকার চেয়েও বেশি টাকা আয় করে। ( শুনে আবার হার্ট অ্যাটাক করবেন না কিন্তু’)

আপনি ইনস্টাগ্রাম থেকে খুব বেশি পরিমাণে টাকা আয় করতে পারেন। তবে ইনস্টাগ্রাম থেকে আয় করার আগে আপনাকে অবশ্যই একটি ইন্টারেস্টিং প্রোফাইল তৈরি করতে হবে।

আপনার যে ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল থাকবে সেই প্রোফাইল প্রথমত পুরোপুরিভাবে কমপ্লিট করে নিবেন; আপনার ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল এর বায়ো; কভার ফটো কিংবা প্রোফাইল পিকচার ভালোভাবে মনের মত করে সাজিয়ে নিবেন।

আপনি যখন আপনার প্রোফাইল পুরোপুরি কমপ্লিট করে নিবেন তখন আপনার প্রধান লক্ষ্য হবে- ইনস্টাগ্রামের সাথে একটিভ থেকে আপনার ফলোয়ার বৃদ্ধি করা।

যখন আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর ফলোয়ার 10 হাজার কিংবা তার চেয়েও বেশি হবে তখন আপনি ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট ব্যবহার করে আয় করা শুরু করে দিতে পারবেন।

আপনি বিভিন্ন উপায়ে ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করে টাকা আয় করতে পারেন। এসমস্ত উপায় এর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এবং কার্যকরী কয়েকটি উপায় নিচে আলোচনা করা হলোঃ

  • লিংক শেয়ার।
  • স্পন্সরড বিষয়বস্তু পোস্ট।
  • স্থানীয় ব্যবসার প্রচারণা।
  • ডিজিটাল পণ্য বিক্রি ইত্যাদি।

আপনি উপরে উল্লেখিত উপায়ে ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করে আয় করতে পারেন। কিভাবে আপনি এই উপায় গুলো ব্যবহার করে আয় করবেন তার সংক্ষেপে আলোচনা নিচে করা হলোঃ

লিংক শেয়ার

আপনি যদি একটি জনপ্রিয় ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল থাকে; তাহলে আপনি এই প্রোফাইলের বায়ো সেকশনে কিংবা আপনার আর্টিকেল এর মধ্যে লিংক শেয়ার করে আয় করতে পারেন।

লিংক শেয়ার বলতে আপনি চাইলে বিভিন্ন শর্ট লিংক শেয়ার করতে পারেন। যেমন কোন একটি ফ্রী প্রডাক্ট আপনি আপনার অডিয়েন্সের সামনে তুলে ধরলেন এবং তার ডাউনলোড লিনক আপনি শর্ট লিংকের মাধ্যমে দিলেন।

ইন্টারনেটের জগতে এরকম অনেক লিংক শর্টনার ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলো দিয়ে আপনি যদি আপনার লিঙ্ক প্রচার করেন। তাহলে আপনি প্রচুর পরিমাণে ডলার আয় করতে পারবেন।

লিংক শর্টনার কিংবা লিংক তৈরি করে আয় করার মত যে সমস্ত জনপ্রিয় highest-paid ওয়েবসাইট রয়েছে সেগুলোর লিঙ্ক আমি নিচে দিয়ে দিলাম। এখান থেকে আপনি আপনার পছন্দের ওয়েবসাইট বেছে নিন।

উপরোক্ত ওয়েবসাইট ব্যবহার করে আপনার ডাউনলোড লিংক শর্টনার করে নিন; এবং প্রতি হাজার ভিউ এর জন্য মোটা অঙ্কের টাকা গুনে নিন।

স্পনসর্ড বিষয়ক পোস্ট

আপনার প্রোফাইল যদি খুবই জনপ্রিয় হয় তাহলে আপনি নিশ্চয়ই সমস্ত লিডিং কোম্পানিগুলোর স্পনসর্ড পোস্ট পেতে পারেন। যে পোস্টগুলো শেয়ার করে আপনি আয় করতে পারবেন।

এক্ষেত্রে আপনি কিছু সময়ের জন্য আপনার ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল এ ওয়েবসাইট পোষ্ট পাবলিশ করে রাখবেন; যার বিনিময়ে আপনি টাকা আয় করতে পারবেন।

স্থানীয় ব্যবসার প্রচারণা

আপনার যেকোনো একটি বিজনেস কোম্পানি থাকে এবং আপনি যদি ওই কোম্পানির প্রচারণা আপনার অডিয়েন্সের সামনে করতে চান তাহলে আপনি ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট ব্যবহার করতে পারেন।

এতে করে আপনার কাস্টমার এর সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে এবং আপনারা যে বিজনেস কিংবা ব্র্যান্ড রয়েছে তার পপুলারিটি দিন দিন বৃদ্ধি পাবে; এবং এটি জনপ্রিয় হয়ে উঠবে।

ডিজিটাল পণ্য বিক্রি

আপনি চাইলে অন্যান্য কোম্পানি বা ওয়েবসাইট হয়েছে সমস্ত ডিজিটাল পণ্য রয়েছে সেগুলো আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর মাধ্যমে বিক্রি করে কমিশন আদায় করে নিতে পারেন।

এ ক্ষেত্রে প্রত্যেকটি ডিজিটাল প্রোডাক্ট বিক্রি করার পরিবর্তে আপনি বেশ কিছু কমিশন পাবেন। তবে অবশ্যই যে কোন প্রোডাক্ট বিক্রি করার আগে আপনার প্রোফাইল রিলেটেড কোন কিছু শেয়ার করুন।

আর এগুলোকে ইউজার ফ্রেন্ডলি হিসেবে গড়ে তুলুন; কারণ এ সমস্ত প্রোডাক্ট গুলো যদি আপনার ইউজার এর কাছে বিরক্তিকর আমি মনে হয় তাহলে তারা আপনাকে আনফলো করতে বাধ্য হবে।

তবে আপনি যদি ইউজার ফ্রেন্ডলি ভাবে কোন ডিজিটাল প্রোডাক্ট আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর মাধ্যমে প্রমোট করেন তাহলে আপনি খুব বেশি পরিমাণে টাকা আয় করতে পারবেন।

ইনস্টাগ্রাম থেকে ছবি ডাউনলোড

 

ইনস্টাগ্রাম একাউন্টে যদি আপনার অন্য কোন প্রোফাইলে থাকা ছবি পছন্দ হয় তাহলে আপনি চাইলে এটি পুরোপুরি এইচডি কোয়ালিটি তে ডাউনলোড করে আপনার ফোনে সেভ করতে পারেন।

ইনস্টাগ্রাম থেকে ছবি ভিডিও ডাউনলোড করার জন্য আপনাকে প্রথমে ইনস্টাগ্রাম অ্যাপস এ প্রবেশ করতে হবে; কিংবা ইনস্টাগ্রামে ব্রাউজার ব্যবহার করে তাতে প্রবেশ করতে হবে।

যখনই আপনি ইনস্টাগ্রামের প্রবেশ করবেন তখন আপনার পছন্দের ছবি কিংবা ভিডিও রয়েছে তার উপরে যে 3 ডট মেনু রয়েছে তাতে ক্লিক। এবং ওই ছবি কিংবা ভিডিও এন্ড লিংক কপি করে নিন।

ইনস্টাগ্রাম থেকে ছবি ডাউনলোড
ইনস্টাগ্রাম থেকে ছবি ডাউনলোড

যখনই আপনি লিংক কপি করে নিবেন তখন আপনি বিভিন্ন ফ্রী টুলস এর সহযোগিতায় ওই ছবি কিংবা ভিডিও ডাউনলোড করতে পারেন। এবং আপনার ফোনে সেভ করে রেখে দিতে পারেন।

ছবি কিংবা ভিডিও ডাউনলোড করার জন্য যে সমস্ত ফ্রী টুলস রয়েছে সেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য একটি লিঙ্ক আমি নিচে দিয়ে দিচ্ছি; আপনি এই লিংকটিতে প্রবেশ করুন।

ইনস্টাগ্রাম ছবি ভিডিও ডাউনলোড  

যখনই আপনি উপরুক্ত লিঙ্কে প্রবেশ করবেন তখন আপনি এখানে যে ছবি কিংবা ভিডিও ডাউনলোড করতে চান সেটি পেস্ট করে দিন।

ইনস্টাগ্রাম থেকে ছবি ডাউনলোড
ইনস্টাগ্রাম থেকে ছবি ডাউনলোড

আর এভাবেই আপনি চাইলে খুব সহজেই ইনস্টাগ্রাম থেকে যেকোনো ছবি কিংবা ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। এছাড়াও আরো যে সমস্ত ফ্রী টুলস রয়েছে সেগুলো আপনি ব্যবহার করতে পারেন।

 

ইনস্টাগ্রাম আইডি ডিলিট

 

ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট যদি আপনার কাছে অকার্যকর মনে হয় তাহলে আপনি চাইলে ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট ডিলিট করে দিতে পারেন।

ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট ডিলিট করার জন্য প্রথমে আপনাকে ইনস্টাগ্রামের একটি লিংকের সহযোগিতা নিতে হবে; এবং তারপরে আপনার একাউন্ট ডিলিট করার কাজ সম্পাদন করতে হবে।

ডিলিট করুন

যখনই আপনি লিংকে ভিজিট করবেন তখন আপনি কেন এই ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট ডিলিট করতে চান সেই সংক্রান্ত বিভিন্ন ডিটেলস তাদেরকে জানিয়ে দিবেন।

এরপরে যখন আপনি আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এর পাসওয়ার্ড দিয়ে দিবেন তখন আপনি ” permanently Delete my account” ক্লিক করে আপনার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট পার্মানেন্টলি ডিলিট করে দিতে পারবেন।

ইনস্টাগ্রাম আইডি ডিলিট
ইনস্টাগ্রাম আইডি ডিলিট

আর ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট ডিলিট করার যে সিম্পল প্রসেস রয়েছে তা আমি উপরে আলোচনা করেছি; আশাকরি উপরের উল্লেখিত উপায়ে আপনি ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট ডিলিট করতে পারবে।

Leave a Comment

11 + 18 =