ফ্রী ফায়ার গেম ডাউনলোড এবং হ্যাক করার নিয়ম |

ফ্রী ফায়ার গেমটি বর্তমানে বিশ্বব্যাপী সমস্ত তরুণ-তরুণীদের কাছে জনপ্রিয় একটি নাম।  যা ইতিমধ্যে সবার মনে ভালোভাবে সাড়া জাগাতে সক্ষম হয়েছে।

কারণ আপনি যদি ফ্রি ফায়ার গেইমের একজন প্রো প্লেয়ার হতে চান; তাহলে আপনাকে সমস্ত সিক্রেট বিষয় গুলো সবার আগে শিখতে হবে এবং এগুলোর প্র্যাকটিক্যালি করতে হবে।

আর আজকের এই পোস্টটিতে ফ্রী ফায়ার সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য গুলো আপনার অবশ্যই জানা দরকার সেগুলো সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করব।

 

ফ্রী ফায়ার কি?

 

খুবই স্বল্প সময়ে তরুণ-তরুণীদের মাঝে জনপ্রিয় হয়ে ওঠা যে সমস্ত গেম গুলো রয়েছে সেগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি হলো গ্যারেনা ফ্রী ফায়ার।

এটি একটি Battle Royale game, যেখানে মূলত ম্যাচটি শুরু হবে আপনি আপনার বন্ধু-বান্ধব এবং বিশ্বের অন্যান্য প্রান্ত থেকে যে সমস্ত প্লেয়ার এই গেমটি খেলতে এসেছে তাদের মধ্যে থেকে 100 জন অথবা 60 জন।

এবং গেমটিতে ওই ব্যক্তি জয়লাভ করবে যে সবাই মরে যাওয়ার পরেও সে শেষ অব্দি গেমটিতে টিকে থাকবে, এবং তার জন্য পুরস্কার হিসেবে থাকবে চিকেন ডিনার:)

বর্তমানে ফেসবুকে এই গেমটি Rating হলো 4.6/5 যা নিঃসন্দেহে যেকোনো গেমপ্লে আকর্ষণীয় এবং ভালো হতে পারে , তার একটি উদাহরণ।

এছাড়াও আপনি এই গেমটির রেটিং এবং অন্য সমস্ত প্লেয়াররা এর সম্পর্কে কি বলছে সেই সম্পর্কে নিচের দেয়া লিঙ্ক থেকে জেনে আসতে পারেন।

BlueStacks

আশাকরি উপরোক্ত রেটিং এর সহায়তায় আপনি এটা বুঝতে সক্ষম হবেন যে আপনি যে গ্যারেনা ফ্রী ফায়ার গেমটি খেলতে যাবেন বা খেলতে ইচ্ছুক এই গেইমটি অন্যদের মনে কি রকম সাড়া জাগিয়েছে।

 

ফ্রী ফায়ার কে আবিষ্কার করেছে?

 

যখনই আপনি নতুন করে একটি গেম খেলতে যাবেন তখন নিশ্চয়ই এই গেমটি কে আবিষ্কার করেছে সে সম্পর্কে জানার আগ্রহের শেষ থাকবে না।

ফ্রী ফায়ার কোন দেশ তৈরি করেছে? ফ্রী ফায়ার কোন দেশের গেম? এ সম্পর্কীয় হয়তো আপনার জানার আগ্রহের শেষ নেই, এবং আপনি আসলে জানতে চান ফ্রী ফায়ার কে আবিষ্কার করেছে।

আপনি মূলত যে ফ্রী ফায়ার গেমটি খেলতে ইচ্ছুক এবং আপনি এই সম্পর্কে জানতে চান যে ফ্রী ফায়ার গেমটি কে আবিষ্কার করেছে, তাহলে তার সঠিক উত্তর হলঃ “সিঙ্গাপুর

ফ্রী ফায়ার কে তৈরি করেছে এর সঠিক উত্তর হলঃ ফ্রী ফায়ার তৈরি করেছে সিঙ্গাপুর এর কিছু ডেভলপার, যাদের অক্লান্ত পরিশ্রমে আমরা এই গেমটির স্বাদ উপভোগ করতে পারছি।

 

ফ্রি ফায়ার গেম খেলার নিয়ম:

 

আপনি যখন একটি ফায়ার গেম সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে যাবেন তখন আপনি নিশ্চয়ই এই গেমটি খেলতে ইচ্ছুক হয়ে যাবেন, আসলেই ব্যাপারটা তাই, কারণ গেমটি নিঃসন্দেহে একটি ভালো গেইম এর অধীনে রয়েছে।

ফ্রি ফায়ার গেম খেলার নিয়ম মূলত ভিন্ন ভিন্ন ভিন্ন ডিভাইসের জন্য ভিন্ন রকমের, এক্ষেত্রে আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করেন তাহলে এক রকম ভাবে খেলতে হবে এবং পিসি বা ল্যাপটপে অন্য রকম ভাবে খেলতে হবে।

 

এন্ড্রয়েড ফোনে ফ্রি ফায়ার গেম খেলার নিয়ম:

 

আপনি যদি এন্ড্রয়েড ফোনে ফ্রি ফায়ার গেমটি খেলতে চান তাহলে আপনাকে প্রথমে গুগল প্লে স্টোরে চলে যেতে হবে এবং তারপর এখান থেকে গেমটি ডাউনলোড করে নিতে হবে।

এছাড়াও আপনি চাইলে ডাইরেক্টলি নিচের দেয়া লিঙ্ক থেকে এই গেমটি ডাউনলোড করে নিতে পারেন,

Free Fire প্লে স্টোর

যখনই আপনি গুরুত্ব লিংকে ভিজিট করবেন তখন আপনি ডাইরেক্টলি গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে এই গেমটির এক্সেস নিতে পারবেন।

তবে আপনি যদি এই গেমটি ডাউনলোড করা ছাড়াও এর কিছু গেমপ্লে দেখে নিতে চান এবং গেমটির লাইভ খেলতে চান তাহলে যখনই আপনি উপরুক্ত লিংকে ভিজিট করবেন তখন “Try It” নামের যে বাটন রয়েছে এতে ক্লিক করুন।

ফ্রি ফায়ার গেম খেলার নিয়ম

যখনই আপনি try it এর উপরে ক্লিক করবেন তখন এই গেমটা খেলতে পারবেন, এটি আপনাকে গেইমপ্লে সম্পর্কে মোটামুটি রকমের ধারণা দেবে।

আর এন্ড্রয়েড ফোনে ফ্রি ফায়ার গেম খেলার নিয়ম মূলত উপরে উল্লেখিত নিয়মটি, এক্ষেত্রে আপনাকে শুধুমাত্র গেমটি ডাউনলোড করতে হবে এবং তার পরে এটি খেলতে হবে।

 

পিসি বা ল্যাপটপে ফ্রী ফায়ার খেলার নিয়ম:

 

আপনি যদি পিসি বা ল্যাপটপে ফ্রী ফায়ার গেমটি খেলতে চান তাহলে আপনাকে প্রথমে ডাউনলোড করে নিতে হবে, ডাউনলোড করার জন্য নিচের দেয়া লিঙ্ক ব্যবহার করতে পারেন।

 

Free Fire Pc 

 

গেমটি ডাউনলোড করার জন্য নিচের দেয়া যে স্কিনশট রয়েছে এখানে দেখানো স্টেপগুলো ভালভাবে দেখে শুনে কাজ করে ডাউনলোড করুন।

ফ্রী ফায়ার pc
ফ্রী ফায়ার pc

 

আর মূলত যখনই আপনি গেমটি ডাউনলোড করে নিবেন তখন এটি আপনার ল্যাপটপ বা পিসি তে খেলতে পারবেন, ফ্রি ফায়ার গেম খেলার নিয়ম এ ছাড়া আর কিছুই নয়।

ফ্রী ফায়ার গেম ডাউনলোড

 

ফ্রী ফায়ার গেম ডাউনলোড করবো কিভাবে? ফ্রী ফায়ার গেম ডাউনলোড করার নিয়ম আসলে কি? ফ্রী ফায়ার গেম ডাউনলোড করতে চাইলে এই আর্টিকেল কন্টিনিউ করুন।

 

এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য ফ্রী ফায়ার গেম ডাউনলোড করবো কিভাবে?

 

আপনার যদি এন্ড্রয়েড ফোন থাকে এবং আপনি যদি এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য ফ্রি ফায়ার গেম ডাউনলোড করতে চান তাহলে নিচের দেয়া যে সমস্ত লিংক গুলো রয়েছে সেগুলো সাহায্য নিতে পারেন।

আশাকরি উপরে উল্লেখিত লিংকগুলোর সহায়তায় আপনি খুব সহজে আপনার এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য ফ্রি ফায়ার গেম ডাউনলোড করতে পারবেন।

 

ফ্রী ফায়ার গেম ডাউনলোড pc:

 

আপনি যদি আপনার পিসির জন্য ফ্রি ফায়ার গেম ডাউনলোড করতে চান; তাহলে যে সমস্ত ওয়েবসাইটগুলোর সহায়তা নিতে পারেন সেগুলো লিঙ্ক আমি নিচে দিয়ে দিচ্ছি।

আপনি খুব সহজে এই ওয়েবসাইটগুলো সহায়তায় মাত্র কয়েকটি ক্লিকের মাধ্যমে আপনার পছন্দের গেম আপনার পিসিতে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন, এবং তারপরে এটি খেলতে পারবেন।

এছাড়াও আপনি যদি এই গেমটি ডাউনলোড করার পরিপূর্ণ যে গাইডলাইন রয়েছে সেই সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা যদি দেখতে চান; তাহলে নিচে দেয়া আর্টিকেল দেখে আসতে পারেন।

গ্যারেনা ফ্রী ফায়ার গেমটি ডাউনলোড করুন|

আশা করি; উপরোক্ত আর্টিকেল এবং লিংকগুলো সহায়তায় আপনি খুব সহজেই ফ্রী ফায়ার গেম ডাউনলোড করবো কিভাবে এই সম্পর্কিত সমস্ত বিষয়বস্তু জেনে গেছেন।

 

ফ্রী ফায়ার নিক নেম

 

আপনি যখনই ফ্রি ফায়ার গেম ডাউনলোড করবেন এবং তার পরে যখন আপনি এটা খেলতে চাইবেন তখন আপনাকে অবশ্যই আপনার ফ্রি ফায়ার গেম এর জন্য একটি নিকনেম সিলেক্ট করে নিতে হবে।

আপনাকে অবশ্যই এই গেমটি আকর্ষণীয় করে গড়ে তুলতে হবে; যাতে করে যে কারো ফ্রী ফায়ার নিক নেম এর সাথে আপনার নামটি মিলে না যায়।

ফ্রী ফায়ার স্টাইলিশ নেম আপনি ব্যবহার করতে পারেন, ফ্রী ফায়ার স্টাইল নেম ব্যবহার করার কারণে অন্যান্যদের তুলনায় আপনার নাম আরও বেশি আকর্ষণীয় দেখাবে।

ফ্রী ফায়ার এর জন্য যে সমস্ত স্টাইলিশ নেম রয়েছে সেগুলোর পরিপূর্ণ লিস্ট আপনি যদি নিতে চান, তাহলে নিচের দেয়া আর্টিকেল এর সহযোগিতা নিতে পারেন..

 

অসম্ভব সুন্দর স্টাইলিশ নাম ফ্রি ফায়ার গেম এর জন্য|

 

আশা করি এই আর্টিকেল দেখলে আপনি খুব সহজে আপনার ফ্রি ফায়ার গেম এর জন্য একটি স্টাইল নেম চয়েজ করে নিতে পারবেন, এবং এটি আপনার গেমের মধ্যে সেভ করে নিতে পারবেন।

আপনার কাছে যদি ফ্রী ফায়ার নিউ নেম থাকে তাহলে আপনি যদি এটিকে ফ্রী ফায়ার স্টাইলিশ নাম এ পরিণত করতে চান তাহলে আপনি তা করতে পারবেন।

যে কোন সাধারণ নামকে ফ্রী ফায়ার স্টাইলিশ নাম এ পরিণত করার জন্য আপনি চাইলে নিচের দেয়া লিঙ্ক গুলো সহায়তা নিতে পারেন।

আপনি যখনই উপরোক্ত ওয়েবসাইটগুলোতে ভিজিট করবেন; তখন আপনি এখানে সাধারন কোন একটি নাম লেখার পর এই নাম ফ্রী ফায়ার স্টাইলিশ নাম এ পরিণত করতে পারবেন।

ফ্রী ফায়ার স্টাইলিশ নাম
ফ্রী ফায়ার স্টাইলিশ নাম

আশা করি উপরোক্ত ওয়েবসাইটগুলোর সহায়তায় আপনি খুব সহজেই ফ্রী ফায়ার স্টাইলিশ নাম নিজে থেকে তৈরি করতে পারবেন, এবং এগুলো আপনার গেমের মধ্যে যুক্ত করতে পারবেন।

 

ফ্রী ফায়ার ভিডিও

 

গেম বলুন অথবা যে কোন কিছু এই বিষয়গুলোকে আমরা পুরোপুরি ভাবে বুঝতে পারি; যখন ওই রিলেটেড কোন একটি ভিডিও আমাদের মধ্যে উপস্থাপিত হয়।

ঠিক একই রকমভাবে ফ্রী ফায়ার ভিডিও দেখার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই এই গেমটি সম্পর্কে বিস্তারিত ভাবে বুঝতে পারেন, এজন্য ফ্রী ফায়ার ভিডিও উল্লেখযোগ্য।

ভিডিও দেখার জন্য আপনি চাইলে ইউটিউব এর সহায়তা নিতে পারেন, এক্ষেত্রে যখনই আপনি ইউটিউবে গিয়ে “Free Fire Video” লিখে সার্চ করবেন তখন এখানে অনেকগুলো সার্চ রেজাল্ট পেয়ে যাবেন।

ফ্রী ফায়ার ভিডিও
ফ্রী ফায়ার ভিডিও

উপরে উল্লেখিত উপায়ে আপনি ফ্রী ফায়ার ভিডিও দেখতে পারবেন, আর এটি মূলত সর্বশ্রেষ্ঠ উপায় ভিডিও দেখে এই গেমটি ভালভাবে বুঝার জন্য।

 

ফ্রি ফায়ার গেম হ্যাক

 

ফ্রি ফায়ার গেম হ্যাক করা মূলত অবৈধ একটি পন্থা, আপনি যদি ফ্রি ফায়ার গেম কে হ্যাক করেন, তাহলে আপনার পূর্বের যে legit একাউন্ট রয়েছে সেটি ban হয়ে যেতে পারে।

আপনি যদি এই গেমটি হ্যাক করতে চান এবং এটি পুরোপুরি ভাবে হ্যাক করে ফ্রী ফায়ার হ্যাকার দের মত খেলতে চান তাহলে নিচের আর্টিকেল দেখে আসুন।

ফ্রী ফায়ার হ্যাক

আশাকরি উপযুক্ত আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনি ফ্রি ফায়ার গেম হ্যাক করে ফেলতে পারবেন; এবং বন্ধুদের সাথে খুব বেশি পরিমাণে মজা নিতে পারবেন।

ফ্রি ফায়ার গেম হ্যাক
ফ্রি ফায়ার গেম হ্যাক

ফ্রি ফায়ার গেম হ্যাক করে কিভাবে? ফ্রি ফায়ার গেম হ্যাক করার নিয়ম সম্পর্কে আশা করি আপনি পরিপূর্ণ জ্ঞান অর্জন করতে পেরেছেন; আপনি এখন ফ্রি ফায়ার গেম ডায়মন্ড হ্যাক করতে পারবেন।

 

ফ্রি ফায়ার খেলা কি হারাম?

 

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা এই সম্পর্কে জানতে চান যে ফ্রী ফায়ার খেলা কি হারাম? যেহেতু আমি কোন ইসলামিক স্কলার বা খুব ইসলামিক জ্ঞান সম্পন্ন ব্যক্তি ও নয় তাই এ সম্পর্কে আমাকে বিষয়গুলোকে কালেক্ট করতে হয়েছে।

আমি যতটুকু জেনেছি; মোবাইল গেম গুলো খেলা হারাম, কারণ এই গেমগুলো আংগুল দিয়ে খেলা হয়, আর শুধুমাত্র আংগুল দিয়ে যে সমস্ত গেমগুলো খেলা হয় সেগুলো ইসলামে নিষিদ্ধ রয়েছে যেমন দাবা ,লুডু, জুয়া ইত্যাদি।

তাছাড়া ওই গেম গুলো আপনার অহেতুক সময় নষ্ট করার জন্য এবং আপনাকে বাজে অভ্যাসে দিকে ধাবিত করার জন্য যথেষ্ট, এছাড়াও অনেক সময় দেখা যাবে এই গেমগুলো অহেতুক খেলার কারণে আপনার নামাজ কাজা হয়ে যাবে।

এর কারণে যে সমস্ত গেমসগুলো খেলার মাধ্যমে শারীরিক কসরত হয় না, এগুলো আপনার অলসতার সঙ্গী হয় সেই গেম গুলো খেলা থেকে বিরত থাকা দরকার।

আশাকরি উপরে উল্লেখিত পুরোপুরি গাইডলাইনস আপনার কাজে আসবে; এবং আপনি ফ্রী ফায়ার সম্পর্কে অন্যরকম একটি ধারণা উপলব্ধি করতে পারবেন।

­

Leave a Comment

five × 3 =