গ্রাফিক্স ডিজাইন কি? কিভাবে করবেন গ্রাফিক ডিজাইন?

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি? কিভাবে করবেন গ্রাফিক ডিজাইন?(A-Z Guide)

 

গ্রাফিক্স ডিজাইন সম্পর্কে আমাদের জানার আগ্রহের সীমা নেই, আমরা যারা ইন্টারনেট এর সাথে সম্পৃক্ত রয়েছে তারা হয়তো অনেকেই এটার এর নাম শুনেছেন।

 

গ্রাফিক্স ডিজাইন আসলে কি? এবং আপনি কিভাবে খুব সহজেই ডিজাইন শিখতে পারবেন? এর মার্কেটপ্লেসে আসলে বর্তমানে কতটা উচ্চ? সেই সম্পর্কে পুরোপুরি জানবার জন্য আজকের এই পোস্ট টি শেষ পর্যন্ত দেখুন।
 

গ্রাফিক্স ডিজাইন কাকে বলে?

 
গ্রাফিক্স ডিজাইন মূলত হলো যেকোনো ব্যবহারকারীর মাথার মধ্যে ঘোরাফেরা থাকা সমস্ত কল্পনাকে বাস্তবে রূপ দেয়া, মূলত কল্পনা গুলোকে বাস্তবে রূপ দেয়ার যে মাধ্যমগুলো রয়েছে সেগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি হলো গ্রাফিক্স ডিজাইন।
 
এই গ্রাফিক্স ডিজাইন এর মাধ্যমে আপনার মনের মধ্যে বর্তমান সময়ে যে সমস্ত বাঁধভাঙ্গা আইডিয়াগুলো বিরাজমান রয়েছে সেই সমস্ত বাঁধভাঙ্গা আইডিয়াগুলো কল্পনার জমানো পথ পাড়ি দিয়ে বাস্তবে রূপ দিতে পারেন।
 
গ্রাফিক্স ডিজাইনে রয়েছে অভিনব মার্কেট প্রাইস, যার উচ্চসীমা ব্যবহার এবং অধিক বেতনের জন্য এদিকে সবাই মোটামুটি ঝুঁকে পড়ছে এবং নতুন করে এটিকে শিখার চেষ্টা করছে।
 

গ্রাফিক্স ডিজাইন করে কত টাকা আয় করা যায়?

 
আপনার যদি ডিজাইন করার পিছনে অর্থ থাকে একটাই আর সেটা হল এর মাধ্যমে আপনি আয় করতে পারবেন তাহলে আপনি জেনে নিতে পারেন বর্তমান সময়ে ডিজাইনারদের বেতন কত হতে পারে?
 
বর্তমান সময়ে অনলাইন মার্কেটপ্লেসে যে সমস্ত কাজের সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দেয়া হয় সেগুলোর মধ্যে থেকে আপনি যদি গুরুত্বের দিক বিবেচনা করেন তাহলে এটি রয়েছে একটি উঁচু স্থানে।
 
যারা প্রফেশনাল লেভেলের গ্রাফিক ডিজাইনার তারা বিভিন্ন ধরনের প্রজেক্ট পেতে পারেন ফিভার কিংবা আপওয়ার্ক এর মাধ্যমে, আর এই সমস্ত প্রজেক্টগুলো তাদের ভাগ্য পরিবর্তন করে দিতে পারে।
 
ব্যাপারটা এরকম যে আপনি যদি কোন ফ্রিল্যান্সার হওয়া অর্থাৎ বৃত্তের বাইরে চিন্তা করতে চান তাহলে আপনি ফিভার আপওয়ার্ক এর মত যে সমস্ত ফ্রিল্যান্সিং প্ল্যাটফর্ম রয়েছে সে সমস্ত প্ল্যাটফর্ম এর সাথে সম্পৃক্ত হতে পারেন।
 
এখানে আপনি বিভিন্ন ক্লায়েন্টের দেয়া মনোভাবকে গ্রাফিক্স ডিজাইন এ পরিণত করে প্রতিমাসে কম করে হলেও কয়েক হাজার ডলার আয় করে নিতে পারেন।
 
যার মূল্য হবে কমপক্ষে 1 থেকে 2 লাখ, অথবা আপনি বৃত্তের বাইরে চিন্তা করা ছাড়াও কোন একটি প্রতিষ্ঠানের সাথে সম্পৃক্ত হতে পারেন এবং ফ্রিল্যান্সিং-এ নিয়ে নিতে পারেন আপনার অবসর সময়ের টাকা তৈরীর কারিগরি হিসাবে।
 
আপনি যদি বৃত্তের বাইরে চিন্তা করে কোনো একটি স্বাধীন পরিবেশে ডিজাইন করেন অর্থাৎ কোন একটি কোম্পানির সাথে সম্পৃক্ত হোন তাহলে কম করে হলেও আপনি 70 থেকে 80 হাজার টাকা বেতনে কাজ করতে পাবেন। 
 
তবে আপনি এত হিউজ পরিমান টাকা যদি আয় করতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই কিছু শর্তের মধ্যে পড়তে হবে সেগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো আপনাকে প্রফেশনাল ডিজাইনার হতে হবে।
 

গ্রাফিক্স ডিজাইন ফ্রিল্যান্সিংঃ

 
আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে সাথে সম্পৃক্ত হন তাহলে আপনি লক্ষ্য করবেন যে এখানে থাকা যে সমস্ত কাজ রয়েছে এগুলোর মধ্যে বড় একটি জায়গা দখল করে রয়েছে গ্রাফিক্স ডিজাইন। 
 
গ্রাফিক্স ডিজাইন এর চাহিদা দিন দিন খুবই বেড়ে চলেছে যার ফলস্বরূপ আপনি দেখতে পারবেন বিভিন্ন ধরনের ফ্রিল্যান্সিং প্লাটফর্মে অন্যান্য ক্লায়েন্টের প্রতি ঝুঁকে পড়া।
 
আপনি যদি ডিজাইন সম্পর্কে খুব বেশি ধারণা রাখেন এবং এটি সম্পর্কে আপনি যদি মাস্টার লেভেলের স্কেল তৈরি করে নেন তাহলে ফ্রিল্যান্সিং প্লাটফর্ম আপনি যে কাজগুলো পাবেন এগুলো দিয়েই আপনার জীবন পুষিয়ে নিতে পারবেন।
 
এখানে থাকায় থেকে একটি প্লাটফর্মে আপনি যদি প্রত্যেকটি কাজের জন্য 20 ডলার করে নেন তাহলে 100 কাজ আপনার কায়েন্টকে করে দেয়ার মাধ্যমে কমপক্ষে দুই হাজার ডলার নিয়ে নিতে পারেন।
 
আর এই 100 টি কাজ করতে আপনার এক মাস সময় লাগবে না আপনি যদি এক্সট্রিম লেভেলের ডিজাইনার হন এবং আপনার মাস্টার স্কিল থাকে।
 
মূলত কথা একটাই ফ্রিল্যান্সিং প্লাটফর্মে এর কাজ আপনি খুব বেশি পরিমাণে পাবেন এবং আয় করার ক্ষেত্রে এটি গুরুত্বপূর্ণ একটি স্থান দখল করে নিয়েছে।
 

গ্রাফিক্স ডিজাইন কিভাবে শিখব?

 
এই সম্পর্কে এত বেশি জয় গান শোনার পরে আপনি হয়তো এবার ডিজাইন শেখার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন, কিভাবে শিখবেন গ্রাফিক্স ডিজাইন কিভাবে এটিকে স্কিল হিসাবে করে নিতে পারবেন নিজের মনের মত করে?
 
গ্রাফিক্স ডিজাইন মূলত কোন একটি সীমাবদ্ধ টপিক এর উপরে পড়ে না, গ্রাফিক্স ডিজাইন এর মধ্যে রয়েছে অনেকগুলো পর্যায় বা কাজ করার ধাপ।
 
আপনি মূলত প্রফেশনাল টাইপের ডিজাইনার তখনই হতে পারবেন যখন আপনি ঐ সমস্ত ধাপগুলোর সফলতার সহিত শিখে নিতে পারবেন।
 
আর আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে চান তাহলে আপনি মূলত টাকা ছাড়া গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে হলে ফ্রিতে কিছু টেকনিক অবলম্বন করতে পারেন।
 
কোন রকমের টাকা খরচ করা ছাড়া গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার ক্ষেত্রে আপনি বিভিন্ন ধরনের ভিডিও টিউটরিয়াল দেখতে পারেন যেগুলো ইংরেজি ফরমেটে এবং পুরোপুরি কার্যকরী ডিজাইন শেখার ক্ষেত্রে।
 
এছাড়াও অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যারা গ্রাফিক্স ডিজাইন আপনাকে ফ্রিতে শিখাবে এজন্য আপনাকে শুধুমাত্র রেজিস্ট্রেশন করতে হবে এবং তাদের দেয়া ধাপগুলোকে যথাযথভাবে পূরণ করতে হবে।
 
ফ্রিতে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার এবং অনলাইনে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার পরে সার্টিফিকেট পাওয়ার জন্য যে সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ সাইট রয়েছে সেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি লিঙ্ক আমি নিচে দিয়ে দিচ্ছি।
 
আর আপনি যদি অনলাইনের মাধ্যমে ফ্রিতে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে চান এবং আপনি যেই ডিজাইন শিখেছেন এর একটি সার্টিফিকেট নিতে চান তাহলে নিচের প্ল্যাটফর্ম গুলো ব্যবহার করতে পারেন।
 
এগুলো শতভাগ ফ্রি এবং আপনি যখনই এতে রেজিস্ট্রেশন করবেন তখন আপনি ক্লাস করার সম্পর্কে সমস্ত কিছু জেনে নিতে পারবেন।
 
প্রত্যেকটি ওয়েবসাইটে স্টুডেন্ট এর সংখ্যা প্রায় কয়েক লক্ষাধিক যাদের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে কাজ করা নিশ্চয়ই ভাগ্যের ব্যাপার।
 
 
আর আপনি উপরে উল্লেখিত ওয়েবসাইটগুলো থেকে ফ্রিতে এবং পেইড ভার্সন এ সমস্ত কিছু আনলক করার মাধ্যমে আপনি ডিজাইনের কাজ শিখে নিতে পারবেন।
 
ভিডিওঃ
 
আপনি যদি ভিডিও দেখার মাধ্যমে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখে নিতে চান তাহলে কিছু জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিও প্লেলিস্ট রয়েছে যে সমস্ত ভিডিও প্লেলিস্ট গুলোর মাধ্যমে আপনি পুরোপুরি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে পারবেন।
 
এটি শিখার জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় কিছু ভিডিও প্লেলিস্ট এর লিঙ্ক আমি নিচে দিয়ে দিচ্ছি আপনি এগুলো দেখে নিতে পারেন।
 
 
আশাকরি উপযুক্ত ভিডিও প্লেলিস্ট এবং ফ্রী ডিজাইন শেখার সাইটগুলো আপনার কাজ কে আরও বেশি এগিয়ে নিয়ে যাবে, এবং আপনি একজন সফল ডিজাইনার হতে পারবেন।
 

গ্রাফিক্স ডিজাইন বই pdf download

 
আপনি যদি চান একদম সহজ ভাষায় বই পড়ে কিংবা পিডিএফ এর ভাষায় ডিজাইন শিখে নিতে তাহলে আপনি এই পোস্টটি থেকে ফ্রিতে কয়েকটি  ডিজাইনে বই ডাউনলোড করে নিতে পারেন।
 
এছাড়াও আপনি যদি ইংরেজি না বুঝেন বাংলা ভাষায় নিজের মনের মত করে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে চান তাহলে এই পিডিএফ ফরমেট এর বইগুলো আপনার খুব কাজে আসবে।
 
আপনি চাইলে নিজের মাতৃভাষায় আপনার পছন্দের কাজটি শিখে নিতে পারবেন এবং হয়ে উঠতে পারবেন এ সম্পর্কে একজন মাস্টার স্কেল এক্সপার্ট।
 
 
আর আপনি চাইলে খুব সহজেই উপরে উল্লেখিত পিডিএফ গুলোর বাংলা ফরমেটে ডাউনলোড করে তারপর এগুলো থেকে কাজগুলো শিখে নিতে পারবেন।
 

মোবাইল দিয়ে  ডিজাইনঃ

 
আপনার যদি একটি পিসি ল্যাপটপ না থাকে তাহলে আপনি যদি মোবাইল দিয়ে  ডিজাইন করতে চান তাহলে এটি কিভাবে সম্পাদন করবেন?
 
আমি মোবাইল দিয়ে গ্রাফিক্স ডিজাইন করার মত একটি জনপ্রিয় ফ্রী টুলস আজকের এই পোস্টটিতে আলোচনা করব যেটির সহযোগিতায় আপনি যেকোনো ধরনের ডিজাইনের কাজ এক নিমিষেই করে ফেলতে পারবেন।
 
তবে এই টুলসটি দিয়ে কাজ করার ক্ষেত্রে আপনি চাইলে 2 টি উপায়ে করতে পারবেন এর মধ্যে একটি হলো ফ্রী ভার্শন আর অন্যটি হলো পেইড ভার্সন।
 
ফ্রি ভার্সন এ ডিজাইন এর অটো কমপ্লিট সীমা একটা শেষ থাকতে পারে কিন্তু আপনি যদি পেইড ভার্সনে কিছুদিনের জন্য এই টুলসটি সাবস্ক্রাইব করেন তাহলে আনলিমিটেড গ্রাফিক্স ডিজাইন কাজ সম্পাদন করতে পারবেন।
 
আপনার কাজগুলোকে সহজতর করার জন্য আপনি চাইলে নিচের দেয়া লিঙ্ক থেকে অ্যাপসটি ডাউনলোড করে নিতে পারেন এবং তারপরে ফ্রি ভার্সন কিংবা পেইড ভার্সন যেকোনো একটি বেছে নিতে পারবেন।
 
 
অ্যাপসটি ডাউনলোড করে নিন এবং তারপরে এতে আপনার গুগোল অ্যাকাউন্ট দিয়ে সাইন আপ করে কাজ করা শুরু করে দিন।
 

গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্সঃ

 

আপনি যদি এক্সট্রিম লেভেল এর ডিজাইন শিখতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই কোন একটি কোর্স এর অধীনে কিছুদিন কাজ করতে হবে।

 
আর আপনি যদি  ডিজাইনের কিছু দিনের একটি কোর্স করে নেন তাহলে আপনি মূলত প্র্যাকটিক্যালি কিছু এক্সপার্ট এর সহযোগিতায় এই কাজটি শিখে নিতে পারবেন।
 
 ডিজাইনের কাজ আপনি যদি বাংলায় করতে চান তাহলে নিচের দেওয়া লিংকে ভিজিট করে চেক-আউট সম্পন্ন করে নিতে পারেন এবং তার তারপরে এই কোর্সটি তে সংযুক্ত হতে পারে।
 
 
এটি মূলত একটি ফুল ডিজাইন কোর্স যার মাধ্যমে আপনি পুরোপুরি  ডিজাইন শিখতে পারবেন, আর এই কোর্সটি সহযোগিতায় শতভাগ সফলতার সাথে আপনি উত্তীর্ণ হবেন।
 

গ্রাফিক্স ডিজাইন সফটওয়্যার:

 
আপনি যদি ডিজাইন করার জন্য জনপ্রিয় সফটওয়্যারগুলোর অনুসন্ধান করে থাকেন যাতে করে আপনি আপনার কাজটি কে খুব সহজভাবে করে নিতে পারবেন। 
 
তাহলে দেখে নিতে পারেন
জনপ্রিয় গ্রাফিক্স ডিজাইন সফটওয়্যার গুলো কে।
 
 
আপনি চাইলে উপরোক্ত সফটওয়্যার গুলোর মাধ্যমে পিসি কিংবা mac দিয়ে গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ সম্পাদন করতে পারবেন।
 

অ্যান্ড্রয়েডের জন্য ডিজাইন সফটওয়্যারঃ

 
আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েড ফোন এর সহযোগিতায়  ডিজাইন করতে চান তাহলে যে সমস্ত ডিজাইন করা সফটওয়্যার রয়েছে সেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি লিস্ট নিচে দেয়া হল।
 
 
এন্ড্রয়েড ফোন দিয়ে আপনার কাজগুলো সম্পাদন করতে হলে উপযুক্ত অ্যাপস গুলো ব্যবহার করতে পারেন।
 

 ডিজাইন সম্পর্কিত কিছু প্রশ্নঃ

 
ফটোশপের লেভেল গুলোর নাম কি?
 
>> image, shadow, midtowns, highlights
 
এডোবি ফটোশপের এংকার পয়েন্ট কয়টি?
 
>>> 5 টি
 
লেয়ার মূলত কি?
 
>> এটা মূলত একটি লেভেল, যা কাজ গুলোকে সহজতর করে।
 
একজন ডিজাইনার কোথায় কাজ করেন?
 
>>সরকারি বেসরকারি প্রজেক্ট বা ফ্রিল্যান্সিং।
 
আর উপরে উল্লেখিত বিষয়গুলো মূলত হল ও ডিজাইন সম্পর্কে পুরোপুরি গাইডলাইন, যে আপনার গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ সম্পাদন করতে সহযোগিতা করবে।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

19 + 15 =