মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি | কিভাবে তৈরি করবেন|

আপনি যদি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান তাহলে এ কাজে আপনি অনেকটা পিছু হটে যান যখন আপনার কাছে এটা মনে হয়েছে আমার কাছে তো কোন পিসি বা ল্যাপটপ নেই। 

এন্ড্রয়েড ফোন দিয়ে কিভাবে আমি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারব? এবং এই ওয়েবসাইট কে খুব ভালোভাবে মেনটেন করতে পারব? 

এই সমস্ত বিষয় গুলো যখনই আমাদের মনের মধ্যে আসে তখনই আমরা ওয়েবসাইট তৈরি করা থেকে পিছপা হয়ে যাই।

অর্থাৎ আমাদের মনের মধ্যে এরকমটা মনোভাব  আসে না,  আমরা চাইলে মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করে তারপর আয় করতে সক্ষম হব।

এক্ষেত্রে আমরা প্রায় সকলেই এটা মনে করি এই ধ্যান-ধারণায় বসে থাকি যে আমাদের হাতে যেহেতু মোবাইল তাহলে আমরা মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবোনা, এছাড়া কিছুটা কষ্টসাধ্য হয়ে উঠবে।

তবে বিষয়টা যদি আপনি কিছুটা হলেও পর্যালোচনা করেন তাহলে আপনি মনে করবেন যে এটা আসলে একটি ভুল এবং বিভ্রান্তকর ধারণা যে আপনি চাইলে মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন না।

এক্ষেত্রে অনেক প্ল্যাটফর্ম রয়েছে যে প্ল্যাটফর্ম গুলো থেকে আপনি মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। এবং তারপরে আপনার মনের মত এটিকে কন্ট্রোল করে নিতে পারবেন।

এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই একটি যথাযথ প্ল্যাটফর্ম বেছে নিতে হবে, যার মাধ্যমে আপনি মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

এছাড়া ওয়েবসাইট তৈরি করে আপনার কাজটি সীমাবদ্ধ হয়ে থাকবে না, এর পরে আপনি চাইলেএটিকে ভালোভাবে কাস্টমাইজ করে এতে আর্টিকেল পাবলিশ করবেন। 

এবং তারপরে আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর আনার মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটটিকে সার্থক করে তুলবেন।

মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করার মত প্লাটফর্ম গুলো যদি আপনি প্রতিনিয়ত খুঁজে,  থাকেন তাহলে এই পোষ্ট টি আপনার জন্য।

মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করার প্ল্যাটফর্মঃ

আপনি যদি মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান তাহলে আপনাকে একটি প্ল্যাটফর্মের সহযোগিতা নিতে হবে.

এ প্লাটফর্ম থেকে আপনি চাইলে আপনার অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস দিয়ে খুব সহজেই যেকোনো ধরনের কার্যক্রম সম্পাদন করতে পারবেন।

ওয়েবসাইট তৈরি করা প্ল্যাটফর্মটিতে আপনি যখন প্রবেশ করবেন তখন এখান থেকে আপনি কিভাবে একটি নতুন ওয়েবসাইট তৈরি করবেন আপনার এন্ড্রয়েড ফোন দিয়ে, সেটি আমি আর একটি পোস্টে বর্ণনা করেছি। 

আপনি চাইলে নিচের দেয়া লিঙ্ক থেকে পুরোপুরি দেখে আসতে পারেন।

 

ওয়েবসাইট তৈরী

 

আশাকরি উপরে দেয়া আর্টিকেল দ্বারা আপনি খুব সহজে বিভিন্ন ধরনের তথ্য অনুযায়ী আপনার জীবনের প্রথম ওয়েবসাইট তৈরী করতে পারবেন। 

ওয়েবসাইট কাস্টমাইজেশন এবং এইচটিএমএল এডিটিং কিভাবে?

তবে মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করার ক্ষেত্রে আপনাকে প্রায় সময় যেকোনো ধরনের এইচটিএমএল এডিটিং সহ নানা ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। 

আপনি অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস দিয়ে যদি করেন তাহলে আপনাকে আপনার এন্ড্রয়েড ফোন হ্যাং হয়ে যাওয়া সহ নানা ধরনের যাবতীয় সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। 

তবে এই সংক্রান্ত সমস্যা থেকে উত্তোলনের জন্য আপনি চাইলে একটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ডাউনলোড করে নিতে পারেন। 

যার মাধ্যমে আপনি চাইলে যেকোনো ধরনের বড় এইচটিএমএল কোডিং খুব সহজেই এডিট করতে পারবেন।

 

Quickedit

 

উপরে উল্লেখিত অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপসটি ডাউনলোড করার পরে আপনি যেকোন ধরনের বড় করতে যদি এখানে পেস্ট করে দেন।  

তাহলে আপনি বিভিন্ন ধরনের ফিচারস সহযোগিতায় খুব সহজেই আপনার ফোন হ্যাং হওয়া সংক্রান্ত সমস্যা ছাড়াই যেকোনো ধরনের এইচটিএমএল এডিট করতে পারবেন।

কিভাবে দ্রুততার সাথে ওয়েবসাইট কাস্টমাইজ করব?

আপনি যদি এন্ড্রয়েড ফোন ব্যবহারকারী হন তাহলে আপনি হয়তো বিভিন্ন ধরনের নেটওয়ার্ক জনিত সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। 

এটা দেখা যেতে পারে যে অনেক সময় যেকোনো কিছু কাস্টমাইজ করার সময় আপনার ব্রাউজার ঠিকমতো কাজ করছে না, কিংবা এটি অধিকতর ধীরগতিতে কাজ করছে।

আর আপনি যদি এই সংক্রান্ত জটিলতা ভোগার মত আশঙ্কায় থাকেন তাহলে আপনি চাইলে এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য সবচেয়ে দ্রুতগতির ব্রাউজার এপস টি নিচে থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

 

Puffin

 

এই ব্রাউজার অ্যাপস টি সহযোগিতায় আপনি নানামুখী সুযোগ সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। এবং অনেকটা অ্যান্ড্রয়েড কিংবা পিসির মতো বিভিন্ন ধরনের ফিচারস উপভোগ করতে পারবেন।

যেগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি হলো এই ব্রাউজারে আপনি মাউস এর মত একটি অপশন পাবেন, যার মাধ্যমে আপনার ব্লগার এর গেজেট গুলোকে আপনি ইচ্ছামত এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় সরাতে পারবেন।

বলা বাহুল্য যে আপনি যদি আপনার ব্লগারে যেকোনো গেজেট কে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় পরিবর্তন করতে চান অর্থাৎ স্থান পরিবর্তন করতে চান তাহলে আপনাকে একটি পিসির সহযোগিতা নিতে হতো। যা আপনি এই ব্রাউজারটি দ্বারা করতে সক্ষম হবেন।

মোটামুটি মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করার ক্ষেত্রে যে সংক্রান্ত সমস্যাগুলো হয়, তা আমি উপরে আলোচনা করেছি এবং এর থেকে পরিত্রাণের উপায় আলোচনা করেছি।

আশাকরি মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করার ক্ষেত্রে আপনারা কোন ধরনের সমস্যা হওয়ার কথা নয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 1 =

Scroll to Top