বাল্ক এসএমএস কি? কিভাবে এটি স্বল্প মূল্যে ক্রয় করবেন?

বাল্ক এসএমএস নামক কোন কিছু নাম কি কখনো শুনেছেন? অথবা এর নাম শুনার পরে কখনো কি এরকম ইচ্ছা জেগেছে,আসলে বাল্ক এসএমএস মানে কি?

আপনি হয়তো এ সম্পর্কে শুধু শুনেই এসেছেন কিন্তু কখনোই এর উত্তরের দ্বারপ্রান্তে পৌছাতে পারেন নি, এটা কি খায়, নাকি মাথায় দেয়? এই সম্পর্কে হয়তো আপনার বিন্দুমাত্র ধারণা নেই।

তাই আপনি এই পোস্টটি অপেন করেছেন বাল্ক এসএমএস সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য, অবশ্য আপনার আগ্রহ কে সাধুবাদ জানাচ্ছি।

কারণ আপনি এই পোষ্টের মাধ্যমে বাল্ক এসএমএস সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন, যার জন্য আপনি এতদিন ধরে অধীর আগ্রহে বসে আছেন।

বাল্ক এসএমএস সম্পর্কে একটি উদাহরণের মাধ্যমে কিভাবে, কারণ উদাহরণ দিলেই যে কোন বিষয়ে একেবারে পানির মতো সহজ হয়ে যায়।

আপনি হয়তো আজকেও ইন্টারনেটে ভ্রমণ করেছেন কয়েকটি অপারেটিং সিস্টেমের মাধ্যমে, হতে পারে আপনি যেকোন সিমের গ্রাহক, যেমন- গ্রামীনফোন, বাংলালিঙ্ক ইত্যাদি।

আপনি হয়তো প্রতিদিন এই অপারেটিং সিস্টেমের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের এসএমএস সেবা ভোগ করেন, যেমন তারা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন নাম সহকারে আপনাকে এসএমএস প্রেরণ করে।

এর মধ্যে প্রায় কয়েক শত এসএমএস থাকে Gp info, GP Offer,Govt info ইত্যাদি বর্ণগুলো গুলোর মাধ্যমে, এগুলো কি তাদের বিজনেস কোম্পানিকে সম্বোধন করছে না?

অবশ্যই হা, তারা তাদের বিজনেস কোম্পানির নাম কে পুঁজি করে কোন ধরনের নাম্বার ছাড়াই এই এসএমএসগুলো প্রেরন করছে গ্রাহকের কাছে।

আর এই এসএমএস গুলো কিন্তু সাধারন এসএমএস নয়, যে শব্দটি দ্বারা আপনি এতদিন দ্বিধাদ্বন্দ্বে ছিলেন, এটি সেই- যার নাম হল বাল্ক এসএমএস।

এবার নিশ্চয়ই আপনি এটা সম্পর্কে আর কোন প্রশ্ন করবেন না, কারণ এতক্ষণে আপনি এটা জেনে গেছেন যে বাল্ক এসএমএস মানে আসলে কি?

একদম সোজা করতে বলতে গেলে এটা বলা হয় যে এসএমএস গুলো এমন এক ধরনের এসএমএস, যার মাধ্যমে আপনি বিশ্বের যে কোন প্রান্তে আপনার কোম্পানির নাম প্রচার করে এসএমএস সেবা দিতে পারেন।

এক্ষেত্রে প্রায় সময়ই আপনাকে কোন নাম্বার দ্বারা এসএমএস করতে হয় না, এসএমএসগুলো বিভিন্ন ধরনের বড় বড় প্রতিষ্ঠান ব্যবহার করা হয়।

আপনি যদি কোন কোচিং সেন্টারে ভর্তি হন ওই কোচিং সেন্টার কর্তৃক বিভিন্ন ধরনের অফার যেমন- পরীক্ষার রেজাল্ট, পরীক্ষা কোন দিন হবে, আপনার রেজাল্ট কি? এগুলো বাল্ক এসএমএস এর মাধ্যমে পাঠানো হয়।

এক্ষেত্রে কিন্তু আপনি লক্ষ্য করলে দেখতে পারবেন তাদের প্রেরণকৃত মেসেজে কোন ধরনের নাম্বার খুঁজে পাওয়া যায় না। অথবা প্রায় ক্ষেত্রে আপনি এগুলো রিপ্লাই দিতে পারেন না।

এই মেসেজগুলো ওই নির্দিষ্ট প্রতিষ্ঠানের নাম সহকারে আপনার ইনবক্সে এসে প্রবেশ করে, যার দ্বারা আপনি অনুমান করতে পারেন যে এটি সেই প্রতিষ্ঠান এসএমএস যে প্রতিষ্ঠানকে আপনি চিনেন।

এবার আপনি হয়তো এটাই চাইছেন যে আপনিও বাল্ক এসএমএস কিনে আপনার কাস্টমারদের কাছে মেসেজ পাঠাতে, কিংবা বন্ধুবান্ধব কাছেও মেসেজ পাঠাতে

তবে এই এসএমএসগুলো নির্দিষ্ট কোন প্রাইস নেই, আপনি বিভিন্ন ধরনের অপারেটরের কাছ থেকে বিভিন্ন প্রাইস সহকারে এসএমএস গুলো কিনতে পারবেন।

আমি নিচে কয়েকটি অ্যাভারেজ প্রাইস লিখে দিয়েছি যা বাল্ক এসএমএস কেনার ক্ষেত্রে আপনার প্রয়োজন হতে পারে।

৫০০ এস এম এস = ৩৫০ টাকা (০.৭৫/- হারে) ১০,০০০ এস এম এস = ৫৫০০ টাকা (০.৫৫/- হারে) ৫০,০০০ এস এম এস = ২২,৫০০ টাকা

তবে এই এসএমএস গুলো কিনতে হলে অবশ্যই আপনাকে ওই অপারেটরের সাথে যোগাযোগ করতে হবে। আপনি খুব বেশি সংখ্যক এসএমএস কিনে তারা এতে ডিসকাউন্ট দিবে।

আপনি চাইলে নিচের দেয়া কয়েকটি ওয়েবসাইট ব্যবহার করার মাধ্যমে বাল্ক এসএমএস কিনতে পারেন বাংলাদেশ থেকে।


বাল্ক এসএমএস কিনুন-১

আর উপরের দেওয়া ওয়েবসাইটগুলো সহযোগিতায় আপনি আপনার পছন্দের প্রাইস অনুযায়ী বাল্ক এসএমএস ক্রয় করতে পারবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen − 12 =

Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap