ফেসবুক গ্রুপ সেটিং এবং গ্রুপে মডারেটরদের কাজ

ফেসবুক গ্রুপে এমন কিছু সেটিং আছে সেগুলো সম্পর্কে আপনাকে অবশ্যই মোটামুটি ধারণা রাখা লাগে।

আর এতে আপনার গ্রুপটি খুব বড় হবে এবং এই গ্রুপ আপনি যে উদ্দেশ্যে খুলেছেন সেটা সার্থক হবে।আজকের এই পোস্টটিতে আমি এরকম গ্রুপের কিছু গুরুত্বপূর্ণ সেটিং এবং এই গ্রুপের মডারেটর এর কাজ সম্পর্কে আলোচনা করব।

আপনার গ্রুপে যদি সমস্ত গ্রুপ মেম্বারস  গুরুত্বহীন  পোস্ট সর্বদা শেয়ার করে থাকে, যা আপনি মনে করেন আপনারা গ্রুপের জন্য এগুলো উপযুক্ত নয় তাহলে আপনি একটি সিস্টেম চালু করতে পারেন।

আর সেটা হলো যেকোনো মেম্বারদের পোস্ট অ্যাপ্রভাল, এতে করে শুধুমাত্র এডমিন এবং মডারেটর যে পোস্ট অ্যাপ্রুভ করবে সেটি গ্রুপে পাবলিশ হবে।

এতে করে আপনার গ্রুপে অযাচিত পোষ্টগুলো শেয়ার করা আপনি বন্ধ করতে পারবেন, এবং আপনার গ্রুপের মেম্বারদের আপনার গ্রুপ রুলস গুলো ভালোভাবে বুঝিয়ে দিতে পারবেন।

আর এই পোস্ট অ্যাপ্রভাল সেটিং চালু করতে হলে আপনাকে অবশ্যই গ্রুপের এডমিন হতে হবে, Setting-Modarate-Post Approval- এটাতে ক্লিক করে অপেন করে দিন।

 

ফেসবুক গ্রুপ সেটিং এবং গ্রুপে মডারেটরদের কাজ সম্পর্কে পরিপূর্ণ আলোচনা|

 

 খারাপ শব্দ বাছাই করুন

যদি আপনার ফেসবুক গ্রুপে কেউ এরকম কোন শব্দ দিয়ে গালাগালি করা হয় যা আপনি বন্ধ করতে চান, তাহলে একটি ছোট সেটিং এর মাধ্যমে তা করতে পারবেন।

আর এখানে আপনি যে শব্দগুলো দিয়ে সেভ করবেন এই শব্দগুলো যখনই কমেন্ট করা হবে তখনই আপনি নোটিফিকেশন আকারে তা পেয়ে যাবেন।

আর এতে করে আপনি চাইলে তাদেরকে আপনার গ্রুপ থেকে ব্যান করতে পারেন, অথবা তাদেরকে সতর্কবাণী দিতে পারেন।

আর এজন্য আপনাকে পূর্বের মতো গ্রুপে সেটিং এ যেতে হবে তারপর Moderate -Keyword Alert- এখানে যে শব্দগুলো আপনি লিখতে চান তা লিখে তারপর অ্যাড করে দিন।

 

2ফেসবুক গ্রুপ সেটিং এবং গ্রুপে মডারেটরদের কাজ সম্পর্কে পরিপূর্ণ আলোচনা|


আর এভাবেই আপনি যতগুলো শব্দ এড করবেন, তার প্রত্যেকটির নোটিফিকেশন পেয়ে যাবেন।

 নতুন মেম্বার্সদের  প্রশ্ন

অনেক গ্রুপে আপনি মেম্বার রিকুয়েস্ট দেয়ার সময় অনেক ক্ষেত্রে হয়তো প্রশ্ন দেখতে পারেন, তারা আপনাকে কিছু প্রশ্ন করে যার উত্তর আপনাকে দিতে হয় কিংবা এড়িয়ে চলতে হয়।

কিন্তু এগুলো গ্রুপের সৌন্দর্য এবং গ্রুপ এর একটিভিটি কে আরো বহুলাংশে বাড়িয়ে দেয়, আর আপনিও এটা চাইলে আপনার ফেসবুক গ্রুপে যুক্ত  করতে পারেন।

Setting-Moderate -Membership Request -Ask Question -Add Question – এখানে আপনি যেকোন ধরনের প্রশ্ন আপনার নতুন জয়েন গ্রুপ মেম্বারদের কাছে করতে পারেন।

ফেসবুক গ্রুপ সেটিং এবং গ্রুপে মডারেটরদের কাজ সম্পর্কে পরিপূর্ণ আলোচনা|


তাই আর দেরি না করে আপনার কাছে যদি এরকম কোন প্রশ্ন থেকে থাকে যা আপনি নতুন জয়েন করা গ্রুপ মেম্বারদের কাছে করতে চান, তাহলে উপরের দেয়ার নিয়ম অনুযায়ী সেটিং করে ফেলুন।

 গ্রুপ অ্যাড্রেস

আপনি চাইলে আপনার গ্রুপটিকে আরও সহজভাবে শেয়ার করার জন্য আপনার ফেসবুক গ্রুপের লিংক টি পরিবর্তন করতে পারেন।

এতে করে যে কেউ খুব সহজে আপনার ফেসবুক গ্রুপ কে খুঁজে পাবে, এক্ষেত্রে আপনাকে setting- moderate – web address – customize address এখানে ক্লিক করলেই আপনার পছন্দমত লিংক দিতে পারবেন ।

ফেসবুক গ্রুপ সেটিং এবং গ্রুপে মডারেটরদের কাজ সম্পর্কে পরিপূর্ণ আলোচনা|


মনে রাখবেন যখন আপনার গ্রুপের মেম্বার ৫০০০ হয়ে যাবে তখন আপনি এটি আর পরিবর্তন করতে পারবেন না, এর আগে যতবার ইচ্ছে ততবার পারবেন।

 জরুরি অবস্থা

ফেসবুকে অনেক অ্যালগরিদম চেঞ্জ হয়, এই কয়েকদিন আগে দেখা গেছে অনেক সংখ্যক খুব ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ডিলিট করে দিয়েছে।

আর এরকম কোন সমস্যার মধ্যে যদি কখনো আপনাকে পড়তে হয় তাহলে অবশ্যই আপনার গ্রুপে একটি সেটিং ওপেন করে দিতে হয়,

আর এটি হল Group Archive ‘ যখনই আপনি এটিকে ওপেন করে দিবেন তখনই আপনার গ্রুপের সমস্ত মেম্বার যে কোন পোস্টে লাইক কমেন্ট করতে পারবে।

এক্ষেত্রে কোন মেম্বার আপনার গ্রুপে কোন নতুন পোস্ট করতে পারবে না। আর এই অপশনটি ওপেন করলেই আপনার ফেসবুক গ্রুপ অনেকটা ঝুঁকিমুক্ত হয়ে যাবে।

এক্ষেত্রে আপনি অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস দিয়ে ফেসবুক গ্রুপে ড্যাশবোর্ড থেকে যখনই সেটিং অপশনটিতে ক্লিক করবেন তখনই Archive Group এটি পেয়ে যাবেন।

এবং এটাতে ক্লিক করার পরে আপনাকে কনফার্ম করতে হবে, তাহলে আপনার ফেসবুক গ্রুপ কে কয়েকদিনের জন্য আর্কাইভ হয়ে যাবে।

 

ফেসবুক গ্রুপ সেটিং এবং গ্রুপে মডারেটরদের কাজ সম্পর্কে পরিপূর্ণ আলোচনা|


যখনই আপনি যখনই মনে করবেন যে এবার আপনার গ্রুপটিকে আর্কাইভ থেকে মুক্ত করতে হবে, তাহলে আপনি এটা খুব সহজেই করতে পারবেন।

এজন্য আপনাকে শুধুমাত্র Unarchive Group এতে ক্লিক করতে হবে, তাহলে আপনার গ্রুপটি পূর্বের মত হয়ে যাবে।

আর এভাবেই আপনি আপনার ফেসবুক গ্রুপে গুরুত্বপূর্ণ সেটিং গুলো খুব সহজেই করতে পারবেন।

⚠উপরের দেয়া প্রত্যেকটি  সেটিং এর জন্য  আপনাকে অবশ্যই, m.Facebook. com এই এড্রেসটি সরিয়ে web.facebook.com এটাতে যেতে হবে, এজন্য আপনার ব্যবহারকৃত ব্রাউজার ডেক্সটপ মোডে নিয়ে যেতে হবে।

ফেসবুক গ্রুপের মডারেটর এর কাজ কি?

ফেসবুক গ্রুপে এডমিনদের পরেই মডারেটরের স্থান, তারা অনেক ধরনের সুযোগ-সুবিধা পেতে পারে। এবং গ্রুপটিকে কন্ট্রোল করতে পারবে।

আর গ্রুপের মডারেটর কি কি ধরনের কাজ করতে পারবে অর্থাৎ তাদের কাজের সীমাবদ্ধতা সম্পর্কে নিচে উল্লেখ করা হলো:

▪ কিছু সীমাবদ্ধ সেটিং করতে পারবে

▪ পোস্ট এপ্রুভ করতে পারবে

▪ গ্রুপে মেম্বার যুক্ত করতে পারবে

▪ মেম্বার অ্যাপ্রভাল করতে পারবে

▪ গ্রুপ থেকে কাউকে ব্যান করতে পারবে

আর উপরে দেয়া সুবিধাগুলো একজন গ্রুপ মডারেটর এর দখলে থাকে। এছাড়াও আরও অনেক সুবিধা আছে যা একজন গ্রুপ মডারেটর হিসেবে আপনি উপভোগ করতে পারবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 − one =

close
Scroll to Top
Share via
Copy link