ফেসবুক আইডি ফেসলক ডিজেবল হওয়ার কারণ এবং বাঁচার উপায়|

ফেসবুক আইডি ফেসলক ডিজেবল হওয়ার কারণ এবং তা থেকে বাঁচার উপায়|



ফেসবুকে বর্তমানে মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়েছে ফেসলক ডিজেবল নামক একটি সমস্যা।


আর খুব সম্ভবত আপনি যদি ফেসলক ডিজেবল নিয়ে খুব বেশি একটা না ভাবেন তাহলে এর পরবর্তী শিকার হতে পারেন আপনি।


এজন্য এ সমস্যাটি এড়াতে হলে আপনাকে আগে জানতে হবে যে কোন কোন কারনে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ফেসলক ডিজেবল হয়ে যেতে পারে।


আজকের এই পোস্টটিতে আমি আলোচনা করবো আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ফেসলক ডিজেবল হওয়ার সম্ভাব্য কারণ এবং তা থেকে উত্তোলনের উপায়।

 ফেসলক ডিজেবল হওয়ার কারণ



প্রথমেই বলে রাখি আপনার ফেসবুক একাউন্টকে ফেসলক ডিজেবল হওয়া অনেকগুলো কারণ থাকতে পারে, তবে এর মধ্যে কয়েকটি প্রধান কারণ সম্পর্কে আজকে আলোচনা করব।


ভিন্ন লোকেশনে লগইন-


অনেক সময় আপনি স্টাইলিশ নাম সেভ করার জন্য, কিংবা বাংলাদেশ থেকে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ যে সুবিধাগুলো উঠিয়ে নিয়েছে সেগুলো পুনরায় ব্যবহারের জন্য আপনি ভিপিএন ব্যবহার করেন।


আর যখনই আপনি ভিপিএন ব্যবহার করে অন্য কোন প্রক্সি তে লগইন করে থাকেন তখনই ফেসবুকের সার্ভারে জমা হয়ে যায়।


আর তারপর আপনি যখন আবার আপনার লোকেশন চেঞ্জ করে বাংলাদেশের লোকেশনে লগইন করেন তাও ফেসবুকের সার্ভারে জমা হয়।


যখন আপনি ভিন্ন সময় ভিন্ন ভিন্ন লোকেশনে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট লগইন করে থাকেন তখন ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এতে নজর দেয়।


আর ফেসবুকের প্রধান লক্ষ্য হলো তাদের ইউজারদের সম্পূর্ণ নিরাপত্তা প্রদান, এবং যখনই তারা কোন সমস্যা দেখতে পায় তখন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্লক করে দেয় আপনার নিরাপত্তার স্বার্থে।


আর উপরে উল্লেখিত এরকম করার পরে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এটা মনে করে যে হয়তো আপনার ফেসবুক একাউন্ট কেউ হ্যাক করে নিয়েছে।


আর তারা আপনার ফেসবুক একাউন্টকে তৎক্ষণাৎ ফেসলক ডিজেবল সমস্যার মধ্যে ফেলে দেয়। কারণ তারা এটা মনে করে যে আপনি যদি এই একাউন্টের মালিক হন তাহলে এটা অবশ্য ফিরিয়ে আনতে পারবেন।


প্রোফাইল পিকচার-


অনেক ফেসবুক ইউজার আছে যে তাদের ফেসবুক প্রোফাইলে এরকম কোন প্রোফাইল পিকচার ব্যবহার করেন, যে প্রোফাইল পিকচারটি আসলে তাদের নয়।


হতে পারে আপনি কোন ব্যক্তিকে হেরেজ করে তা প্রোফাইল পিকচারটি আপনার প্রোফাইলে ব্যবহার করেন। কিংবা কোন সেলিব্রেটির প্রোফাইল পিকচার ব্যবহার করেন।


আর এটা ফেসবুক সমস্যা হওয়ার অন্যতম কারন গুলোর মধ্যে একটি, আপনি সব সময় নিজের ছবি ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন।


আর প্রোফাইল পিকচার ব্যবহার করার ক্ষেত্রে আপনি নিচের ধাপগুলো ফলো করুন।


▪ এমন একটি পিকচার ব্যবহার করুন যাতে ওই ছবিটি মুখটা স্পষ্ট দেখা যায়।


▪ প্রোফাইল পিকচারটি যাতে একদম স্পষ্ট এবং এইচডি কোয়ালিটি হয়।


▪ কপিরাইট কোন প্রোফাইল পিকচার ব্যবহার করলে এটি রিসাইজ করে নিন।


প্রোফাইল ডিটেইলস-


অনেকেই আছেন তাদের ফেসবুক প্রোফাইলকে পুরোপুরি কমপ্লিট না করেই ফেসবুক ব্যবহার করেন।


আর এটা একটি মারাত্মক সমস্যা, আপনি যখনই ফেসবুক ব্যবহার করবেন তখন আপনার উচিত হবে ফেসবুকে প্রোফাইল পুরোপুরি কমপ্লিট করার।


অন্যথায় আপনার ফেইসবুক একাউন্ট ফেসলক ডিজেবল এর ঝুঁকির মধ্যে থাকতে পারে।


স্টাইলিশ নাম-


আপনি যদি ফেসবুক প্রোফাইলে কোন স্টাইলিশ নাম ব্যবহার করে থাকেন তাহলে আজই তা রিমুভ করে দিন। কারণ এটা ফেসলক ডিজেবল হওয়ার অন্যতম কারন গুলোর মধ্যে একটি।


তবে আপনি চাইলে স্টাইলিশ নামে ফেসবুক আইডি এমনিতেই তৈরি করতে পারেন বিনোদনের জন্য। সেটা কখনো আপনার রিয়েল ফেসবুক আইডি তে এপ্লাই করবেন না।


তাছাড়া ফেসবুকে কোন স্টাইলিশ নাম ব্যবহার করা হয় এটি তাদের কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ড পলিসি এর সম্পূর্ণ পরিপন্থী। তাই এটা ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন।


আর উপরে উল্লেখিত কারণগুলোর কারণে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট যেকোনো সময় ফেসলক ডিজেবল সমস্যার সম্মুখীন হতে পারে।


এবার যদি আপনার ফেসবুক একাউন্ট  ফেসলক সমস্যায় জর্জরিত হয় তাহলে এটা কিভাবে আবার ফেরত আনবেন আপনার কাছে?

 ফেসলক ডিজেবল থেকে আইডি ফেরত আনার উপায়



আপনি চাইলে এই ব্লগে পাবলিশ করা পূর্বের পোষ্টটি দেখে আসতে পারেন। পূর্বের পোষ্টটি ফেসবুক একাউন্ট ফেসলক ডিজেবল সমস্যা থেকে ফেরত আনার জন্য একটি পরিপূর্ণ গাইড।



তাহলে আজকে এই পর্যন্ত।

Leave a Comment

eighteen − one =