ফেসবুক আইডি ডিজেবল হওয়ার কারণ এবং ফিরিয়ে আনার উপায়|

বর্তমানে আপনি এরকম অনেক ফেইসবুক একাউন্ট দেখতে পারবেন যে অ্যাকাউন্টগুলো কয়দিন আগে আপনি ফেসবুকে দেখেছেন, কিন্তু এখন আর দেখছেন না।

হয়তো এই সমস্ত ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হওয়ার কারণে এগুলো ফেসবুকে আর দেখা যাচ্ছে না, কিসের ভরসা আছে যে আপনার ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হবে না?

আপনি হয়তো আজকে ফেসবুকে আপনার অ্যাকাউন্টটি নিয়ে টিকে আছেন, কিন্তু কাল পর্যন্ত কি আপনি ফেসবুকে টিকে থাকতে পারবেন?

ফেসবুকে আপনার অপব্যবহার কিংবা অন্য কারো হিংসার পাত্র হয় আপনি আপনার ফেইসবুক একাউন্টটি হারাতে পারেন। 

আপনার ফেইসবুক একাউন্ট হয়ে যেতে পারে ডিজেবল ফেসবুক একাউন্ট গুলোর মধ্যে একটি।

কেন ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হয়? ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হওয়ার আসল কারণ কি? কিভাবে ফেসবুক ডিজেবল একাউন্ট ফেরত আনবেন? এসমস্ত নিয়ে আজকের এই পোস্টটি।

 ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হওয়ার কারণ–   

ফেসবুকে কিন্তু অনেক রকমের ডিজেবল এর শিকার আপনি হতে পারেন, হতে পারে সেটা আপনার ফেসবুক একাউন্ট প্রিটেন্ডিং ডিজেবল, ফেসলক ডিজেবল কিংবা অন্যকিছু।

আর এ সমস্ত ডিজেবল হওয়ার অনেকগুলো কারণ থাকতে পারে, এখানে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ সম্পর্কে আলোচনা করা হবে যেগুলো থেকে আপনাকে অবশ্যই বিরত থাকতে হবে।

  • ভিপিএন ব্যবহার করা-

উদাহরণস্বরূপ আপনি এখন বাংলাদেশেরও লোকেশনে আছেন, ভিপিএন ব্যবহার করার কারণে আপনি চাইলে আপনার লোকেশন টা খুব সহজে বদলে ফেলতে পারেন।

এখন আপনি যদি আপনার ফেইসবুক একাউন্ট নিয়ে বাংলাদেশের লোকেশনে লগইন থাকেন, এবং কোন এক কারনে ভিপিএন অন করে আবার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে অন্য আরেকটি লোকেশনে লগইন করেন তাহলে কি হবে?

এরকম ভিন্ন ভিন্ন দেশে লগ ইন করার  কারণে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ মনে করবে হয়তো আপনার অ্যাকাউন্টটি অন্য কেউ এক্সেস নিয়েছে।

আর এর আপনার সহায়তার জন্য ফেসবুক কর্তৃপক্ষ অ্যাকাউন্টটি ফেসলক লক ডিজেবল কিংবা পার্মানেন্টলি ডিজেবল করে দিতে পারে।

  • অন্যকারো রিপোর্ট-

যখন ফেসবুকে আপনি কারো সাথে অসৎ আচরন করবেন কিংবা কোন খারাপ পোস্ট করবেন তখন যদি কেউ আপনার প্রোফাইলে রিপোর্ট করে তাহলে আপনার একাউন্ট ডিজেবল হয়ে যেতে পারে।

কারণ ফেইসবুক সবসময় ব্যবহারকারীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চায়, তবে অনেক সময় দেখা যায় সেও অযথাই আমাদের ফেসবুক একাউন্টে রিপোর্ট করে।

যার ফলে আমাদের ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হয়ে যায়, আর তাদের রিপোর্ট থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আপনি চাইলে নিচের পোস্টটি দেখতে পারেন।

পোস্টটিতে আমি এমন একটি প্রসেস দেখেছি যেটি আপনার প্রোফাইলে ব্যবহার করলে কেউ আপনার প্রোফাইল ভিজিট করে রিপোর্ট করতে পারবে না।

  • খারাপ লিংক প্রচার-

আপনি যদি ফেসবুকে এরকম কোন লিংক প্রচার করে থাকেন আর সেটি যদি ফেসবুক কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি পাত হয়, তাহলে এর সম্পর্কে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ অ্যাকশন নিতে পারে।

আপনি হয়তো অবগত আছেন ফেসবুক কর্তৃপক্ষ যে কোন খারাপ পোস্ট এর চেয়ে লিংক এই বিষয়গুলোতে বেশি নজর দেয়।

যার ফলে লিংক শেয়ার করার সময় আপনাকে অবশ্যই এটি নিশ্চিত হতে হবে, আপনি যে লিঙ্কটি শেয়ার করছেন, তা কি আসলেই ফেসবুকের জন্য উপযুক্ত?

  • মেসেঞ্জারে মেসেজ-

ফেসবুকে অনেক সময় নতুন নতুন সমস্যা ছড়িয়ে পড়ে, ফলশ্রুতিতে অনেকেই আপনাকে আপনার মেসেঞ্জারে মেসেজ দিতে পারে।

উদাহরণস্বরূপ, সামনে ভালবাসা দিবস। এখন আপনার বন্ধু-বান্ধব কিংবা কেউ যদি এরকম কোন মেসেজ পেয়ে আপনার ইনবক্সে শেয়ার করে।

মেসেজটা এরকম হতে পারে- আপনার প্রিয় মানুষটিকে ভালোবাসা দিবসের শুভেচ্ছা জানাতে, এই লিংকে ক্লিক করুন তাহলে আপনি চমকে যাবেন।

আর আপনিও হয়তো উৎসাহের কারণে এসমস্ত লিংকে ক্লিক করে বসলেন। এই লিংকটি যদি আসলেই কোন ভাইরাস কিংবা মালওয়্যার হয় তাহলে আপনার ফেসবুক একাউন্ট গেছে চিরদিনের জন্য।

 ডিজেবল ফেসবুক একাউন্ট কিভাবে ফেরত আনবেন?

কোন কারণে ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হয়ে গেলে আমাদের একটাই লক্ষ্য ফেসবুক একাউন্ট কিভাবে আমরা ফেরত আনবো?

অনেকে তাদের ফেসবুক একাউন্ট অনুযায়ী NID Card থাকেনা, যার কারণে আপনারা হয়তো আপনাদের ডিজেবল ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ফেরত আনতে পারেন না।

আপনি চাইলে নিচের দেয়া লিঙ্ক থেকে অরিজিনাল এনআইডি কার্ড কিংবা স্মার্ট কার্ড তৈরি করতে পারবেন তাও একদম ফ্রিতে

উপর থেকে কার্ডগুলো তৈরি করার পর এবার আপনাকে একটি লিঙ্গের সহায়তা নিতে হবে, লিংকটি আমি নিচে দিয়ে দিচ্ছি।

Disable Facebook Account Back

ফেসবুক আইডি ডিজেবল হওয়ার কারণ এবং ফিরিয়ে আনার কার্যকরী উপায়|





Login email address or mobile phone number- আপনার ফেইসবুক অ্যাকাউন্টে ব্যবহারকৃত ইমেইল এড্রেস কিনবা ফোন নাম্বারটি এখানে দিতে হবে।

Your full name- আপনার যে ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হয়েছে সেই একাউন্ট এর পুরো নাম এখানে দিতে হবে।

Your ID(s)- এই জায়গায় আপনি উপরের লিঙ্ক থেকে যে এনআইডি কার্ড কিংবা স্মার্ট কার্ড তৈরি করেছেন সেই কাজটি সাবমিট দিন।

এরপর এটি সাবমিট করুন। এর জন্য আপনাকে কিছু সময় অপেক্ষা করতে হবে এবং সবকিছু ঠিক থাকলে আপনি আপনার ফেইসবুক ডিজেবল একাউন্ট ফেরত আনতে পারবেন।

কিংবা আপনি চাইলে নিচের কয়েকটি লিংক এর সাহায্যে কোন ধরনের এনআইডি কার্ড কিংবা স্মার্ট কার্ড ছাড়াই আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ফেরত আনতে পারবেন।

তবে উপরে দেওয়া লিংকে সাবমিট করার কিছু সময় পর যদি আপনার রিকুয়েস্ট ফেসবুক কর্তৃপক্ষ রিজেক্ট করা যায় তাহলে এই লিঙ্ক গুলোতে সাবমিট দিবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 5 =

Scroll to Top
Share via
Copy link
Powered by Social Snap